সরকার কারিগরি সেক্টরে বাজেট বৃদ্ধি করছে
jugantor
সরকার কারিগরি সেক্টরে বাজেট বৃদ্ধি করছে

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

০৬ ডিসেম্বর ২০২২, ২২:১৫:০২  |  অনলাইন সংস্করণ

বাংলাদেশ ডেন্টাল হেলথ সোসাইটি ১৫তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী ও জেলা প্রতিনিধি সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখছেন এমপি নজরুল ইসলাম বাবু

সরকার দক্ষ মানবসম্পদ তৈরিতে আন্তরিক। এজন্য সরকার কারিগরি সেক্টরে প্রতিনিয়তই বাজেট বৃদ্ধি করছে।

বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘরে কবি সুফিয়া কামাল মিলনায়তনে সোমবার আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে নারায়ণগঞ্জ ২ আসনের এমপি নজরুল ইসলাম বাবু এসব কথা বলেন।

বাংলাদেশ ডেন্টাল হেলথ সোসাইটি ১৫তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী ও জেলা প্রতিনিধি সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, প্রত্যন্ত অঞ্চলে সব শ্রেণির রোগীদের দন্ত চিকিৎসা সেবা নিশ্চিতে ডেন্টাল টেকনোলজিস্টদের অবদান অনুস্বীকার্য। ডেন্টাল টেকনোলজিস্ট আছে বলেই গ্রামের মানুষরা আজ সহজলভ্যে দন্ত সেবা পাচ্ছেন । বিএমডিসি ২০১০ সালের আইনে ডেন্টাল টেকনোলজিস্টদের যে অধিকারকে খর্ব করা হয়েছে, তা ফিরিয়ে পাবার জন্য আমরা চেষ্টা করবো, এবং দ্রুত সময়ের মধ্যে মহান সংসদে উত্থাপন করা হবে।

ডেন্টাল টেকনোলজিস্টদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘আপনার অভিজ্ঞতা সম্পূর্ণ দক্ষ জনবল। রাষ্ট্রের শক্তি। আপনারা পিছিয়ে থাকলে তো হবে না। আপনাদের যোগ্যতা অনুসারে পদ এবং কাজের অনুমোতি দিতে সরকারের তো আপত্তি থাকার কথা না। আমরা চেষ্টা করবো খুব দ্রুত সময়ের মধ্যে আপনাদের ন্যায্য অধিকার নিশ্চিত করতে।

বাংলাদেশ ডেন্টাল হেলথ সোসাইটির কেন্দ্রীয় সভাপতি মো. হারুন-অর-রশিদ আওরঙ্গের সভাপতিত্বে মূল বক্তব্য উপস্থাপন করেন সংগঠনের মহাসচিব মোহাম্মদ খালেদ মোছান্নাহ।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশে ডেন্টাল হেলথ সোসাইটির উপদেষ্টা এবং স্বাধীনতা দেশজ চিকিৎসক পরিষদের সভাপতি, সহাকারী অধ্যাপক ডা. আ. জ.ম দৌলত আল মামুন, আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবকলীগের ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি কামরুল ইসলাম রিপন, বোর্ড অ্যাফিলিয়েটেড সোসাইটি ফর মেডিকেল টেকনোলজি ইনস্টিটিউশন সাধারণ সম্পাদক মো. সোহরাব হোসেন, বাংলাদেশে ছাত্রলীগ তেজগাঁও থানা শাখার সাবেক সভাপতি হাজী ইঞ্জিনিয়ার হাবিবুর রহমান হাবীব ও এসপিকেএস মেডিকেল ইন্সটিটিউটের চেয়ারম্যান গৌরাঙ্গ বিশ্বাস স্বাধীন। সম্মানিত অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেনবাংলাদেশে মেডিকেল টেকনোলজি অ্যালাইসেন্সের অহবায়ক ইলিয়াস মোল্লা ইলু ও বিএমটি-এর সদস্য সচিব শামীম শাহ।

বিল্লাল হোসেনের সঞ্চালনায় আরও বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় কমিটির সিনিয়র সহসভাপতি ও কুমিল্লা অঞ্চলের সভাপতি হাজী এমডি শাহজান, খুলনা বিভাগের সভাপতি গাউসুল আজম, রাজশাহী বিভাগের সভাপতি তরিকূল ইসলাম, ময়মংসিহ বিভাগের সভাপতি মুনিম হাসান, সিলেট বিভাগের সভাপতি সিরাজুল ইসলাম রাজু, চট্টগ্রাম বিভাগের সভাপতি সফিকুল ইসলাম, বরিশাল বিভাগের সভাপতি তাজউদ্দিন, রংপুর বিভাগের আব্দুল হান্নান ও ঢাকা বিভাগের সভাপতি জসিম উদ্দিন কাজল। অনুষ্ঠানে উপস্থিত বাংলাদেশে ডেন্টাল হেল্থ সোসাইটির কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কাজী নেছার উদ্দিন ও সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. আব্দুর রহিম সহ প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, দেশের স্বাস্থ্যসেবায় ডেন্টাল প্রযুক্তিবিদদের অবদান অনুস্বীকার্য। আমাদের সদস্যরা প্রত্যন্ত গ্রাম গঞ্জে স্বল্প খরছে সব শ্রেণি মানুষদের সেবা দিয়ে আসছে। করোনা কালীন সংকটেও আমাদের সদস্য জীবনের বিনিময় সেবা অব্যাহত রেখেন। কিন্তু দুঃখের বিষয় আজ আমরা আমাদের অধিকার বঞ্চিত। আমাদের প্রত্যাশা যথাযথ কর্তৃপক্ষ খুব দ্রুত সময়ের মধ্যে আমাদের ন্যায্য অধিকার নিশ্চিতে কাজ করবেন।

সরকার কারিগরি সেক্টরে বাজেট বৃদ্ধি করছে

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
০৬ ডিসেম্বর ২০২২, ১০:১৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
বাংলাদেশ ডেন্টাল হেলথ সোসাইটি ১৫তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী ও জেলা প্রতিনিধি সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখছেন এমপি নজরুল ইসলাম বাবু
বাংলাদেশ ডেন্টাল হেলথ সোসাইটি ১৫তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী ও জেলা প্রতিনিধি সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখছেন এমপি নজরুল ইসলাম বাবু। ছবি: সংগৃহীত

 সরকার দক্ষ মানবসম্পদ তৈরিতে আন্তরিক। এজন্য সরকার কারিগরি সেক্টরে প্রতিনিয়তই বাজেট বৃদ্ধি করছে। 

বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘরে কবি সুফিয়া কামাল মিলনায়তনে সোমবার আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে নারায়ণগঞ্জ ২ আসনের এমপি নজরুল ইসলাম বাবু এসব কথা বলেন। 

বাংলাদেশ ডেন্টাল হেলথ সোসাইটি ১৫তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী ও জেলা প্রতিনিধি সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, প্রত্যন্ত অঞ্চলে সব শ্রেণির রোগীদের দন্ত চিকিৎসা সেবা নিশ্চিতে ডেন্টাল টেকনোলজিস্টদের অবদান অনুস্বীকার্য।  ডেন্টাল টেকনোলজিস্ট আছে বলেই গ্রামের মানুষরা আজ সহজলভ্যে দন্ত সেবা পাচ্ছেন ।  বিএমডিসি ২০১০ সালের আইনে ডেন্টাল টেকনোলজিস্টদের যে অধিকারকে খর্ব করা হয়েছে,  তা ফিরিয়ে পাবার জন্য আমরা চেষ্টা করবো, এবং দ্রুত সময়ের মধ্যে মহান সংসদে উত্থাপন করা হবে।

