বিআরটি প্রকল্পের তথ্য সংগ্রহকালে সাংবাদিকের ওপর হামলা
jugantor
বিআরটি প্রকল্পের তথ্য সংগ্রহকালে সাংবাদিকের ওপর হামলা

  উত্তরা পশ্চিম (ঢাকা) প্রতিনিধি  

১৯ আগস্ট ২০২২, ০৪:৪৩:০১  |  অনলাইন সংস্করণ

বাস র‌্যাপিট ট্রানজিট (বিআরটি) নির্মাণ প্রকল্পে অসতর্কতার তথ্য সংগ্রহ করতে গিয়ে হামলার শিকার হয়েছেন এক সাংবাদিক।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় উত্তরার আজমপুর ফুটওভার ব্রিজের উপর এই হামলার ঘটনা ঘটে। এতে শারীরিকভাবে আঘাত করা হয়েছে বাংলাভিশনের রিপোর্টার সাদ্দাম হোসাইনকে।

হামলার শিকার সাদ্দাম হোসাইন বেসরকারি টিভি চ্যানেল বাংলাভিশনে কর্মরত রয়েছেন। পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে তার উপর অতর্কিত এই হামলার ঘটনা ঘটে।

রাতে হামলার শিকার সাংবাদিক সাদ্দাম হোসাইন যুগান্তরকে জানায়, বিআরটি প্রকল্পের গার্ডার চাপায় পাঁচজন নিহত হওয়ার বিষয়টি নিয়ে ব্রিজের উপর দাঁড়িয়ে সাধারণ মানুষের বক্তব্য নিচ্ছিলাম। এ সময় একজন স্কুল শিক্ষক বিআরটি প্রকল্পের অবহেলার প্রসঙ্গ টেনে ক্যামেরায় মতামত জানাচ্ছিল। ঠিক তখন দূর থেকে দাঁড়িয়ে কয়েকজন লোক অকথ্য ভাষায় গালাগাল করতে করতে আমার ক্যামেরাপার্সনের সঙ্গে তর্কে জড়ায়।

তিনি বলেন, বিষয়টি লক্ষ্য করে আমি এগিয়ে গিয়ে তাদের পরিচয় জানতে চাই এবং মুখ থেকে মাস্ক খুলে কথা বলতে বলি। এতেই তাদের মধ্যে একজন ক্ষিপ্ত হয়ে আমাকে ধাক্কা দেয় এবং শারীরিকভাবে আঘাত করে বসে। তখন আমি পুলিশকে ফোন দেব বলতেই তারা ভিড়ের মধ্যে দৌঁড়ে পালিয়ে যায়। বিষয়টি আমি সেখানকার থানাকে অবহিত করেছি এবং পরবর্তীতে হামলাকারীদের ছবিও থানার ওসিকে পাঠিয়েছি।

এদিকে, হামলাকারীদের পরিচয় জানতে চাইলে উত্তরা পশ্চিম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রাতে যুগান্তরকে বলেন, তাদেরকে (হামলাকারীদের) আমরা চিনি না। ভুক্তভোগী (সাদ্দাম) বিষয়টি আমাকে ফোন করে জানিয়েছে। আগামীকাল তিনি লিখিত অভিযোগ করবেন।


বিআরটি প্রকল্পের তথ্য সংগ্রহকালে সাংবাদিকের ওপর হামলা

 উত্তরা পশ্চিম (ঢাকা) প্রতিনিধি 
১৯ আগস্ট ২০২২, ০৪:৪৩ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বাস র‌্যাপিট ট্রানজিট (বিআরটি) নির্মাণ প্রকল্পে অসতর্কতার তথ্য সংগ্রহ করতে গিয়ে হামলার শিকার হয়েছেন এক সাংবাদিক। 

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় উত্তরার আজমপুর ফুটওভার ব্রিজের উপর এই হামলার ঘটনা ঘটে। এতে শারীরিকভাবে আঘাত করা হয়েছে বাংলাভিশনের রিপোর্টার সাদ্দাম হোসাইনকে।

হামলার শিকার সাদ্দাম হোসাইন বেসরকারি টিভি চ্যানেল বাংলাভিশনে কর্মরত রয়েছেন। পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে তার উপর অতর্কিত এই হামলার ঘটনা ঘটে।

রাতে হামলার শিকার সাংবাদিক সাদ্দাম হোসাইন যুগান্তরকে জানায়, বিআরটি প্রকল্পের গার্ডার চাপায় পাঁচজন নিহত হওয়ার বিষয়টি নিয়ে ব্রিজের উপর দাঁড়িয়ে সাধারণ মানুষের বক্তব্য নিচ্ছিলাম। এ সময় একজন স্কুল শিক্ষক বিআরটি প্রকল্পের অবহেলার প্রসঙ্গ টেনে ক্যামেরায় মতামত জানাচ্ছিল। ঠিক তখন দূর থেকে দাঁড়িয়ে কয়েকজন লোক অকথ্য ভাষায় গালাগাল করতে করতে আমার ক্যামেরাপার্সনের সঙ্গে তর্কে জড়ায়। 

তিনি বলেন, বিষয়টি লক্ষ্য করে আমি এগিয়ে গিয়ে তাদের পরিচয় জানতে চাই এবং মুখ থেকে মাস্ক খুলে কথা বলতে বলি। এতেই তাদের মধ্যে একজন ক্ষিপ্ত হয়ে আমাকে ধাক্কা দেয় এবং শারীরিকভাবে আঘাত করে বসে। তখন আমি পুলিশকে ফোন দেব বলতেই তারা ভিড়ের মধ্যে দৌঁড়ে পালিয়ে যায়। বিষয়টি আমি সেখানকার থানাকে অবহিত করেছি এবং পরবর্তীতে হামলাকারীদের ছবিও থানার ওসিকে পাঠিয়েছি।

এদিকে, হামলাকারীদের পরিচয় জানতে চাইলে উত্তরা পশ্চিম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রাতে যুগান্তরকে বলেন, তাদেরকে (হামলাকারীদের) আমরা চিনি না। ভুক্তভোগী (সাদ্দাম) বিষয়টি আমাকে ফোন করে জানিয়েছে। আগামীকাল তিনি লিখিত অভিযোগ করবেন।


 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন