মেট্রোরেলের চোরাই চক্রের ৫ সদস্য গ্রেফতার, যুগান্তরের প্রশংসায় পুলিশ
jugantor
মেট্রোরেলের চোরাই চক্রের ৫ সদস্য গ্রেফতার, যুগান্তরের প্রশংসায় পুলিশ

  আফজাল হোসেন, মিরপুর  

১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৮:২১:২৪  |  অনলাইন সংস্করণ

রাজধানীর পল্লবীতে মেট্রোরেলের চুরি হওয়া মালামালসহ ৫ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এ সময় মেট্রোরেলের প্রকল্পে ব্যবহৃত ১৪০০ কেজি নির্মাণসামগ্রী উদ্ধার করা হয়েছে।

এ ঘটনায় গতকাল (বৃহস্পতিবার) দুপুরে পল্লবী থানায় একটি মামলা করা হয়। মামলার আসামিরা হলেন- দেলোয়ার, দুলাল, হাসমত, রবিন ও আনোয়ার।

গত ১৮ আগস্ট যুগান্তরে ‘দেখার যেন কেউ নেই, দিন দুপুরেই খোয়া যাচ্ছে মেট্রোরেলের নির্মাণসামগ্রী’ শিরোনামে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়। প্রতিবেদন প্রকাশের পর টনক নড়ে মেট্রোরেল কর্তৃপক্ষ ও স্থানীয় প্রশাসনের। প্রতিবেদনের পরের দিনই ডিএমপি কমিশনারের পক্ষ থেকে মেট্রোরেলের মালামাল পাহারা দেওয়ার জন্য আলাদা ফোর্স দেওয়া হয়। শুক্রবার দুপুরে পল্লবী থানায় এক সংবাদ সম্মেলনে মিরপুরের এডিসি আরিফুল ইসলাম উপস্থিত সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, মেট্রোরেল কর্তৃপক্ষের অভিযোগের ভিত্তিতে পল্লবীর সিরামিক রোড এলাকা থেকে দুলাল নামে এক আসামিকে গ্রেফতার করা হয়। তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে এই চক্রের প্রধান দেলোয়ার হোসেনসহ বাকি আসামিদের গ্রেফতার করা হয়।

অভিযান পরিচালনাকারী ও পল্লবী থানার এসআই সজিব খান বলেন, কিছুদিন আগে যুগান্তরে মেট্রোরেলের নির্মাণসামগ্রী চুরির ঘটনা নিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ হয়। প্রতিবেদনে একটি চোরাই চক্রের কথা বলা হয়। আমরা ভয়ঙ্কর এ চক্রটিকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়েছি। যুগান্তরকে অনুসন্ধানী প্রতিবেদনটি করার জন্য ধন্যবাদ।

মেট্রোরেলের চোরাই চক্রের ৫ সদস্য গ্রেফতার, যুগান্তরের প্রশংসায় পুলিশ

 আফজাল হোসেন, মিরপুর 
১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৬:২১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

রাজধানীর পল্লবীতে মেট্রোরেলের চুরি হওয়া মালামালসহ ৫ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এ সময় মেট্রোরেলের প্রকল্পে ব্যবহৃত ১৪০০ কেজি নির্মাণসামগ্রী উদ্ধার করা হয়েছে।

এ ঘটনায় গতকাল (বৃহস্পতিবার) দুপুরে পল্লবী থানায় একটি মামলা করা হয়। মামলার আসামিরা হলেন- দেলোয়ার, দুলাল, হাসমত, রবিন ও আনোয়ার। 

গত ১৮ আগস্ট যুগান্তরে ‘দেখার যেন কেউ নেই, দিন দুপুরেই খোয়া যাচ্ছে মেট্রোরেলের নির্মাণসামগ্রী’ শিরোনামে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়। প্রতিবেদন প্রকাশের পর টনক নড়ে মেট্রোরেল কর্তৃপক্ষ ও স্থানীয় প্রশাসনের।  প্রতিবেদনের পরের দিনই ডিএমপি কমিশনারের পক্ষ থেকে মেট্রোরেলের মালামাল পাহারা দেওয়ার জন্য আলাদা ফোর্স   দেওয়া হয়।  শুক্রবার দুপুরে পল্লবী থানায় এক সংবাদ সম্মেলনে মিরপুরের এডিসি আরিফুল ইসলাম উপস্থিত সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান। 

তিনি বলেন, মেট্রোরেল কর্তৃপক্ষের অভিযোগের ভিত্তিতে পল্লবীর সিরামিক রোড এলাকা থেকে দুলাল নামে এক আসামিকে গ্রেফতার করা হয়। তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে এই চক্রের প্রধান দেলোয়ার হোসেনসহ বাকি আসামিদের গ্রেফতার করা হয়। 

অভিযান পরিচালনাকারী ও পল্লবী থানার এসআই সজিব খান বলেন, কিছুদিন আগে যুগান্তরে মেট্রোরেলের নির্মাণসামগ্রী চুরির ঘটনা নিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ হয়। প্রতিবেদনে একটি চোরাই চক্রের কথা বলা হয়।  আমরা ভয়ঙ্কর এ চক্রটিকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়েছি। যুগান্তরকে অনুসন্ধানী প্রতিবেদনটি করার জন্য ধন্যবাদ। 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন