গুলশান-বারিধারায় গাড়ি নিয়ে ঢুকলে ট্যাক্স দিতে হবে: মেয়র আতিক
jugantor
গুলশান-বারিধারায় গাড়ি নিয়ে ঢুকলে ট্যাক্স দিতে হবে: মেয়র আতিক

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৮:৫১:৫৩  |  অনলাইন সংস্করণ

গুলশান এলাকায় গাড়ি

রাজধানীর গুলশান-বারিধারার মতো অভিজাত এলাকায় গাড়ি নিয়ে ঢুকলে বাড়িতি ট্যাক্স দিতে হবে বলে জানিয়েছেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলাম। তিনি বলেন, গাড়ির সংখ্যা অনেক বেড়েছে। গুলশান-১ থেকে গুলশান-২ নম্বর, কাকলি থেকে গুলশান কিংবা বারিধারা, শুধু গাড়ি আর গাড়ি।

বিশ্ব ব্যক্তিগত গাড়িমুক্ত দিবস উপলক্ষে শনিবার সকালে রাজধানীর মালিবাগ-খিলগাঁও এলাকায় আয়োজিত পদযাত্রায় মেয়র এ ঘোষণা দেন। ‘গণপরিবহণ ও হেঁটে চলি, ব্যক্তিগত গাড়ি সীমিত করি’ প্রতিপাদ্যে ঢাকা পরিবহণ সমন্বয় কর্তৃপক্ষ (ডিটিসিএ) এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

তিনি বলেন, একেকটি পরিবারের মা-বাবা, ছেলে-মেয়ে—প্রত্যেকের গাড়ি আছে। গাড়ির ভিড়ে যানজট হচ্ছে, মানুষ গালিগালাজ করছে। কিন্তু কেন এত ভিড় হচ্ছে, এ নিয়ে কেউ ভাবছেন না।

‘রাস্তায় গাড়ির সংখ্যা বেড়ে গেছে। এ কারণে যানজট হচ্ছে। তাই পরিকল্পনা হয়েছে, অভিজাত এলাকার সড়কে গাড়ি নিয়ে ঢুকলে ট্যাক্স দিতে হবে।’

মেয়র বলেন, ফুটপাত তৈরির পরের দিনই তা দখল হয়ে যাচ্ছে। ফুটপাতে ব্যবসা হচ্ছে। এই দখলের নেপথ্যে সবাই জড়িত জানিয়ে তিনি বলেন, ফুটপাত দখলের বিষয়ে থানা-পুলিশকে বললে পুলিশ বলে, তারা করে না। রাজনৈতিক নেতা ও কাউন্সিলর সেখানে জড়িত। কাউন্সিলরকে বললে তারা বলেন, সেখানে পুলিশ জড়িত। একধরনের চক্রাকার খেলা চলছে।

গুলশান-বারিধারায় গাড়ি নিয়ে ঢুকলে ট্যাক্স দিতে হবে: মেয়র আতিক

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৬:৫১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
গুলশান এলাকায় গাড়ি
ছবি: সংগৃহীত

রাজধানীর গুলশান-বারিধারার মতো অভিজাত এলাকায় গাড়ি নিয়ে ঢুকলে বাড়িতি ট্যাক্স দিতে হবে বলে জানিয়েছেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলাম। তিনি বলেন, গাড়ির সংখ্যা অনেক বেড়েছে। গুলশান-১ থেকে গুলশান-২ নম্বর, কাকলি থেকে গুলশান কিংবা বারিধারা, শুধু গাড়ি আর গাড়ি। 

বিশ্ব ব্যক্তিগত গাড়িমুক্ত দিবস উপলক্ষে শনিবার সকালে রাজধানীর মালিবাগ-খিলগাঁও এলাকায় আয়োজিত পদযাত্রায় মেয়র এ ঘোষণা দেন। ‘গণপরিবহণ ও হেঁটে চলি, ব্যক্তিগত গাড়ি সীমিত করি’ প্রতিপাদ্যে ঢাকা পরিবহণ সমন্বয় কর্তৃপক্ষ (ডিটিসিএ) এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

তিনি বলেন, একেকটি পরিবারের মা-বাবা, ছেলে-মেয়ে—প্রত্যেকের গাড়ি আছে। গাড়ির ভিড়ে যানজট হচ্ছে, মানুষ গালিগালাজ করছে। কিন্তু কেন এত ভিড় হচ্ছে, এ নিয়ে কেউ ভাবছেন না।

‘রাস্তায় গাড়ির সংখ্যা বেড়ে গেছে। এ কারণে যানজট হচ্ছে। তাই পরিকল্পনা হয়েছে, অভিজাত এলাকার সড়কে গাড়ি নিয়ে ঢুকলে ট্যাক্স দিতে হবে।’ 

মেয়র বলেন, ফুটপাত তৈরির পরের দিনই তা দখল হয়ে যাচ্ছে। ফুটপাতে ব্যবসা হচ্ছে। এই দখলের নেপথ্যে সবাই জড়িত জানিয়ে তিনি বলেন, ফুটপাত দখলের বিষয়ে থানা-পুলিশকে বললে পুলিশ বলে, তারা করে না। রাজনৈতিক নেতা ও কাউন্সিলর সেখানে জড়িত। কাউন্সিলরকে বললে তারা বলেন, সেখানে পুলিশ জড়িত। একধরনের চক্রাকার খেলা চলছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন