চারঘাট-বাঘা মহাসড়ক এখন মরণফাঁদ

  মিজানুর রহমান, চারঘাট ২০ অক্টোবর ২০১৮, ১৭:১৮ | অনলাইন সংস্করণ

চারঘাট-বাঘা মহাসড়ক এখন মরণফাঁদ
রাজশাহীর চারঘাট-বাঘা মহাসড়ক। ছবি: যুগান্তর

রাজশাহীর চারঘাট-বাঘা মহাসড়কের কয়েকটি স্থানে রাস্তা দেবে গিয়ে সৃষ্টি হয়েছে বড় গর্তের। এ কারণে রাস্তায় চলতে গিয়ে ঘটছে অহরহ দুর্ঘটনা। গত কয়েক মাস ধরে এমন অবস্থা বিরাজ করলেও সংশ্লিষ্ট দফতরের কর্মকর্তারা রয়েছেন নির্বিকার।

জানা যায়, চারঘাট-বাঘা মহাসড়কের কাকরামারী ঘোষের মোড় থেকে রাওথা নাদের আলী কলেজ পর্যন্ত বিভিন্ন স্থানে পাকা রাস্তা দেবে গিয়ে সৃষ্টি হয়েছে বড় গর্তের। ক্ষতিগ্রস্ত কয়েকটি স্থান এখন মরণফাঁদে পরিণত হয়েছে। ব্যস্ততম এ রাস্তা দিয়ে ঢাকাসহ দক্ষিণাঞ্চলে যাওয়া যানবাহনগুলো রাত-বিরাতে চলতে গিয়ে অহরহ দুর্ঘটনার কবলে পড়ছে।

আর এতে চরম ঝুঁকির মধ্যে পড়েছে রাস্তার ধারে বসবাসকারী লোকজন। গত কয়েক মাস ধরে এভাবে রাস্তা পারাপার করতে গিয়ে মালামালবোঝাই ট্রাকসহ ছোট ছোট যানবাহন প্রতিনিয়তই ঘটছে দুর্ঘটনা। এতে চরমভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে পথচারীরা।

সংশ্লিষ্ট দফতরের উদাসীনতায় রাস্তাঘাটের এমন করুন অবস্থা বলে অভিযোগ করেছেন এলাকাবাসী।

কাকরামারী এলাকার মুদি ব্যবসায়ী মুজিবুর রহমান জানান, ঘোষের মোড়ের পাশে রাস্তার সঙ্গে একটি পুকুরের ধারে রাস্তা দেবে গিয়ে আটকে যায় মালবোঝাই একটি ট্রাক। পরে স্থানীয়দের সহায়তায় ট্রাকটি উদ্ধার করার পর থেকে সেখানে এখন বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। পিচ উঠে মাটি বের হয়ে গেছে। এতে চরম বেকায়দার মধ্যে দিয়ে চলছে যানবাহন। অপর দিকে একই অবস্থা সৃষ্টি হয়েছে কাকরামারী বাজার থেকে ৫০০ গজ অদূরে আরও একটি স্থানে। এখন ওই দুটি স্থানই মরণফাঁদে পরিণত হয়েছে।

মেরামতপুর এলাকার আব্দুল কাদির বলেন, গত কয়েক মাস ধরে ঘোষের মোড় থেকে রাওথা নাদের আলী কলেজ পর্যন্ত বিভিন্ন স্থানে রাস্তা দেবে গিয়ে সৃষ্টি হয়েছে বড় গর্তের। বিভিন্ন স্থানে ইট-বালি ফেলে চলাচলের চেষ্টা করা হলেও এখন বিভিন্ন স্থানে সৃষ্টি হয়েছে মরণফাঁদ। দ্রুত ব্যস্ততম রাস্তাটি মেরামত করা না হলে যে কোনো সময় বড় ধরনের দুর্ঘটনার আশঙ্কা করছেন স্থানীয়রা।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক জনৈক ব্যক্তি জানান, ব্যস্ততম এ রাস্তাটিতে অধিক ওজনের যানবাহন চলায় প্রতিনিয়তই রাস্তা দেবে যায়। গত কয়েক মাস আগে রাস্তাটি সংস্কার করা হলেও কয়েক মাসের ব্যবধানে রাস্তাটি দেবে গিয়ে পিচ উঠে এখন মাটির রাস্তায় পরিণত হয়েছে। এতে রাস্তায় নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহারের অভিযোগ করেছেন এলাকাবাসী।

এ বিষয়ে চারঘাট উপজেলা নির্বাহী প্রকৌশলী মকবুল হোসেন জানান, রাস্তাটি আসলেই সড়ক ও জনপথ বিভাগের। তারাই এ বিষয়ে ব্যবস্থা নিতে পারবেন।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter