উচ্চপদস্থ ব্যক্তিবর্গের আত্মীয় পরিচয় দিয়ে প্রতারণা, গ্রেফতার ৩
jugantor
উচ্চপদস্থ ব্যক্তিবর্গের আত্মীয় পরিচয় দিয়ে প্রতারণা, গ্রেফতার ৩

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

১২ জুন ২০২১, ১৪:৫৫:০৭  |  অনলাইন সংস্করণ

শেখ হাবিব, শেখ ইমরান ও শারমিন আক্তার। ছবি: সংগৃহীত

রাজধানীর কাফরুল এলাকা থেকে প্রতারক চক্রের তিনজন সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়েছে। জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা সংস্থার (এনএসআই) তথ্যের ভিত্তিতে দুপুর ২টার দিকে কাফরুল থানাধীন মিরপুর-১০ এর সেনপাড়া পর্বতা এসএসআই গ্রুপের অফিসে অভিযান পরিচালনা করে র‌্যাব-৪।

এ সময় প্রতারক চক্রের মূল হোতা শেখ হাবিবুর রহমান ওরফে এসকে হাবিব (৫৮) ও তার দুই সহযোগী মো. খলিলুর রহমান (৬২) ও মো. আবু সাইদকে (৫২) গ্রেফতার করা হয়। এ ঘটনায় শুক্রবার কাফরুল থানায় একটি মামলা হয়েছে।

গ্রেফতার হাবিবের বাড়ি বরিশালে। এছাড়া গ্রেফতার অন্য দুজনের মধ্যে খলিলুরের বাড়ি মাদারীপুরে এবং আবু সাইদের বাড়ি চাঁদপুরে।

র‌্যাব জানায়, শেখ হাবিবুর রহমান দীর্ঘদিন ধরে সরকারের উচ্চপদস্থ ব্যক্তিবর্গের আত্মীয় পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন মানুষের সঙ্গে সুকৌশলে প্রতারণা করছিলেন। হাবিবসহ এই প্রতারক চক্রের সদস্যরা বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতার নাম ব্যবহার করে বিভিন্ন সময় সাধারণ মানুষের কাছে ভুয়া পরিচয় দিয়ে প্রতারণা করতেন। এই প্রতারক চক্রের মূল হোতা শেখ হাবিবুর রহমান এসএসআই কর্পোরেশন নামে একটি সংস্থা খুলে চাকরি দেওয়া, জমি উদ্ধার, ফ্ল্যাট উদ্ধারসহ যে কোনো কাজের কথা বলে সাধারণ মানুষের কাছ থেকে প্রতারণা করে বিপুল পরিমাণ টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন।

র‌্যাব সূত্র জানায়, শেখ হাবিবের ছেলে শেখ ইমরানও বাবার মতো প্রতারণার কাজে জড়িত। এদিকে এসকে হাবিবের পুত্রবধূ ও শেখ ইমরানের স্ত্রী শারমিন আক্তার এক সময় গণভবনে কর্মরত ছিলেন। শেখ ইমরানের সঙ্গে বিয়ের পর স্বেচ্ছায় চাকরি ছেড়ে দেন তিনি। পরে স্বামী ও শ্বশুরের সঙ্গে বিভিন্ন ধরনের প্রতারণার সঙ্গে শারমিনও জড়িয়ে যায়।

উচ্চপদস্থ ব্যক্তিবর্গের আত্মীয় পরিচয় দিয়ে প্রতারণা, গ্রেফতার ৩

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
১২ জুন ২০২১, ০২:৫৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
শেখ হাবিব, শেখ ইমরান ও শারমিন আক্তার। ছবি: সংগৃহীত
শেখ হাবিব, শেখ ইমরান ও শারমিন আক্তার। ছবি: সংগৃহীত

রাজধানীর কাফরুল এলাকা থেকে প্রতারক চক্রের তিনজন সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়েছে। জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা সংস্থার (এনএসআই) তথ্যের ভিত্তিতে দুপুর ২টার দিকে কাফরুল থানাধীন মিরপুর-১০ এর সেনপাড়া পর্বতা এসএসআই গ্রুপের অফিসে অভিযান পরিচালনা করে র‌্যাব-৪। 

এ সময় প্রতারক চক্রের মূল হোতা শেখ হাবিবুর রহমান ওরফে এসকে হাবিব (৫৮) ও তার দুই সহযোগী মো. খলিলুর রহমান (৬২) ও মো. আবু সাইদকে (৫২) গ্রেফতার করা হয়। এ ঘটনায় শুক্রবার কাফরুল থানায় একটি মামলা হয়েছে।  

গ্রেফতার হাবিবের বাড়ি বরিশালে। এছাড়া গ্রেফতার অন্য দুজনের মধ্যে খলিলুরের বাড়ি মাদারীপুরে এবং আবু সাইদের বাড়ি চাঁদপুরে।

র‌্যাব জানায়, শেখ হাবিবুর রহমান দীর্ঘদিন ধরে সরকারের উচ্চপদস্থ ব্যক্তিবর্গের আত্মীয় পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন মানুষের সঙ্গে সুকৌশলে প্রতারণা করছিলেন। হাবিবসহ এই প্রতারক চক্রের সদস্যরা বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতার নাম ব্যবহার করে বিভিন্ন সময় সাধারণ মানুষের কাছে ভুয়া পরিচয় দিয়ে প্রতারণা করতেন। এই প্রতারক চক্রের মূল হোতা শেখ হাবিবুর রহমান এসএসআই কর্পোরেশন নামে একটি সংস্থা খুলে চাকরি দেওয়া, জমি উদ্ধার, ফ্ল্যাট উদ্ধারসহ যে কোনো কাজের কথা বলে সাধারণ মানুষের কাছ থেকে প্রতারণা করে বিপুল পরিমাণ টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন।

র‌্যাব সূত্র জানায়, শেখ হাবিবের ছেলে শেখ ইমরানও বাবার মতো প্রতারণার কাজে জড়িত। এদিকে এসকে হাবিবের পুত্রবধূ ও শেখ ইমরানের স্ত্রী শারমিন আক্তার এক সময় গণভবনে কর্মরত ছিলেন। শেখ ইমরানের সঙ্গে বিয়ের পর স্বেচ্ছায় চাকরি ছেড়ে দেন তিনি। পরে স্বামী ও শ্বশুরের সঙ্গে বিভিন্ন ধরনের প্রতারণার সঙ্গে শারমিনও জড়িয়ে যায়।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন