ইউআইইউ’তে উন্নত তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তিবিষয়ক ২য় আন্তর্জাতিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত
jugantor
ইউআইইউ’তে উন্নত তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তিবিষয়ক ২য় আন্তর্জাতিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত

  সংবাদ বিজ্ঞপ্তি  

২৯ নভেম্বর ২০২০, ০১:৩০:৫০  |  অনলাইন সংস্করণ

ইউনাইটেড ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে উন্নত তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ক দ্বিতীয় আন্তর্জাতিক সম্মেলন (আইসিএআইসিটি-২০২০) শুরু হয়েছে। দুই দিনব্যাপী সম্মেলনের উদ্ধোধনী অনুষ্ঠান আজ সকালে ভার্চুয়ালি অনুষ্ঠিত হয়েছে। উদ্ধোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের মাননীয় সদস্য অধ্যাপক ড. সাজ্জাদ হোসেন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইউনাইটেড গ্রুপের সম্মানিত চেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক জনাব মাঈনুউদ্দিন হাসান রশিদ এবং বিশে^র সবচেয়ে বড় প্রকৌশল পেশাদারদের সংগঠন ইনস্টিটিউট অব ইলেকট্রিক্যাল এন্ড ইলেকট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ার্স (আইইইই) এর বাংলাদেশ সেকশনের সভাপতি অধ্যাপক ড. সেলিয়া শাহনাজ ।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ইউআইইউয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. চৌধুরী মোফিজুর রহমান, স্বাগত বক্তব্য রাখেন ইউআইইউ সিএসই ডিপার্টমেন্টের হেড অধ্যাপক ড. সালেকুল ইসলাম। অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সম্মেলনের জেনারেল চেয়ার ও বুয়েট ইইই ডিপার্টমেন্টের অধ্যাপক ড. এস. এ. ফাত্তাহ এবং টেকনিক্যাল প্রোগ্রাম কমিটির চেয়ার ও ইউআইইউ সিএসই ডিপার্টমেন্টের অধ্যাপক ড. এ. কে. এম. মুজাহিদুল ইসলাম। অনুষ্ঠানে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন ইউআইইউ স্কুল অব সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং-এর ডিন অধ্যাপক ড. রাকিবুল মোস্তফা এবং সঞ্চালনা করেন ইউআইইউ সিএসই ডিপার্টমেন্টের সহযোগী অধ্যাপক ড. স্বাক্ষর শতাব্দ।

সম্মেলনে বক্তারা জানান, এ বছর আমেরিকা, অস্ট্রেলিয়া, ইউকে, চীন, জার্মানি, জাপান, ফ্রান্স ও কোরিয়াসহ বিশ্বের ১৭ দেশ থেকে ৩৯৩টি উন্নত তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ক গবেষণা থেকে শক্তিশালী রিভিউ কমিটির বাছাইয়ের পর শতকরা ২৬% অর্থাৎ মোট ১০৩টি গবেষণা আন্তর্জাতিক সম্মেলনে উপস্থাপন এবং ওঊঊঊ ঢঢ়ষড়ৎব –এ প্রকাশনার জন্য গ্রহীত হয়েছে। সম্মেলনের সমাপনী দিনে তিনটি অধ্যক্ষ তমিজউদ্দিন আহম্মেদ বেস্ট পেপার এ্যয়ার্ড প্রদান করা হবে। এসব গবেষণা বাংলাদেশের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিকাশের পাশাপাশি শিল্প উদ্যোক্তা ও শিক্ষার্থীদের উদ্ভাবনী কাজে আসবে।

চতুর্থ শিল্প বিপ্লবকে সামনে রেখে এবং ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে প্রযুক্তিগত উন্নয়ন ও চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় উন্নত তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে ভবিষ্যত অর্থনীতি কিভাবে লাভবান হবে তা নিয়ে আলোচনা করেন বক্তারা। দুই দিনব্যাপী সম্মেলনের বিভিন্ন সেশনে ১৮টি বৈজ্ঞানিক গবেষণার ওপর দেশি-বিদেশি তথ্য প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞরা আলোচনা করবেন।

ইউআইইউ’তে উন্নত তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তিবিষয়ক ২য় আন্তর্জাতিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত

 সংবাদ বিজ্ঞপ্তি 
২৯ নভেম্বর ২০২০, ০১:৩০ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ইউনাইটেড ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে উন্নত তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ক দ্বিতীয় আন্তর্জাতিক সম্মেলন (আইসিএআইসিটি-২০২০) শুরু হয়েছে। দুই দিনব্যাপী সম্মেলনের উদ্ধোধনী অনুষ্ঠান আজ সকালে ভার্চুয়ালি অনুষ্ঠিত হয়েছে। উদ্ধোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের মাননীয় সদস্য অধ্যাপক ড. সাজ্জাদ হোসেন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইউনাইটেড গ্রুপের সম্মানিত চেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক জনাব মাঈনুউদ্দিন হাসান রশিদ এবং বিশে^র সবচেয়ে বড় প্রকৌশল পেশাদারদের সংগঠন ইনস্টিটিউট অব ইলেকট্রিক্যাল এন্ড ইলেকট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ার্স (আইইইই) এর বাংলাদেশ সেকশনের সভাপতি অধ্যাপক ড. সেলিয়া শাহনাজ ।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ইউআইইউয়ের উপাচার্য  অধ্যাপক ড. চৌধুরী মোফিজুর রহমান, স্বাগত বক্তব্য রাখেন ইউআইইউ সিএসই ডিপার্টমেন্টের হেড অধ্যাপক ড. সালেকুল ইসলাম। অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সম্মেলনের জেনারেল চেয়ার ও বুয়েট ইইই ডিপার্টমেন্টের অধ্যাপক ড. এস. এ. ফাত্তাহ এবং টেকনিক্যাল প্রোগ্রাম কমিটির চেয়ার ও ইউআইইউ সিএসই ডিপার্টমেন্টের অধ্যাপক ড. এ. কে. এম. মুজাহিদুল ইসলাম। অনুষ্ঠানে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন ইউআইইউ স্কুল অব সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং-এর ডিন অধ্যাপক ড. রাকিবুল মোস্তফা এবং সঞ্চালনা করেন ইউআইইউ সিএসই ডিপার্টমেন্টের সহযোগী অধ্যাপক ড. স্বাক্ষর শতাব্দ। 

সম্মেলনে বক্তারা জানান, এ বছর আমেরিকা, অস্ট্রেলিয়া, ইউকে, চীন, জার্মানি, জাপান,  ফ্রান্স ও কোরিয়াসহ বিশ্বের ১৭ দেশ থেকে ৩৯৩টি উন্নত তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ক গবেষণা থেকে শক্তিশালী রিভিউ কমিটির বাছাইয়ের পর শতকরা ২৬% অর্থাৎ মোট ১০৩টি গবেষণা আন্তর্জাতিক সম্মেলনে উপস্থাপন এবং ওঊঊঊ ঢঢ়ষড়ৎব –এ প্রকাশনার জন্য গ্রহীত হয়েছে। সম্মেলনের সমাপনী দিনে তিনটি অধ্যক্ষ তমিজউদ্দিন আহম্মেদ বেস্ট পেপার এ্যয়ার্ড প্রদান করা হবে। এসব গবেষণা বাংলাদেশের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিকাশের পাশাপাশি শিল্প উদ্যোক্তা ও শিক্ষার্থীদের উদ্ভাবনী কাজে আসবে। 

চতুর্থ শিল্প বিপ্লবকে সামনে রেখে এবং ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে প্রযুক্তিগত উন্নয়ন ও চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় উন্নত তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে ভবিষ্যত অর্থনীতি কিভাবে লাভবান হবে তা নিয়ে আলোচনা করেন বক্তারা। দুই দিনব্যাপী সম্মেলনের বিভিন্ন সেশনে ১৮টি বৈজ্ঞানিক গবেষণার ওপর দেশি-বিদেশি তথ্য প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞরা আলোচনা করবেন।