ডেন্টাল টেকনোলজিস্টদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘আপনার অভিজ্ঞতা সম্পূর্ণ দক্ষ জনবল। রাষ্ট্রের শক্তি। আপনারা পিছিয়ে থাকলে তো হবে না। আপনাদের যোগ্যতা অনুসারে পদ এবং কাজের অনুমোতি দিতে সরকারের তো আপত্তি থাকার কথা না।  আমরা চেষ্টা করবো খুব দ্রুত সময়ের মধ্যে আপনাদের ন্যায্য অধিকার নিশ্চিত করতে। 

বাংলাদেশ ডেন্টাল হেলথ সোসাইটির কেন্দ্রীয় সভাপতি মো. হারুন-অর-রশিদ  আওরঙ্গের  সভাপতিত্বে মূল বক্তব্য উপস্থাপন করেন সংগঠনের  মহাসচিব  মোহাম্মদ খালেদ মোছান্নাহ। 

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশে ডেন্টাল হেলথ সোসাইটির উপদেষ্টা এবং স্বাধীনতা দেশজ চিকিৎসক পরিষদের সভাপতি, সহাকারী অধ্যাপক ডা. আ. জ.ম দৌলত আল মামুন, আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবকলীগের ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি কামরুল ইসলাম রিপন, বোর্ড অ্যাফিলিয়েটেড সোসাইটি ফর মেডিকেল টেকনোলজি ইনস্টিটিউশন সাধারণ সম্পাদক  মো. সোহরাব হোসেন, বাংলাদেশে ছাত্রলীগ তেজগাঁও থানা শাখার সাবেক সভাপতি হাজী ইঞ্জিনিয়ার হাবিবুর রহমান হাবীব ও এসপিকেএস মেডিকেল ইন্সটিটিউটের চেয়ারম্যান গৌরাঙ্গ বিশ্বাস স্বাধীন।  সম্মানিত অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেনবাংলাদেশে মেডিকেল টেকনোলজি অ্যালাইসেন্সের অহবায়ক ইলিয়াস মোল্লা ইলু ও বিএমটি-এর সদস্য সচিব শামীম শাহ।

বিল্লাল হোসেনের সঞ্চালনায় আরও বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় কমিটির সিনিয়র সহসভাপতি ও কুমিল্লা অঞ্চলের সভাপতি  হাজী এমডি শাহজান, খুলনা বিভাগের সভাপতি গাউসুল আজম, রাজশাহী বিভাগের সভাপতি তরিকূল ইসলাম, ময়মংসিহ বিভাগের সভাপতি মুনিম হাসান, সিলেট বিভাগের সভাপতি সিরাজুল ইসলাম রাজু, চট্টগ্রাম বিভাগের সভাপতি  সফিকুল ইসলাম, বরিশাল বিভাগের সভাপতি তাজউদ্দিন, রংপুর বিভাগের আব্দুল হান্নান ও ঢাকা বিভাগের সভাপতি জসিম উদ্দিন কাজল। অনুষ্ঠানে উপস্থিত বাংলাদেশে ডেন্টাল হেল্থ সোসাইটির কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কাজী নেছার উদ্দিন ও সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. আব্দুর রহিম সহ প্রমুখ।    

বক্তারা বলেন, দেশের স্বাস্থ্যসেবায় ডেন্টাল প্রযুক্তিবিদদের অবদান অনুস্বীকার্য। আমাদের সদস্যরা প্রত্যন্ত গ্রাম গঞ্জে স্বল্প খরছে সব শ্রেণি মানুষদের সেবা দিয়ে আসছে। করোনা কালীন সংকটেও আমাদের সদস্য জীবনের বিনিময় সেবা অব্যাহত রেখেন।  কিন্তু দুঃখের বিষয় আজ আমরা আমাদের অধিকার বঞ্চিত। আমাদের প্রত্যাশা যথাযথ কর্তৃপক্ষ খুব দ্রুত সময়ের মধ্যে আমাদের ন্যায্য অধিকার নিশ্চিতে কাজ করবেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন