বঙ্গবন্ধু প্রকৌশলী পরিষদ এলজিইডির কম্বল বিতরণ
jugantor
বঙ্গবন্ধু প্রকৌশলী পরিষদ এলজিইডির কম্বল বিতরণ

  সংবাদ বিজ্ঞপ্তি  

১৭ জানুয়ারি ২০২২, ২২:০০:৩৩  |  অনলাইন সংস্করণ

১৬ জানুয়ারি এলজিইডি সদর দপ্তরে বঙ্গবন্ধু প্রকৌশলী পরিষদ, এলজিইডি কর্তৃক “বিজয়ের সুবর্ণজয়ন্তী ও বঙ্গবন্ধুর জন্ম শতবার্ষিকী” উপলক্ষ্যে এলজিইডি কামরুল ইসলাম সিদ্দিক মিলনায়তন (লেভেল-২) এ স্বাস্থ্যবিধি মেনে আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান এবং শীতার্তদের মাঝে কম্বল বিতরণ করা হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন মো. তাজুল ইসলাম এমপি, মন্ত্রী, স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন এলজিইডির প্রকল্প পরিচালক আমিরুল ইসলাম খান।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী বলেন, ১৯৪৭ সালে পাকিস্তান হওয়ার পরে মানুষ আশা করেছিল আমরা স্বাধীন হয়েছি। কিন্তু তা হয়নি তারা আমাদের ভাষা কেড়ে নিতে চায়, আমরা বঙ্গবন্ধুর অমর বাণী ধারণ করেছি। এবারের সংগ্রাম মুক্তির সংগ্রাম এবারের সংগ্রাম স্বাধীনতার সংগ্রাম। নয় মাস রক্তক্ষয়ী সংগ্রামের মাধ্যমে দেশ স্বাধীন হয়েছে। ১০ জানুয়ারি বঙ্গবন্ধু দেশে ফিরে দেশ গঠনের অঙ্গিকার করেন। প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে দেশ উন্নত হচ্ছে। প্রকৌশলীরা দেশের গর্বিত সন্তান, তারা দেশ গঠনে কাজ করছে। সবাইকে একযোগে দেশ উন্নত ও সমৃদ্ধ করতে কাজ করতে হবে।

প্রাক্তন প্রধান প্রকৌশলী, এলজিইডি মো. মনোয়ার হোসেন চৌধুরী এমপি বলেন, জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ে তুলতে হবে। তিনি জাতির পিতা নিয়ে স্মৃতিচারণমূলক বক্তব্য প্রদান করেন।

স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ বলেন, গ্রামীণ অর্থনীতি উন্নয়নে এলজিইডির ভূমিকা অপরিসীম, এলজিইডি উপজেলা থেকে জেলার মাঝে কানেকশন করেছে। প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে।

এলজিইডির প্রধান প্রকৌশলী সেখ মোহাম্মদ মহসিন বলেন, এলজিইডির সকল প্রকৌশলী বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গঠনে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করছে। টেকসই ও মানসম্মত কাজ করছে এলজিইডি।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন এলজিইডির অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী মোঃ মজিবুর রহমান সিকদার। তিনি বলেন, এলজিইডির প্রকৌশলীকে ক্যাডারভুক্ত করার দাবি জানান। সকল অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলীকে গ্রেড-২, তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলীকে গ্রেড-৩ করার দাবি জানান।

আরো বক্তব্য রাখেন, প্রকৌশলী নুরুল হুদা, প্রকৌশলী নুরুজ্জামান, এলজিইডির প্রকল্প পরিচালক মামুনুর রশীদ, সিনিয়র সহকারী প্রকৌশলী রেশমা আখতার সহ প্রমুখ।

বঙ্গবন্ধু প্রকৌশলী পরিষদ এলজিইডির কম্বল বিতরণ

 সংবাদ বিজ্ঞপ্তি 
১৭ জানুয়ারি ২০২২, ১০:০০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

১৬ জানুয়ারি এলজিইডি সদর দপ্তরে বঙ্গবন্ধু প্রকৌশলী পরিষদ, এলজিইডি কর্তৃক “বিজয়ের সুবর্ণজয়ন্তী ও বঙ্গবন্ধুর জন্ম শতবার্ষিকী” উপলক্ষ্যে এলজিইডি কামরুল ইসলাম সিদ্দিক মিলনায়তন (লেভেল-২) এ স্বাস্থ্যবিধি মেনে আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান এবং শীতার্তদের মাঝে কম্বল বিতরণ করা হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন মো. তাজুল ইসলাম এমপি, মন্ত্রী, স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন এলজিইডির প্রকল্প পরিচালক আমিরুল ইসলাম খান।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী বলেন,  ১৯৪৭ সালে পাকিস্তান হওয়ার পরে মানুষ আশা করেছিল আমরা স্বাধীন হয়েছি। কিন্তু তা হয়নি তারা আমাদের ভাষা কেড়ে নিতে চায়, আমরা বঙ্গবন্ধুর অমর বাণী ধারণ করেছি। এবারের সংগ্রাম মুক্তির সংগ্রাম এবারের সংগ্রাম স্বাধীনতার সংগ্রাম। নয় মাস রক্তক্ষয়ী সংগ্রামের মাধ্যমে দেশ স্বাধীন হয়েছে। ১০ জানুয়ারি বঙ্গবন্ধু দেশে ফিরে দেশ গঠনের অঙ্গিকার করেন। প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে দেশ উন্নত হচ্ছে। প্রকৌশলীরা দেশের গর্বিত সন্তান, তারা দেশ গঠনে কাজ করছে। সবাইকে একযোগে দেশ উন্নত ও সমৃদ্ধ করতে কাজ করতে হবে।

প্রাক্তন প্রধান প্রকৌশলী, এলজিইডি মো. মনোয়ার হোসেন চৌধুরী এমপি বলেন, জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ে তুলতে হবে। তিনি জাতির পিতা নিয়ে স্মৃতিচারণমূলক বক্তব্য প্রদান করেন।

স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ বলেন, গ্রামীণ অর্থনীতি উন্নয়নে এলজিইডির ভূমিকা অপরিসীম, এলজিইডি উপজেলা থেকে জেলার মাঝে কানেকশন করেছে। প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে।

এলজিইডির প্রধান প্রকৌশলী সেখ মোহাম্মদ মহসিন বলেন, এলজিইডির সকল প্রকৌশলী বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গঠনে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করছে। টেকসই ও মানসম্মত কাজ করছে এলজিইডি।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন এলজিইডির অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী মোঃ মজিবুর রহমান সিকদার। তিনি বলেন, এলজিইডির প্রকৌশলীকে ক্যাডারভুক্ত করার দাবি জানান। সকল অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলীকে গ্রেড-২, তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলীকে গ্রেড-৩ করার দাবি জানান।

আরো বক্তব্য রাখেন, প্রকৌশলী নুরুল হুদা, প্রকৌশলী নুরুজ্জামান, এলজিইডির প্রকল্প পরিচালক মামুনুর রশীদ, সিনিয়র সহকারী প্রকৌশলী রেশমা আখতার সহ প্রমুখ।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও খবর