ভাঙাড়ির দোকানে বিস্ফোরণে আরও একজনের মৃত্যু
jugantor
ভাঙাড়ির দোকানে বিস্ফোরণে আরও একজনের মৃত্যু

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

০৮ আগস্ট ২০২২, ১৩:১১:২১  |  অনলাইন সংস্করণ

রাজধানীর উত্তরার কামারপাড়া এলাকার একটি ভাঙাড়ির দোকানে শনিবার বিস্ফোরণে দগ্ধদের মধ্যে মিজানুর রহমান (৩৫) নামে আরও একজনের মৃত্যু হয়েছে।

রোববার রাত ১টার দিকে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে চিকিৎসাধীন মারা যান তিনি। এ নিয়ে ওই বিস্ফোরণের ঘটনায় চারজনের মৃত্যু হলো।

শনিবার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন মারা যান দগ্ধ তিনজন। তারা হলেন—নূর হোসেন (৬০), গাজী মাজহারুল ইসলাম (৪৭) ও আলমগীর হোসেন আলম (২৩)।

মিজানুরের শরীর ৯৫ শতাংশ পুড়ে গিয়েছিল বলে জানিয়েছেন শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের আবাসিক চিকিৎসক এসএম আইউব হোসেন। দগ্ধ বাকি চারজনের অবস্থাও আশঙ্কাজনক বলে জানান তিনি।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক বাচ্চু মিয়া বলেন, মৃতদেহটি মর্গে রাখা হয়েছে।

এদিকে হাসপাতাল সূত্র জানায়, নিহত মিজানুর রহমানের বাড়ি নীলফামারী জেলার জলঢাকা উপজেলার কৈমারী গ্রামে। চার ভাইবোনের মধ্যে মিজানুর ছিলেন বড়। তার আট বছরের এক সন্তান রয়েছে। তার স্ত্রী জহিরুন বেগম সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বা।

ভাঙাড়ির দোকানে বিস্ফোরণে আরও একজনের মৃত্যু

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
০৮ আগস্ট ২০২২, ০১:১১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

রাজধানীর উত্তরার কামারপাড়া এলাকার একটি ভাঙাড়ির দোকানে শনিবার বিস্ফোরণে দগ্ধদের মধ্যে মিজানুর রহমান (৩৫) নামে আরও একজনের মৃত্যু হয়েছে।

রোববার রাত ১টার দিকে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে চিকিৎসাধীন মারা যান তিনি। এ নিয়ে ওই বিস্ফোরণের ঘটনায় চারজনের মৃত্যু হলো।

শনিবার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন মারা যান দগ্ধ তিনজন। তারা হলেন—নূর হোসেন (৬০), গাজী মাজহারুল ইসলাম (৪৭) ও আলমগীর হোসেন আলম (২৩)।

মিজানুরের শরীর ৯৫ শতাংশ পুড়ে গিয়েছিল বলে জানিয়েছেন শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের আবাসিক চিকিৎসক এসএম আইউব হোসেন। দগ্ধ বাকি চারজনের অবস্থাও আশঙ্কাজনক বলে জানান তিনি।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক বাচ্চু মিয়া বলেন, মৃতদেহটি মর্গে রাখা হয়েছে।

এদিকে হাসপাতাল সূত্র জানায়, নিহত মিজানুর রহমানের বাড়ি নীলফামারী জেলার জলঢাকা উপজেলার কৈমারী গ্রামে। চার ভাইবোনের মধ্যে মিজানুর ছিলেন বড়। তার আট বছরের এক সন্তান রয়েছে। তার স্ত্রী জহিরুন বেগম সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বা।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন