উচ্ছেদ অভিযানে মেয়রকে বাধা, ২ মহিলা লীগ নেত্রী আটক
jugantor
উচ্ছেদ অভিযানে মেয়রকে বাধা, ২ মহিলা লীগ নেত্রী আটক

  মোহাম্মদপুর প্রতিনিধি  

২৩ জানুয়ারি ২০২২, ১৫:৫৬:৩২  |  অনলাইন সংস্করণ

রাজধানীর মোহাম্মদপুরের চাঁদ উদ্যান এলাকায় রামচন্দ্রপুর খালের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে গিয়ে দখলদারদের বাধার মুখে পড়েছেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) কর্মকর্তারা। এ সময় মেয়র আতিকুল ইসলাম এবং ঢাকা জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মো. শহীদুল ইসলাম ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলেন।

রোববার দুপুর পৌনে ১টায় রাজধানীর মোহাম্মদপুরের বসিলা রোডের লাউতলা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

উচ্ছেদ অভিযানের সময় বাধা দেওয়ায় চারজনকে আটক করে পুলিশ। আটক ব্যক্তিরা হলেন— ফারজানা কলি, মারুফা কাজল ও লিটনসহ আরও একজন। এই দুই নারী আওয়ামী মহিলা লীগের মোহাম্মদপুর থানা কমিটির সদস্য।

সংশ্লিষ্টরা জানান, মোহাম্মদপুরের কাটাসুর খালের অংশ বিশেষ দখল করে বালু দিয়ে ভরাট করে সেখানে ট্রাকস্ট্যান্ড ও অবৈধভাবে বহুতল ভবন তৈরি করা হয়েছে। এ সময় অবৈধভাবে দখল করা বিভিন্ন স্থাপনা উচ্ছেদের সময় আন্তঃজেলা ট্রাকচালক ইউনিয়নের একটি অফিসের দ্বিতীয় তলায় পাঞ্জেগানা একটি মসজিদ উচ্ছেদ করতে গেলে দখলদারদের রোষানলে পড়তে হয় উত্তর সিটি মেয়র ও নগর কর্মকর্তাদের। এ সময় ঘটনাস্থলে ৩৩ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর এবং ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

উচ্ছেদ শুরু করতেই স্থানীয় একদল লোক বেশ কয়েকবার বাধা দেয়। এর পর ট্রাকস্ট্যান্ড লাগোয়া পাঞ্জেগানা মসজিদটি উচ্ছেদ করতে গেলে তাদের লক্ষ্য করে ইটপাটকেল ছুড়তে শুরু করে। পরে উপস্থিত পুলিশ সদস্যরা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন।

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন, আমরা ঢাকার জলাবদ্ধতা দূর করতে সব খাল উদ্ধার করতে কাজ করছি। আজকে এখানে এসে রামচন্দ্রপুর খাল উদ্ধার করতে এসে লাউতলায় দেখলাম খালের জায়গা ভরাট করে ট্রাকস্ট্যান্ড করা হয়েছে। খালের ওপর আন্তঃজেলা ট্রাকচালক সমিতির অফিসের দ্বিতীয় তলায় একটি মসজিদ আছে। আমরা খালকে ফিরিয়ে আনতে খালের ওপর গড়ে তোলা সব অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করব।

তিনি বলেন, রাজধানীর খালগুলোকে বাঁচাতে আমাদের এ কার্যক্রম চলমান থাকবে। অবৈধভাবে খালের জায়গায় বহুতল ভবনসহ সব স্থাপনার বিরুদ্ধে আমাদের এ অভিযান অব্যাহত রাখব।

উচ্ছেদ অভিযানে বাধা দেওয়ার সময় চারজনকে আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন অঞ্চল ৫-এর আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা মোতাকাব্বির আহমেদ।

তিনি বলেন, অভিযানের একপর্যায়ে কিছু লোক বাধা দেন। তাদের অনেককে আমরা পুলিশ দিয়ে সরিয়ে দিয়েছি। নির্দেশনা অমান্য করায় দুই নারীসহ চারজনকে আটক করা হয়েছে। তাদের মোহাম্মদপুর থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এ বিষয়ে পরবর্তী সময় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

উচ্ছেদ অভিযানে মেয়রকে বাধা, ২ মহিলা লীগ নেত্রী আটক

 মোহাম্মদপুর প্রতিনিধি 
২৩ জানুয়ারি ২০২২, ০৩:৫৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

রাজধানীর মোহাম্মদপুরের চাঁদ উদ্যান এলাকায় রামচন্দ্রপুর খালের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে গিয়ে দখলদারদের বাধার মুখে পড়েছেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) কর্মকর্তারা। এ সময় মেয়র আতিকুল ইসলাম এবং ঢাকা জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মো. শহীদুল ইসলাম ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলেন।

রোববার দুপুর পৌনে ১টায় রাজধানীর মোহাম্মদপুরের বসিলা রোডের লাউতলা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। 

উচ্ছেদ অভিযানের সময় বাধা দেওয়ায় চারজনকে আটক করে পুলিশ। আটক ব্যক্তিরা হলেন— ফারজানা কলি, মারুফা কাজল ও লিটনসহ আরও একজন। এই দুই নারী আওয়ামী মহিলা লীগের মোহাম্মদপুর থানা কমিটির সদস্য। 

সংশ্লিষ্টরা জানান, মোহাম্মদপুরের কাটাসুর খালের অংশ বিশেষ দখল করে বালু দিয়ে ভরাট করে সেখানে ট্রাকস্ট্যান্ড ও অবৈধভাবে বহুতল ভবন তৈরি করা হয়েছে। এ সময় অবৈধভাবে দখল করা বিভিন্ন স্থাপনা উচ্ছেদের সময় আন্তঃজেলা ট্রাকচালক ইউনিয়নের একটি অফিসের দ্বিতীয় তলায় পাঞ্জেগানা একটি মসজিদ উচ্ছেদ করতে গেলে দখলদারদের রোষানলে পড়তে হয় উত্তর সিটি মেয়র ও নগর কর্মকর্তাদের। এ সময় ঘটনাস্থলে ৩৩ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর এবং ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

উচ্ছেদ শুরু করতেই স্থানীয় একদল লোক বেশ কয়েকবার বাধা দেয়। এর পর ট্রাকস্ট্যান্ড লাগোয়া পাঞ্জেগানা মসজিদটি উচ্ছেদ করতে গেলে তাদের লক্ষ্য করে ইটপাটকেল ছুড়তে শুরু করে। পরে উপস্থিত পুলিশ সদস্যরা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। 

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন, আমরা ঢাকার জলাবদ্ধতা দূর করতে সব খাল উদ্ধার করতে কাজ করছি। আজকে এখানে এসে রামচন্দ্রপুর খাল উদ্ধার করতে এসে লাউতলায় দেখলাম খালের জায়গা ভরাট করে ট্রাকস্ট্যান্ড করা হয়েছে। খালের ওপর আন্তঃজেলা ট্রাকচালক সমিতির অফিসের দ্বিতীয় তলায় একটি মসজিদ আছে। আমরা খালকে ফিরিয়ে আনতে খালের ওপর গড়ে তোলা সব অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করব। 

তিনি বলেন, রাজধানীর খালগুলোকে বাঁচাতে আমাদের এ কার্যক্রম চলমান থাকবে। অবৈধভাবে খালের জায়গায় বহুতল ভবনসহ সব স্থাপনার বিরুদ্ধে আমাদের এ অভিযান অব্যাহত রাখব।

উচ্ছেদ অভিযানে বাধা দেওয়ার সময় চারজনকে আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন অঞ্চল ৫-এর আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা মোতাকাব্বির আহমেদ। 

তিনি বলেন, অভিযানের একপর্যায়ে কিছু লোক বাধা দেন। তাদের অনেককে আমরা পুলিশ দিয়ে সরিয়ে দিয়েছি। নির্দেশনা অমান্য করায় দুই নারীসহ চারজনকে আটক করা হয়েছে। তাদের মোহাম্মদপুর থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এ বিষয়ে পরবর্তী সময় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন