উত্তরায় ছাত্রদের মহাসড়ক অবরোধ, বাসে আগুন

প্রকাশ : ৩১ জুলাই ২০১৮, ১৬:৩৭ | অনলাইন সংস্করণ

  উত্তরা প্রতিনিধি

উত্তরায় বাস ভাঙচুরের পর আগুন ধরিয়ে দেয় বিক্ষুব্ধ ছাত্ররা। ছবি: যুগান্তর

উত্তরায় ছাত্র আন্দোলনে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক অবরোধ করে বিভিন্ন স্কুল-কলেজের ছাত্ররা। এ সময় অর্ধশতাধিক গাড়ি ভাঙচুর করে এবং বুশরা পরিবহনের একটি দূরপাল্লার বাসসহ দুটি বাসে আগুন ধরিয়ে দেয় বিক্ষুব্ধ ছাত্ররা।

জাবালে নূর পরিবহনের বাসের চাপায় দুই ছাত্র নিহতের ঘটনায় সকাল থেকেই উত্তরা বিএনএস সেন্টারের সামনে জড়ো হয় উত্তরার মাইলস্টোন কলেজ,উত্তরা হাইস্কুল, টঙ্গী সরকারি কলেজ, বঙ্গবন্ধু সরকারি কলেজ, উত্তরা কমার্স কলেজসহ বিভিন্ন স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীরা।

এ সময় বারবার রাস্তায় ব্যারিকেড দিতে চাইলে পুলিশি বাধায় ব্যর্থ হয়। দফায় দফায় বিএনএস সেন্টারের সামনে হাউস বিল্ডিং নর্থ টাওয়ারের সামনে এবং আইডিয়ালের সামনে তারা রাস্তা অবরোধ করতে চেষ্টা করে।

দুপুরের দিকে জসিমউদ্দিন রোড থেকে র‌্যাব-১ কার্যালয় পর্যন্ত মহাসড়কের দুই সাইড অবরোধ করে হাজার হাজার শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন গাড়িতে ভাঙচুর চালায়। এ সময় প্রায় অর্ধশতাধিক গাড়ি ভাঙচুর করে এবং বুশরা পরিবহনের একটি দূরপাল্লার বাসে আগুন ধরিয়ে দেয়।

এর পর বিকালে আরও একটি বাসে আগুন ধরিয়ে দেয় বিক্ষুব্ধ ছাত্ররা। এসময় ছাত্রদের বাধায় ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা ঘটনাস্থলে আসতে পারেনি। ফলে বাসের আগুন না নিভিয়ে তারা ফিরে যেতে বাধ্য হয়।

বিকাল ৪টায় শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত হাজার হাজার ছাত্ররা রাস্তা অবরোধ করে বিভিন্ন স্লোগান দিতে থাকে এ সময় পুলিশের পাশাপাশি র‌্যাব মোতায়েন করা হয়। এ সময় ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের দুই ধারে কয়েক কিলোমিটার যানজট তৈরি হয়।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক ছাত্র যুগান্তরকে জানান, আমাদের ভাইবোনের হত্যার বিচার চাই। আমাদের রাস্তায় ও পরিবহনে চলার নিশ্চয়তা চাই। মৃত্যুদণ্ডের আইন পাস হলেই আমরা ঘরে ফিরে যাব।