সুন্দরবনের আত্মসমর্পণকৃত ৬টি দস্যু বাহিনীর ৫৪ জন সদস্য জামিনে মুক্ত

  বাগেরহাট প্রতিনিধি ১৫ নভেম্বর ২০১৮, ২১:৪৮ | অনলাইন সংস্করণ

বাগেরহাট

ভিডিও কনফারেন্সে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে আত্মসমর্পণকৃত ৬টি দস্যু বাহিনীর ৫৪ জন সদস্যের জামিনে মুক্তি পেয়েছে। বৃহস্পতিবার বাগেরহাট জেলা কারগার থেকে জামিনে মুক্তি পেয়েছেন এই দস্যুরা।

এর আগে বাগেরহাট জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক তাদের জামিনের আবেদন মঞ্জুর করেন। তবে অন্য মামলা থাকায় এই ৬টি বাহিনীর ৭ জন সদস্য জেল থেকে বের হতে পারেননি।

১ নভেম্বর গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাগেরহাট শেখ হেলালউদ্দিন স্টেডিয়ামে আত্মসমর্পণ অনুষ্ঠানে যুক্ত হয়ে সুন্দরবনকে দস্যুমুক্ত ঘোষণা করেন।

সুন্দরবন দস্যুমুক্ত হওয়ার ঘোষণা অনুষ্ঠানে সুন্দরবনের সর্বশেষ ৬টি বাহিনী প্রধানসহ ৫৪ জন বনদস্যু ৫৮টি আগ্নেয়াস্ত্র ও ৩ হাজার ৩৫১ রাউন্ড গোলাবারুদ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর হাতে তুলে দেয়। এতে অবদান ছিল বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল যমুনা টিভির। দস্যুদের আত্মসমর্পণের প্রক্রিয়ায় মধ্যস্থতাকারীর ভূমিকা পালন করে এসেছেন তারা।

আত্মসমর্পণকৃত বনদস্যু বাহিনীগুলো হলো সত্তার বাহিনীর প্রধান মো. আ. সাত্তার মল্লিকসহ তার বহিনীর ১২ জন, শরিফ বাহিনী প্রধান মো. করিম শরীফসহ ১৭ জন, সিদ্দিক বাহিনীর প্রধান মো. মনিরুজ্জামান মুকুলসহ ৭ জন, আল-আমিন বাহিনীর প্রধান মো. আল-আমিনসহ ৫ জন, আনারুল বাহিনীর প্রধান মো. আনোয়ারুল ইসলাম গাজীসহ ৮ জন ও তৈয়ব বাহিনীর প্রধান তৈয়বুর মোড়লসহ ৫ জন।

এর আগে বিভিন্ন সময় সুন্দরবনের ২৬টি বাহিনীর ২৭৪ জনসদস্যু আত্মসমর্পণ করেন। আত্মসমর্পণের সময় তারা ৪০৪টি অস্ত্র ও ১৯ হাজার ১৫৩টি গোলাবারুদ জমা দেয়।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
×