শিক্ষার্থীকে চাপা দেওয়া বাসচালকের সহকারী গ্রেফতার
jugantor
শিক্ষার্থীকে চাপা দেওয়া বাসচালকের সহকারী গ্রেফতার

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

৩০ নভেম্বর ২০২১, ১৪:৪৩:০৭  |  অনলাইন সংস্করণ

শিক্ষার্থীকে বাস চাপা দেওয়া বাসচালকের সহকারী গ্রেফতার

রাজধানীর রামপুরায় সোমবার রাতে বাসচাপায় শিক্ষার্থী নিহতের ঘটনায় চালকের সহকারীকে গ্রেফতার করেছে র্যাব।

মঙ্গলবার ভোরে ঢাকার সায়েদাবাদ এলাকা থেকে গ্রিন অনাবিল পরিবহণের সহকারী চান মিয়াকে গ্রেফতার করা হয়। র্যা ব সদর দপ্তরের সহকারী পরিচালক ইমরান খান এ তথ্য জানান।

রামপুরায় অনাবিল পরিবহণের একটি বাসচাপায় এসএসসি শিক্ষার্থী মাঈনুদ্দিন (১৭) নিহত হন। সোমবার রাত ১১টার দিকে রামপুরা বাজার ও টিভি সেন্টারের মাঝামাঝি সোনালী ব্যাংকের সামনে ডিআইটি রোডে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার পর ১২টি বাসে ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ করেছেন বিক্ষুব্ধরা। বিক্ষুব্ধদের গণপিটুনিতে বাসচালক জ্ঞান হারান। তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

নিহত মাঈনুদ্দিন একরামুন্নেছা স্কুলের এসএসসি পরীক্ষার্থী ছিলেন। সোমবার রাত ১টার দিকে ঘটনাস্থল থেকে পুলিশের খিলগাঁও জোনের অতিরিক্ত উপকমিশনার নুরুল আমিন যুগান্তরকে জানান, যিনি মারা গেছেন তিনি পথচারী ছিলেন। নিহত কিশোর ছাত্র কিনা তা যাচাই করে দেখা হচ্ছে। রাস্তা পার হওয়ার সময় দুর্ঘটনাটি ঘটে বলে তিনি জানান। তিনি আরও জানান, কিশোর মাঈনুদ্দিনকে চাপা দেওয়া বাসের চালক গণপিটুনির শিকার হয়েছেন। তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

রামপুরা থানার ওসি রফিকুল ইসলাম জানান, দুর্ঘটনার পর স্থানীয়রা বাসচালককে আটক করে মারধর করে। একপর্যায়ে চালক জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন।

শিক্ষার্থীকে চাপা দেওয়া বাসচালকের সহকারী গ্রেফতার

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
৩০ নভেম্বর ২০২১, ০২:৪৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
শিক্ষার্থীকে বাস চাপা দেওয়া বাসচালকের সহকারী গ্রেফতার
ছবি: সংগৃহীত

রাজধানীর রামপুরায় সোমবার রাতে বাসচাপায় শিক্ষার্থী নিহতের ঘটনায় চালকের সহকারীকে গ্রেফতার করেছে র্যাব।

মঙ্গলবার ভোরে ঢাকার সায়েদাবাদ এলাকা থেকে গ্রিন অনাবিল পরিবহণের সহকারী চান মিয়াকে গ্রেফতার করা হয়। র্যা ব সদর দপ্তরের সহকারী পরিচালক ইমরান খান এ তথ্য জানান।

রামপুরায় অনাবিল পরিবহণের একটি বাসচাপায় এসএসসি শিক্ষার্থী মাঈনুদ্দিন (১৭) নিহত হন।  সোমবার রাত ১১টার দিকে রামপুরা বাজার ও টিভি সেন্টারের মাঝামাঝি সোনালী ব্যাংকের সামনে ডিআইটি রোডে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার পর ১২টি বাসে ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ করেছেন বিক্ষুব্ধরা। বিক্ষুব্ধদের গণপিটুনিতে বাসচালক জ্ঞান হারান। তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

নিহত মাঈনুদ্দিন একরামুন্নেছা স্কুলের এসএসসি পরীক্ষার্থী ছিলেন। সোমবার রাত ১টার দিকে ঘটনাস্থল থেকে পুলিশের খিলগাঁও জোনের অতিরিক্ত উপকমিশনার নুরুল আমিন যুগান্তরকে জানান, যিনি মারা গেছেন তিনি পথচারী ছিলেন। নিহত কিশোর ছাত্র কিনা তা যাচাই করে দেখা হচ্ছে। রাস্তা পার হওয়ার সময় দুর্ঘটনাটি ঘটে বলে তিনি জানান। তিনি আরও জানান, কিশোর মাঈনুদ্দিনকে চাপা দেওয়া বাসের চালক গণপিটুনির শিকার হয়েছেন। তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

রামপুরা থানার ওসি রফিকুল ইসলাম জানান, দুর্ঘটনার পর স্থানীয়রা বাসচালককে আটক করে মারধর করে। একপর্যায়ে চালক জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন।   
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন