ফুফাত বোনের বিয়েতে যাওয়ার পথে স্কুলছাত্র নিহত
jugantor
ফুফাত বোনের বিয়েতে যাওয়ার পথে স্কুলছাত্র নিহত

  ধামরাই (ঢাকা) প্রতিনিধি  

২২ জুলাই ২০২১, ২১:২৩:৫১  |  অনলাইন সংস্করণ

ঢাকার ধামরাইয়ে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় এক স্কুলছাত্র নিহত হয়েছে। এই ঘটনায় নিহতের দুই ভাইসহ চারজন গুরুতর আহত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার বেলা ৩টার দিকে ঢাকা-কাওয়ালীপাড়া-মির্জাপুর আঞ্চলিক মহাসড়কের জালসা বউ বাজার নামক স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত মেহেদি হাসান বাথুলী গ্রামের রতন মিয়ার ছেলে। সে সাহা বেলীশ্বর মোহিনী মোহন উচ্চবিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর ছাত্রছিল।

নিহতের স্বজনদের সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার দুপুরে মোটরসাইকেলে মেহেদি হাসান কুশুরা ইউনিয়নের গাড়াইল গ্রামে ফুফাত বোনের বিয়ের অনুষ্ঠানে যাচ্ছিল। সঙ্গে ছিল তার ছোট ভাই মাহিম হাসান ও চাচাত ভাই নাইম হাসান।

বেলা ৩টার দিকে তাদের মোটরসাইকেলটি আঞ্চলিক মহাসড়কের জালসা বউবাজার নামক স্থানে পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে আসা দ্রুত গতির একটি সিএনজির সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই মেহেদি মারা যায়।

এ সময় আহত হয় মোটরসাইকেলের অন্য দুই আরোহী মাহিম হাসান ও নাইম হাসান। এছাড়া সিএনজির যাত্রী সাটুরিয়া থানার ভাগাবাড়ী গ্রামের রতন মন্ডলের মেয়ে দূরপ্রতি মন্ডল (৩০) ও কৃষ্ণমন্ডলের ছেলে পরান মন্ডলও (৩৮)আহত হয়।

স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, আহতদের কয়েকজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

কাওয়ালীপাড়া বাজার তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ নিহত মেহেদি হাসানের লাশ উদ্ধার করে। এ ব্যাপারে সড়ক দুর্ঘটনা আইনে একটি মামলা দায়ের হয়েছে।

ফুফাত বোনের বিয়েতে যাওয়ার পথে স্কুলছাত্র নিহত

 ধামরাই (ঢাকা) প্রতিনিধি 
২২ জুলাই ২০২১, ০৯:২৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ঢাকার ধামরাইয়ে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় এক স্কুলছাত্র নিহত হয়েছে। এই ঘটনায় নিহতের দুই ভাইসহ চারজন গুরুতর আহত হয়েছে। 

বৃহস্পতিবার বেলা ৩টার দিকে ঢাকা-কাওয়ালীপাড়া-মির্জাপুর আঞ্চলিক মহাসড়কের জালসা বউ বাজার নামক স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে।
  
নিহত মেহেদি হাসান বাথুলী গ্রামের রতন মিয়ার ছেলে। সে সাহা বেলীশ্বর মোহিনী মোহন উচ্চবিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর ছাত্র ছিল। 

নিহতের স্বজনদের সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার দুপুরে মোটরসাইকেলে মেহেদি হাসান কুশুরা ইউনিয়নের গাড়াইল গ্রামে ফুফাত বোনের বিয়ের অনুষ্ঠানে যাচ্ছিল। সঙ্গে ছিল তার ছোট ভাই মাহিম হাসান ও চাচাত ভাই নাইম হাসান।

বেলা ৩টার দিকে তাদের মোটরসাইকেলটি আঞ্চলিক মহাসড়কের জালসা বউবাজার নামক স্থানে পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে আসা দ্রুত গতির একটি সিএনজির সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই মেহেদি মারা যায়। 

এ সময় আহত হয় মোটরসাইকেলের অন্য দুই আরোহী মাহিম হাসান ও নাইম হাসান। এছাড়া  সিএনজির যাত্রী সাটুরিয়া থানার ভাগাবাড়ী গ্রামের রতন মন্ডলের মেয়ে দূরপ্রতি মন্ডল (৩০) ও কৃষ্ণমন্ডলের ছেলে পরান মন্ডলও (৩৮)আহত হয়।

স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, আহতদের কয়েকজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। 

কাওয়ালীপাড়া বাজার তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ নিহত মেহেদি হাসানের লাশ উদ্ধার করে। এ ব্যাপারে সড়ক দুর্ঘটনা আইনে একটি মামলা দায়ের হয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : সড়কে মৃত্যুর মিছিল

১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২১