মেডিকেল টেকনোলজিস্টকে মারধরের প্রতিবাদ বাংলাদেশ ডেন্টাল পরিষদের
jugantor
মেডিকেল টেকনোলজিস্টকে মারধরের প্রতিবাদ বাংলাদেশ ডেন্টাল পরিষদের

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

০১ অক্টোবর ২০২২, ০২:২৩:০৬  |  অনলাইন সংস্করণ

রাজধ‌ানীর শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের টেকনোলজিস্ট (ডেন্টাল) সাইফুল ইসলামের ওপর হামলার প্রতিবাদ জা‌নি‌য়ে‌ছে বাংলাদেশ ডেন্টাল পরিষদ। এ ঘটনায় সুষ্ঠু বিচারের দাবিতে শুক্রবার মহাখালীর জনস্বাস্থ্য ইন্সটিটিউটের সাম‌নে এক জরুরি প্রতিবাদ সভার আ‌য়োজন ক‌রে সং‌শ্লিষ্টরা।

প্রতিবাদ সভায় বক্তব্যকা‌লে সংগঠনের মহাসচিব লায়ন মুহাম্মদ কামাল হোসেন ব‌লেন, সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালের মতো সুনামধন্য প্রতিষ্ঠানে এমন ন্যাক্কারজনক ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই।

তিনি হুঁশিয়ারি দিয়ে ব‌লেন, আগামী ৭২ ঘণ্টার মধ্যে অভিযুক্তদের আইনের আওতায় এনে বিচার করতে হ‌বে। অন‌্যথায় সারাদেশে মানববন্ধন, প্রতিবাদ সভাসহ পরিচালকের কার্যালয় ঘেরাও কর্মসূচি গ্রহণ করা হবে।

এসময় অন‌্যান‌্যদের ম‌ধ্যে বক্তব‌্য রা‌খেন- সংগঠনের সাবেক সভাপতি মো. ওয়ালিদ হোসেন, ঢাকা মহানগর শাখা কমিটির সভাপতি রিচার্ড ডলার, সাধারণ সম্পাদক বিষ্ণু চন্দ্র দাস, সাবেক যুগ্ম মহাসচিব মিজানুর রহমান, সহ প্রচার সম্পাদক ফারুক আহমেদ প্রিন্স, আলমগীর হোসেন,নোয়াখালী জেলা শাখা কমিটির সাধারণ সম্পাদক শাহাদাত হোসেন, বিএসসি ডেন্টাল এসোসিয়েশন এর মহাসচিব মেধাবী সংগঠক উত্তম কুমারসহ কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ, ঢাকায় চাকুরীরত টেকনোলজিস্টরা, ঢাকা আইএইচটির লেকচারার জাহিদুল ইসলাম, ডিপ্লোমা ডেন্টাল ছাত্র পরিষদের সভাপতি আশরাফুল ইসলাম আকাশ, সাধারণ সম্পাদক মহিউদ্দিন জয় প্রমুখ।

প্রসঙ্গত, গত বুধবার সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ডেন্টাল বিভাগে কর্মরত মেডিকেল টেকনোলজিস্ট (ডেন্টাল) সাইফুল ইসলামকে বেধড়ক মারধর করে বিডিএস কোর্সের ইন্টার্ন চিকিৎসক ও ছাত্ররা। আহত সাইফুল বর্তমানে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নিচ্ছেন। হামলায় মাথা ও নাকসহ শরীরের বিভিন্নস্থানে গুরুতর আঘাত পেয়েছেন তি‌নি।

সাইফুল যুগান্তর‌কে ব‌লেন, হাসপাতালের ম্যাক্সিলোফেশিয়াল সার্জারি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ডা. নাসির উদ্দীনের নির্দেশে এবং ডা. বিকাশ চন্দ্র বিশ্বাসের সরাসরি মদদে ডা. নায়িম, ডা. সগির, ডা. সাফোয়ান এবং ডা. জাবেদের নেতৃত্ব বিডিএস ইন্টার্ন চিকিৎসকদের এক‌টি দল এ হামলা ক‌রে‌।এসময় ৪০ থে‌কে ৫০ জনের একটি দল কক্ষ বন্ধ ক‌রে টেকনোলজিস্ট সাইফুল‌কে মারধর করে। এ সময় তারা লাথি, কিল, ঘুষি, ও মাথায় লোহার চেয়ার দিয়ে আঘাত করেন। আঘাতে সাইফু‌লের নাক, মুখসহ শরীরের বিভিন্নস্থানে মারাত্মক রকম জখম হয়।

তিনি বলেন, অবস্থা আশঙ্কাজনক দেখে তাকে উদ্ধার করে ওই হাসপাতালের চিকিৎসকরা প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দেন। ব্যবস্থাপত্রে সিল দেওয়া হয় দুর্ঘটনায় আঘাত পেয়েছেন তিনি। বাসায় ফেরার পর তার অবস্থা আরও অবনতি হলে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য যান তিনি। এরপর ঢামেকে হাসপাতালে সিটি স্ক্যান করেন চিকিৎসকরা। রি‌পো‌র্টে দেখা হয় মাথায় রক্তক্ষরণ হয়েছে তার নাকে তিনটি সেলাই করা হয়েছে।

মেডিকেল টেকনোলজিস্টকে মারধরের প্রতিবাদ বাংলাদেশ ডেন্টাল পরিষদের

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
০১ অক্টোবর ২০২২, ০২:২৩ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

রাজধ‌ানীর শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের টেকনোলজিস্ট (ডেন্টাল) সাইফুল ইসলামের ওপর হামলার প্রতিবাদ জা‌নি‌য়ে‌ছে বাংলাদেশ ডেন্টাল পরিষদ। এ ঘটনায় সুষ্ঠু বিচারের দাবিতে শুক্রবার মহাখালীর জনস্বাস্থ্য ইন্সটিটিউটের সাম‌নে এক জরুরি প্রতিবাদ সভার আ‌য়োজন ক‌রে সং‌শ্লিষ্টরা।

প্রতিবাদ সভায় বক্তব্যকা‌লে সংগঠনের মহাসচিব লায়ন মুহাম্মদ কামাল হোসেন ব‌লেন, সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালের মতো সুনামধন্য প্রতিষ্ঠানে এমন ন্যাক্কারজনক ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই।

তিনি হুঁশিয়ারি দিয়ে ব‌লেন, আগামী ৭২ ঘণ্টার মধ্যে অভিযুক্তদের আইনের আওতায় এনে বিচার করতে হ‌বে। অন‌্যথায় সারাদেশে মানববন্ধন, প্রতিবাদ সভাসহ পরিচালকের কার্যালয় ঘেরাও কর্মসূচি গ্রহণ করা হবে। 

এসময় অন‌্যান‌্যদের ম‌ধ্যে বক্তব‌্য রা‌খেন- সংগঠনের সাবেক সভাপতি মো. ওয়ালিদ হোসেন, ঢাকা মহানগর শাখা কমিটির সভাপতি রিচার্ড ডলার, সাধারণ সম্পাদক বিষ্ণু চন্দ্র দাস, সাবেক যুগ্ম মহাসচিব মিজানুর রহমান, সহ প্রচার সম্পাদক ফারুক আহমেদ প্রিন্স, আলমগীর হোসেন,নোয়াখালী জেলা শাখা কমিটির সাধারণ সম্পাদক শাহাদাত হোসেন, বিএসসি ডেন্টাল এসোসিয়েশন এর মহাসচিব মেধাবী সংগঠক উত্তম কুমারসহ কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ, ঢাকায় চাকুরীরত টেকনোলজিস্টরা, ঢাকা আইএইচটির লেকচারার জাহিদুল ইসলাম, ডিপ্লোমা ডেন্টাল ছাত্র পরিষদের সভাপতি আশরাফুল ইসলাম আকাশ, সাধারণ সম্পাদক মহিউদ্দিন জয় প্রমুখ।

প্রসঙ্গত, গত বুধবার সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ডেন্টাল বিভাগে কর্মরত মেডিকেল টেকনোলজিস্ট (ডেন্টাল) সাইফুল ইসলামকে বেধড়ক মারধর করে বিডিএস কোর্সের ইন্টার্ন চিকিৎসক ও ছাত্ররা। আহত সাইফুল বর্তমানে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নিচ্ছেন। হামলায় মাথা ও নাকসহ শরীরের বিভিন্নস্থানে গুরুতর আঘাত পেয়েছেন তি‌নি।

সাইফুল যুগান্তর‌কে ব‌লেন, হাসপাতালের ম্যাক্সিলোফেশিয়াল সার্জারি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ডা. নাসির উদ্দীনের নির্দেশে এবং ডা. বিকাশ চন্দ্র বিশ্বাসের সরাসরি মদদে ডা. নায়িম, ডা. সগির, ডা. সাফোয়ান এবং ডা. জাবেদের নেতৃত্ব বিডিএস ইন্টার্ন চিকিৎসকদের এক‌টি দল এ হামলা ক‌রে‌। এসময় ৪০ থে‌কে ৫০ জনের একটি দল কক্ষ বন্ধ ক‌রে টেকনোলজিস্ট সাইফুল‌কে মারধর করে। এ সময় তারা  লাথি, কিল, ঘুষি, ও মাথায় লোহার চেয়ার দিয়ে আঘাত করেন। আঘাতে সাইফু‌লের  নাক, মুখসহ শরীরের বিভিন্নস্থানে মারাত্মক রকম জখম হয়।

তিনি বলেন, অবস্থা আশঙ্কাজনক দেখে তাকে উদ্ধার করে ওই হাসপাতালের চিকিৎসকরা প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দেন। ব্যবস্থাপত্রে সিল দেওয়া হয় দুর্ঘটনায় আঘাত পেয়েছেন তিনি। বাসায় ফেরার পর তার অবস্থা আরও অবনতি হলে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য যান তিনি। এরপর ঢামেকে হাসপাতালে সিটি স্ক্যান করেন চিকিৎসকরা। রি‌পো‌র্টে দেখা হয় মাথায় রক্তক্ষরণ হয়েছে তার নাকে তিনটি সেলাই করা হয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন