•       রংপুর সিটি নির্বাচন: প্রার্থীদের হলফনামায় বিভ্রান্তিমূলক তথ্য আছে: সুজন; ইসিকে ব্যবস্থা নেয়ার পরামর্শ       প্রশ্নফাঁসের অভিযোগে নাটোর সদরের ১২৩টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রথম ও চতুর্থ শ্রেণির আজকের গণিত পরীক্ষা স্থগিত       রাজধানীর শুক্রাবাদে নির্মাণাধীন ভবন থেকে মেরিন ইঞ্জিনিয়ারের মরদেহ উদ্ধার
যুগান্তর রিপোর্ট    |    
প্রকাশ : ১৮ নভেম্বর, ২০১৭ ০০:০০:০০ প্রিন্ট
তুরাগের ফুলবাড়িয়া-নলভোগ সড়কের বেহাল দশা
সর্বত্রই খানাখন্দ, দীর্ঘ সময় জমে থাকে পানি * চরম দুর্ভোগে এলাকাবাসী

খানাখন্দ আর ময়লা আবর্জনায় ভরা রাজধানীর তুরাগ এলাকার ফুলবাড়িয়া-নলভোগ সড়ক। সামান্য বৃষ্টি হলেই সড়কটির বিভিন্ন স্থানে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়। কোনো ড্রেনেজ ব্যবস্থা না থাকায় পানি দ্রুত বেরও হতে পারে না। তাই দীর্ঘ সময় ধরে আটকে থাকে পানি। প্রায়ই খানাখন্দে গাড়ি ও রিকশা উল্টে দুর্ঘটনা ঘটে। রিকশা-অটোরিকশা, হিউম্যান হলার, সিএনজির চাকা খুলে পড়ে। এই সড়ক বাদে বিকল্প ব্যবস্থা না থাকায় এলাকার মানুষকে চলাচলে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। এলাকাটি উত্তরা মডেল টাউনের পাশে। তার পরও উন্নয়নের কোনো ছোঁয়া লাগেনি।

এলাকা ঘুরে দেখা যায়, বৃষ্টির মৌসুম শেষ হয়েছে অনেক আগে, কিন্তু এখনও সড়কের বিভিন্ন জায়গায় পানি জমে আছে। রাস্তার বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে যারা ব্যবসা করছেন, তারা ভালো নেই। রাস্তা খারাপ থাকায় তাদের ব্যবসা ভালো যাচ্ছে না। এ কারণে অনেক দোকান বন্ধ রয়েছে।

ফুলবাড়িয়া বাজারের স্টুডিও মালিক মইন আহমেদ বলেন, ‘এখানে কয়েক বছর ধরে ব্যবসা করে আসছি। কিন্তু ব্যবসা ভালো যাচ্ছে না। রাস্তা বেহাল থাকায় অধিকাংশ সময় দোকান খোলা রাখতে পারি না।’ ফার্মেসি দোকানি জয়নুল আবেদিন বলেন, ‘১৫ বছর এখানে ব্যবসা করি। এই সময়ে কখনও সড়কের অবস্থা ভালো দেখিনি।’

বৃহত্তর উত্তরা ট্রাক মালিক সমিতির সভাপতি হাজী মো. আবুল হাসেম বলেন, ‘তুরাগের ৪ নম্বর ওয়ার্ডের নলভোগ ও তারারটেক গ্রামের প্রধান রাস্তাটি দীর্ঘদিন কোনো সংস্কার করা হয়নি। রাস্তার সর্বত্র খানাখন্দে ভরা। সে কারণে রাস্তায় পানি জমে চরম জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়েছে। জলাবদ্ধতার কারণে স্থানীয় মানুষ চরম ভোগান্তির মধ্যে রয়েছেন। এই রাস্তাটি দ্রুত সংস্কার করা দরকার।’

সরেজমিন দেখা যায়, তুরাগের নলভোগ, তারারটেক, নয়ানগর, ফুলবাড়িয়া, চণ্ডালভোগ, রানাভোলা, দিয়াবাড়ি পুরো এলাকার বিভিন্ন সড়কের অবস্থাও বেহাল। দীর্ঘদিন সংস্কার না হওয়ায় এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে বলে জানান এলাকাবাসী। ফুলবাড়িয়া, নলভোগ, তারাটেক এলাকার একাধিক শিক্ষার্থী জানায়, রাস্তায় পানি জমে থাকায় তাদের চলাচলে খুবই অসুবিধা হচ্ছে। অজুহাত দেখিয়ে রিকশাওয়ালারা ২০ টাকার ভাড়া ৫০-৬০ টাকা দাবি করে। বেশির ভাগ সময় রিকশা পাওয়া যায় না। ফুলবাড়িয়া-নলভোগ সড়কের পাশে বেশ কয়েকটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান রয়েছে। রাস্তাটি খারাপ থাকায় এসব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের আসা-যাওয়ায় চরম ভোগান্তি পোহাতে হয়। আমজাদ হোসেন স্কুল অ্যান্ড কলেজের কয়েকজন শিক্ষার্থী জানায়, তাদের স্কুলের সামনে সারা বছরই জলাবদ্ধতা থাকে। তার পরও তাদের স্কুলে আসতে হয়। বৃষ্টি হলে পানি বেড়ে যায়। তখন স্কুলে যাওয়া বন্ধ হয়ে যায়।

জানতে চাইলে হরিরামপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও তুরাগ থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. আবুল হাসিম বলেন, আমার ইউনিয়ন পুরোটাই এখন ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) মধ্যে পড়েছে।। ফলে নতুন যারা এসেছেন তাদেরই রাস্তা সংস্কারের দায়িত্ব। এখানে আমার করার কিছু নেই।


 


আরো পড়ুন
  • শীর্ষ খবর
  • সর্বশেষ খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by

© ২০০০-২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত