হোন্ডা আনলো নতুন দামে ‘নতুন লিভো’
jugantor
হোন্ডা আনলো নতুন দামে ‘নতুন লিভো’

  সংবাদ বিজ্ঞপ্তি  

২৪ জানুয়ারি ২০২১, ২১:৩০:০৬  |  অনলাইন সংস্করণ

দেশের মোটর বাইকের বাজারে ১১০ সিসি মডেলের মধ্যে ‘সর্বাধুনিক সুবিধা’ নিয়ে লিভো সিরিজের নতুন বাইক বাজারজাতকরণ শুরু করেছে বাংলাদেশ হোন্ডা প্রাইভেট লিমিটেড।

বাংলাদেশের গ্রাহকের চাহিদার প্রতি খেয়াল রেখে হোন্ডার আরএনডি বিভাগের পরামর্শ অনুযায়ী মুন্সিগঞ্জের সর্বাধুনিক কারখানায় প্রস্তুতকৃত লিভোর দুটি ভ্যারিয়েন্স-লিভো ড্রাম ১০৩,৯০০ টাকা এবং লিভো ডিস্ক পাওয়া যাবে ১০৮,৯০০ টাকায়।

অভিনব নকশা এবং উদ্ভাবনী সেবার মাধ্যমে গ্রাহকের আস্থা অর্জন করা হোন্ডা লিভো ২০১৭ সালের জুন মাসে বাংলাদেশের বাজারে আসার পরে মাত্র ৩৭ মাসের মধ্যেই ৫০ হাজার ইউনিট বিক্রির মাইলফলক অতিক্রম করে লিভো দেশব্যাপী ব্যাপক সারা পায়।

এরই ধারাবাহিকতায় আজ নতুন রূপে, নতুন দামে বাংলাদেশ হোন্ডা উন্মোচন করলো লিভো। স্পোর্টি লুক এবং ডিজিটাল এনালগ মিটারের পাশাপাশি নতুন লিভোতে রয়েছে এনার্জিটিক ফ্রন্ট লুক এবং কার্ভড ফুয়েল ট্যাংক।

হোন্ডা ইকো টেকনোলজি বা এইচইটি সম্বলিত ১১০ সিসি সক্ষমতার ইঞ্জিন ব্যবহারে প্রতি লিটার জ্বালানি তেলে ৭৪ কিলোমিটার পর্যন্ত মাইলেজ যাওয়া যাবে।

বাংলাদেশের রাস্তার অবস্থা অনুযায়ী হোন্ডা লিভোতে রয়েছে ১২৮৫ মিলিমিটার লম্বা হুইল বেইজ, ৫ স্টেপ এডজাস্টেবল রিয়ার সাস্পেন্সন, ক্লাস লিডিং ১৮০ মিমি উচ্চ গ্রাউন্ড ক্লিয়ারেন্স এবং একটি আপরাইট হ্যান্ডেল পজিশন যা চালক এবং সহযাত্রীর চলাচলকে আরামদায়ক করবে।

লিভোতে রয়েছে ডিস্ক ব্রেক এবং এইচইটি টায়ার প্রযুক্তি যা ব্রেকিং পারফরমেন্সকে উন্নত করে এবং চলাচলকে নিরাপদ করে। পাশাপাশি, প্রতিটি যাত্রাকে সহজ করবে সিলড চেইন, এমএফ ব্যাটারি, টিউবলেস টায়ার এবং বায়ু শুদ্ধকরণ সুবিধা। সবকিছু নিয়ে ১১০ সিসি মডেলের বাইকের মধ্যে অর্ধলাখ কাস্টমারের কাছে ‘লিভো সেরা’।

প্রাপ্যতা এবং মূল্য: লাল, নীল এবং গ্রে এই তিন রঙে জানুয়ারির মধ্যে দেশজুড়ে হোন্ডার সব পরিবেশক এবং ডিলার শো-রুমে পাওয়া যাচ্ছে লিভো।

বিক্রয় পরবর্তী ২ বছর অথবা ২০ হাজার কিলোমিটার (যেটি আগে হবে) পর্যন্ত ওয়ারেন্টি এবং চারটি সেবা বিনামূল্যে পাবেন গ্রাহক।

আরও জানা যাবে, bdhonda.com এ।

হোন্ডা আনলো নতুন দামে ‘নতুন লিভো’

 সংবাদ বিজ্ঞপ্তি 
২৪ জানুয়ারি ২০২১, ০৯:৩০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

দেশের মোটর বাইকের বাজারে ১১০ সিসি মডেলের মধ্যে ‘সর্বাধুনিক সুবিধা’ নিয়ে লিভো সিরিজের নতুন বাইক বাজারজাতকরণ শুরু করেছে বাংলাদেশ হোন্ডা প্রাইভেট লিমিটেড।  

বাংলাদেশের গ্রাহকের চাহিদার প্রতি খেয়াল রেখে হোন্ডার আরএনডি বিভাগের পরামর্শ অনুযায়ী মুন্সিগঞ্জের সর্বাধুনিক কারখানায় প্রস্তুতকৃত লিভোর দুটি ভ্যারিয়েন্স-লিভো ড্রাম ১০৩,৯০০ টাকা এবং লিভো ডিস্ক পাওয়া যাবে ১০৮,৯০০ টাকায়।   

অভিনব নকশা এবং উদ্ভাবনী সেবার মাধ্যমে গ্রাহকের আস্থা অর্জন করা হোন্ডা লিভো ২০১৭ সালের জুন মাসে বাংলাদেশের বাজারে আসার পরে মাত্র ৩৭ মাসের মধ্যেই ৫০ হাজার ইউনিট বিক্রির মাইলফলক অতিক্রম করে লিভো দেশব্যাপী ব্যাপক সারা পায়।  

এরই ধারাবাহিকতায় আজ নতুন রূপে, নতুন দামে বাংলাদেশ হোন্ডা উন্মোচন করলো লিভো। স্পোর্টি লুক এবং ডিজিটাল এনালগ মিটারের পাশাপাশি নতুন লিভোতে রয়েছে এনার্জিটিক ফ্রন্ট লুক এবং কার্ভড ফুয়েল ট্যাংক। 

হোন্ডা ইকো টেকনোলজি বা এইচইটি সম্বলিত ১১০ সিসি সক্ষমতার ইঞ্জিন ব্যবহারে প্রতি লিটার জ্বালানি তেলে ৭৪ কিলোমিটার পর্যন্ত মাইলেজ যাওয়া যাবে।  

বাংলাদেশের রাস্তার অবস্থা অনুযায়ী হোন্ডা লিভোতে রয়েছে ১২৮৫ মিলিমিটার লম্বা হুইল বেইজ, ৫ স্টেপ এডজাস্টেবল রিয়ার সাস্পেন্সন, ক্লাস লিডিং ১৮০ মিমি উচ্চ গ্রাউন্ড ক্লিয়ারেন্স এবং একটি আপরাইট হ্যান্ডেল পজিশন যা চালক এবং সহযাত্রীর চলাচলকে আরামদায়ক করবে।  

লিভোতে রয়েছে ডিস্ক ব্রেক এবং এইচইটি টায়ার প্রযুক্তি যা ব্রেকিং পারফরমেন্সকে উন্নত করে এবং চলাচলকে নিরাপদ করে। পাশাপাশি, প্রতিটি যাত্রাকে সহজ করবে সিলড চেইন, এমএফ ব্যাটারি, টিউবলেস টায়ার এবং বায়ু শুদ্ধকরণ সুবিধা। সবকিছু নিয়ে ১১০ সিসি মডেলের বাইকের মধ্যে অর্ধলাখ কাস্টমারের কাছে ‘লিভো সেরা’।  

প্রাপ্যতা এবং মূল্য: লাল, নীল এবং গ্রে এই তিন রঙে জানুয়ারির মধ্যে দেশজুড়ে হোন্ডার সব পরিবেশক এবং ডিলার শো-রুমে পাওয়া যাচ্ছে লিভো। 

বিক্রয় পরবর্তী ২ বছর অথবা ২০ হাজার কিলোমিটার (যেটি আগে হবে) পর্যন্ত ওয়ারেন্টি এবং চারটি সেবা বিনামূল্যে পাবেন গ্রাহক।

আরও জানা যাবে, bdhonda.com এ। 

 
আরও খবর