বসুন্ধরায় নবাব ডাইনের যাত্রা শুরু
jugantor
বসুন্ধরায় নবাব ডাইনের যাত্রা শুরু

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

০৬ ডিসেম্বর ২০২১, ১৬:৫৪:১৪  |  অনলাইন সংস্করণ

নবাবী খাবারের স্বাদ নিয়ে রাজধানীর বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায় (লতিফ ম্যানশন) যাত্রা শুরু করেছে নবাব ডাইন রেস্টুরেন্ট।

এ রেস্টুরেন্টে নবাবী কাচ্চি, বাসমতি কাচ্চি, মুরগির রোস্ট, খাসি-গরুর রেজালা, কাবাব, বাদাম শরবত, ফিরনি, জদ্দা ও কোমল পানীয় পাওয়া যাবে। এছাড়াও ছাত্রদের জন্য সুলভ মূল্যে স্পেশাল কাচ্চি ও রোস্ট পোলাও পাওয়া যাবে।

সোমবার দুপুরে কেক ও ফিতা কেটে নবাব ডাইনের উদ্বোধন করেন যমুনা গ্রুপের চেয়ারম্যান ও সাবেক মহিলা, শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট সালমা ইসলাম এমপি।

এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন গাজী টেলিভিশনের এডিটর ইন চিফ সৈয়দ ইশতিয়াক রেজা এবং টিভি টুডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মনজুরুল আহসান বুলবুল।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সালমা ইসলাম বলেন, নবাবদের ঐতিহ্যবাহী খাবার নিয়ে আজ নবাব ডাইন যাত্রা শুরু করলো। আশা করছি, নবাবীদের ঐতিহ্যের কথা মাথায় রেখে নবাবরা যে গুণগত মান সম্পন্ন টাটকা খাবার খেত তেমন খাবারই তারা পরিবেশন করবে, পচা-বাসি খাবার থেকে দূরে থাকবে। এটা করতে পারলে অল্প দিনেই নবাব ডাইন সারা দেশে তাদের শাখা বিস্তৃত করতে পারবে।

রেস্টুরেন্টের মালিক এমএম সেকেন্দার বলেন, খাবারে নবাবীদের ঐতিহ্য ও ব্যক্তিত্ব ধরে রাখতে নবাব ডাইন সর্বাত্মক চেষ্টা করবে। কখনোই আমরা কোয়ালিটির সঙ্গে কম্প্রোমাইজ করব না।

বসুন্ধরায় নবাব ডাইনের যাত্রা শুরু

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
০৬ ডিসেম্বর ২০২১, ০৪:৫৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

নবাবী খাবারের স্বাদ নিয়ে রাজধানীর বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায় (লতিফ ম্যানশন) যাত্রা শুরু করেছে নবাব ডাইন রেস্টুরেন্ট। 

এ রেস্টুরেন্টে নবাবী কাচ্চি, বাসমতি কাচ্চি, মুরগির রোস্ট, খাসি-গরুর রেজালা, কাবাব, বাদাম শরবত, ফিরনি, জদ্দা ও কোমল পানীয় পাওয়া যাবে। এছাড়াও ছাত্রদের জন্য সুলভ মূল্যে স্পেশাল কাচ্চি ও রোস্ট পোলাও পাওয়া যাবে।

সোমবার দুপুরে কেক ও ফিতা কেটে নবাব ডাইনের উদ্বোধন করেন যমুনা গ্রুপের চেয়ারম্যান ও সাবেক মহিলা, শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট সালমা ইসলাম এমপি। 

এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন গাজী টেলিভিশনের এডিটর ইন চিফ সৈয়দ ইশতিয়াক রেজা এবং টিভি টুডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মনজুরুল আহসান বুলবুল।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সালমা ইসলাম বলেন, নবাবদের ঐতিহ্যবাহী খাবার নিয়ে আজ নবাব ডাইন যাত্রা শুরু করলো। আশা করছি, নবাবীদের ঐতিহ্যের কথা মাথায় রেখে নবাবরা যে গুণগত মান সম্পন্ন টাটকা খাবার খেত তেমন খাবারই তারা পরিবেশন করবে, পচা-বাসি খাবার থেকে দূরে থাকবে। এটা করতে পারলে অল্প দিনেই নবাব ডাইন সারা দেশে তাদের শাখা বিস্তৃত করতে পারবে।

রেস্টুরেন্টের মালিক এমএম সেকেন্দার বলেন, খাবারে নবাবীদের ঐতিহ্য ও ব্যক্তিত্ব ধরে রাখতে নবাব ডাইন সর্বাত্মক চেষ্টা করবে। কখনোই আমরা কোয়ালিটির সঙ্গে কম্প্রোমাইজ করব না।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন