বড়াইগ্রামে তিন স্কুলছাত্রকে ঘরে আটকে পিটুনি, দম্পতি গ্রেফতার

  বড়াইগ্রাম (নাটোর) প্রতিনিধি ২৮ অক্টোবর ২০১৮, ২১:৪০ | অনলাইন সংস্করণ

নাটোর

নাটোরের বড়াইগ্রামে গাছ থেকে তেঁতুল পেড়ে খাওয়ার অভিযোগে তিন শিশু স্কুলছাত্রকে দিন ভর ঘরে আটকে রেখে নির্যাতনের ঘটনা ঘটেছে। পরে শিশুদের কান্নার শব্দে বুঝতে পেরে গ্রামের লোকজন বাড়িটি ঘেরাও করলে পুলিশ অভিযুক্ত দম্পতিকে গ্রেফতার করে।

রোববার বিকালে আদালতের মাধ্যমে তাদেরকে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন- উপজেলার মেরিগাছা গ্রামের মৃত লারু মিয়ার ছেলে এনামুল হক (৪৮) ও তার স্ত্রী বিলকিস খাতুন (৪৩)।

নির্যাতনের শিকার শিক্ষার্থীরা হলো উপজেলার মেরিগাছা স্কুল এন্ড কলেজের সপ্তম শ্রেণির ছাত্র মেরিগাছা গ্রামের দুলাল হোসেনের ছেলে নহিন (১২), চতুর্থ শ্রেণির ছাত্র একই গ্রামের ইমরান হোসেনের ছেলে হিমেল (৯) ও তৃতীয় শ্রেণির ছাত্র খোরশেদ আলমের ছেলে আবু তালহা (৮)। উদ্ধার করা নির্যাতিত শিশুদেরকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

এলাকাবাসী জানায়, শনিবার সকাল ৮টার দিকে স্কুলের উদ্দেশ্যে বাড়ি থেকে বের হয়ে যায় ওই তিন ছাত্র। দুপুর গড়িয়ে বিকাল হয়ে গেলেও তারা ফিরে না আসায় অভিভাবকেরা বিভিন্ন জায়গায় খোঁজাখুঁজি শুরু করেন।

বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে এনামুল হকের বাড়িতে শিশুদের কান্নার শব্দ শুনে প্রতিবেশীরা এগিয়ে গিয়ে ওই তিন শিশুকে সেখানে আটকে রেখে মারপিটের বিষয়টি জানতে পারেন। খবর পেয়ে স্বজনেরাসহ গ্রামবাসী এনামুলের বাড়িতে চড়াও হলে থানা থেকে পুলিশ গিয়ে তিন শিশুকে উদ্ধার করে এবং দম্পতিকে আটক করে।

এ সময় এনামুল ও তার স্ত্রী দাবি করেন, গাছের তেঁতুল পেড়ে খাওয়ায় তিন শিশুকে মারপিট করা হয়েছে।

বড়াইগ্রাম থানার এসআই শামসুল ইসলাম জানান, এ ঘটনায় ইমরান হোসেন বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছেন। অভিযুক্তদের কোর্টের মাধ্যমে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
×