কোটা সংস্কার অন্দোলন

রাজপথে রিকশার দাপট

প্রকাশ : ১১ এপ্রিল ২০১৮, ১৮:৪৮ | অনলাইন সংস্করণ

  রীনা আকতার তুুলি

রাজপথে রিকশার দাপট

কোটা সংস্কারের দাবিতে রাজধানীর বিভিন্ন সড়ক অবরোধ করে আন্দোলন করে রাজধানীর পাবলিক ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। ফলে রাজধানীর বিভিন্ন সড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। এই সুযোগে রাজধানীর বিভিন্ন রাজপথে দাপিয়ে বেড়িয়েছে রিকশা।

সকাল ৯টার পরপরই এসব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের হাজারো শিক্ষার্থী রাজধানীর পান্থপথ, তেজগাঁও, ফার্মগেট, মিরপুর, বাড্ডা, পান্থপথ ও ফার্মগেটসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়ক অবরোধ করে। ফলে পুরো রাজধানীতে যানজট ছড়িয়ে পড়ে ও যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। 

সরেজমিনে দেখা যায়, শিক্ষার্থীরা রাস্তা বন্ধ করে দেয়ায় মূল সড়কজুড়ে ছিল রিকশার দাপট। এছাড়া ভ্যান, সাইকেল ও মোটরসাইকেলও চলাচল করতে দেখা গেছে।গন্তব্যে পৌঁছাতে বিপাকে পড়েন সাধারণ মানুষ। বিকল্প যান হিসেবে তারা বেছে নেয় রিকশা, ভ্যান, সাইকেল, মোটারসাইকেল। এছাড়া অনেকে  হেঁটে গন্তব্যের দিকে ছুটে আসতে দেখা গেছে। 

গাড়ি না পেয়ে ভ্যানে করে বাসায় ফিরছিলেন কর্মজীবী নারী মাহমুদা। তিনি বলেন, কোনো সমস্যা হলে সাধারণ মানুষ সবচেয়ে বেশি দুর্ভোগের শিকার হয়। আমরা এর প্রতিকার চাই।যারা এসিতে বসে বড় বড় কথা বলেন, তাদের বলছি, দ্রুত আলোচনায় বসে দ্রুত সমস্যার সমাধান করুন।

বাড্ডায় ফাঁকা রোডে রিকশাচালক আব্বাস জানান, রিকশা চালিয়ে বড় আরাম পাচ্ছি।ফাঁকা রাস্তায় রিকশা চালানোর মজাই আলাদা।

আব্বাসের রিকশার যাত্রী মুনিয়া মামুন জানায়, রিকশা দাপট বড় বেড়েছে। তারা ইচ্ছামতো ভাড়া আদায় করে নিচ্ছে। নতুন বাজার থেকে বসুন্ধরার ভাড়া দিলাম ৬০ টাকা। বোঝেন এবার, কী বিপদে আছি। 
কোটা সংস্কারের দাবিতে শিক্ষার্থীরা সড়ক অবরোধ করায় সাধারণ মানুষ পড়ে চরম বিপাকে। তাই কেউ রিকশা ও ভ্যানে চড়ে বাড়ি ফিরতে দেখা গেছে। 


উল্লেখ্য, সরকারি চাকরিতে কোটাব্যবস্থা সংস্কারের দাবিতে গড়ে ওঠা আন্দোলন ছড়িয়ে পড়েছে সবখানে। সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা যোগ দেয়ায় চতুর্থ দিনে আন্দোলন আরও তীব্র আকার ধারণ করেছে। বুধবারও ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন করে সাধারণ শিক্ষার্থীরা যোগ দেয় বিক্ষোভ সমাবেশে।