ঢাকা-ময়নসিংহ মহাসড়কে ১০ হাজার শিক্ষার্থী, শতাধিক গাড়ি ভাঙচুর

  উত্তরা প্রতিনিধি ০১ আগস্ট ২০১৮, ১৩:৫৫ | অনলাইন সংস্করণ

উত্তরায় মহাসড়কে বেরিকেড দেয় বিক্ষুব্ধ ছাত্ররা।
ছবি- যুগান্তর

জাবালে নূর পরিবহনের বাসের চাপায় দুই শিক্ষার্থী নিহতের প্রতিবাদে উত্তরায় ছাত্র আন্দোলনে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের আব্দুল্লাহপুর থেকে খিলক্ষেত পর্যন্ত অবরোধ করেছেন ১০ সহস্রাধিক শিক্ষার্থী। এ সময়ে শতাধিক গাড়িতে ভাঙচুর চালান তারা।

বুধবার সকাল থেকেই উত্তরার বিভিন্ন পয়েন্টে জড়ো হন উত্তরার এশিয়ান ইউনিভার্সিটি, শান্ত-মরিয়াম ইউনিভার্সিটি, উত্তরা ইউনিভার্সিটি, আইইউবিএটি ইউনিভার্সিটি, মাইলস্টোন কলেজ, উত্তরা হাইস্কুল, টঙ্গী সরকারি কলেজ, বঙ্গবন্ধু সরকারি কলেজ, উত্তরা কমার্স কলেজসহ অর্ধশতাধিক বিভিন্ন স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীরা।

এতে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের দুই ধারে কয়েক কিলোমিটার যানজট তৈরি হয়।

জানা যায়, ‘উই ওয়ান্ট জাস্টিস’ ‘শাহজাহান খান পদত্যাগ করো’ ‘মৃত্যুদণ্ডের আইন চাই’ লেখা প্ল্যাকার্ড নিয়ে স্লোগান দিতে থাকেন শিক্ষার্থীরা। এ সময় বারবার রাস্তায় ব্যারিকেড দিতে চাইলে পুলিশি বাধায় ব্যর্থ হন তারা।

দফায় দফায় জসিমউদ্দীন রোড, বিমানবন্দর গোলচত্বর, কাওলা ওভারব্রিজ, খিলক্ষেত, বিএনএস সেন্টারের সামনে হাউস বিল্ডিং, নর্থ টাওয়ারের সামনে এবং আইডিয়ালের সামনে শিক্ষার্থীরা রাস্তা অবরোধ করেন।

দুপুরের দিকে জসিমউদ্দীন রোড থেকে খিলক্ষেত পর্যন্ত মহাসড়কের দুই সাইট অবরোধ করে হাজার হাজার ছাত্রছাত্রী বিভিন্ন গাড়িতে ভাঙচুর চালান। এ সময় প্রায় শতাধিক গাড়ি ভাঙচুর করেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক ছাত্র যুগান্তরকে জানান, আমাদের সহপাঠীদের হত্যার বিচার চাই। আমাদের রাস্তায় ও পরিবহনে চলার নিশ্চয়তা চাই। মৃত্যুদণ্ডের আইন পাস হলেই আমরা ঘরে ফিরে যাব।বিকাল ৫টা পর্যন্ত আন্দোলন চলবে। ছাত্ররা ফিরে গেলে যান চলাচল স্বাভাবিক হবে।

উত্তরা জোনের সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার কামরুজ্জামান জানান, ঘটনাস্থলে পুলিশের পাশাপাশি কয়েকশ র‌্যাব সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে।

ঘটনাপ্রবাহ : বিমানবন্দর সড়কে দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যু

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter