কিউকম গ্রাহকদের স্বার্থ রক্ষায় ৪ দফা দাবি
jugantor
কিউকম গ্রাহকদের স্বার্থ রক্ষায় ৪ দফা দাবি

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

১৩ অক্টোবর ২০২১, ১৫:৩৬:১৪  |  অনলাইন সংস্করণ

কিউকম গ্রাহকদের স্বার্থ রক্ষায় ৪ দফা দাবি

অনলাইনভিত্তিক ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ‘কিউকম’ আইন কাঠামোর মাধ্যমে ব্যবসা পরিচালনা করতে চার দফা দাবি জানিয়েছে।

বুধবার কিউকম কাস্টমারস অ্যাসোসিয়েশনের ব্যানারে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে আয়োজিত মানববন্ধনে এ দাবি জানানো হয়।

তাদের দাবি— ফস্টারকে বাংলাদেশ ব্যাংক তাদের নজরে রেখে গ্রাহকের টাকা ফেরত দেওয়ার জন্য অনুমতি দেওয়া হোক। এ ছাড়া ফস্টারে স্কো সিস্টেমে কিউকম গ্রাহকদের আটকানো টাকা সাত দিনের মধ্যে ফিরিয়ে দেওয়াসহ ফস্টারের সিস্টেম অটোমেশন করতে হবে।

মানববন্ধনে খুলনা থেকে আগত রিসালাত হোসেন জানান, সামজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকের মাধ্যমে কিউকমের লোভনীয় ডিসকাউন্ট দেখে পরিবারের সবাইকে রাজি করিয়ে প্রায় সাত লাখ টাকায় ছয়টি মোটরসাইকেল অর্ডার করেছিলেন। এখন অনিশ্চয়তার মধ্যে আছেন মোটরসাইকেল না পাওয়ায়। তার দাবি, সরকার দ্রুত এর সমাধান করবে।

আরেক কিউকম গ্রাহক জাকির হোসেন বলেন, সরকার স্কো সিস্টেম চালু করেছিল বলেই, সরকারের ওপর আস্থা রেখে একটি বাইক অর্ডার দিয়েছিলাম। এখন কিউকমকে আইনের আওতায় রেখে ভোক্তাদের তাদের পণ্য বুঝিয়ে দেওয়ার সুযোগ দেওয়ার দাবি জানান তিনি।

মানববন্ধনে কিউকম গ্রাহকদের সঙ্গে আরও উপস্থিত ছিলেন কিউকম কাস্টমারস অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি জেসি আলম হৃদয়, সাধারণ সম্পাদক আলামিন আহমেদ প্রমুখ।

কিউকম গ্রাহকদের স্বার্থ রক্ষায় ৪ দফা দাবি

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
১৩ অক্টোবর ২০২১, ০৩:৩৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
কিউকম গ্রাহকদের স্বার্থ রক্ষায় ৪ দফা দাবি
ছবি: সংগৃহীত

অনলাইনভিত্তিক ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ‘কিউকম’ আইন কাঠামোর মাধ্যমে ব্যবসা পরিচালনা করতে চার দফা দাবি জানিয়েছে।

বুধবার কিউকম কাস্টমারস অ্যাসোসিয়েশনের ব্যানারে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে আয়োজিত মানববন্ধনে এ দাবি জানানো হয়।

তাদের দাবি— ফস্টারকে বাংলাদেশ ব্যাংক তাদের নজরে রেখে গ্রাহকের টাকা ফেরত দেওয়ার জন্য অনুমতি দেওয়া হোক। এ ছাড়া ফস্টারে স্কো সিস্টেমে কিউকম গ্রাহকদের আটকানো টাকা সাত দিনের মধ্যে ফিরিয়ে দেওয়াসহ ফস্টারের সিস্টেম অটোমেশন করতে হবে।

মানববন্ধনে খুলনা থেকে আগত রিসালাত হোসেন জানান, সামজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকের মাধ্যমে কিউকমের লোভনীয় ডিসকাউন্ট দেখে পরিবারের সবাইকে রাজি করিয়ে প্রায় সাত লাখ টাকায় ছয়টি মোটরসাইকেল অর্ডার করেছিলেন। এখন অনিশ্চয়তার মধ্যে আছেন মোটরসাইকেল না পাওয়ায়। তার দাবি, সরকার দ্রুত এর সমাধান করবে।

আরেক কিউকম গ্রাহক জাকির হোসেন বলেন, সরকার স্কো সিস্টেম চালু করেছিল বলেই, সরকারের ওপর আস্থা রেখে একটি বাইক অর্ডার দিয়েছিলাম। এখন কিউকমকে আইনের আওতায় রেখে ভোক্তাদের তাদের পণ্য বুঝিয়ে দেওয়ার সুযোগ দেওয়ার দাবি জানান তিনি। 

মানববন্ধনে কিউকম গ্রাহকদের সঙ্গে আরও উপস্থিত ছিলেন কিউকম কাস্টমারস অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি জেসি আলম হৃদয়, সাধারণ সম্পাদক আলামিন আহমেদ প্রমুখ।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন