মিঠাপুকুরে আদিবাসী পল্লীতে জমি নিয়ে সংঘর্ষ, তীরবিদ্ধ ৬

  রংপুর ব্যুরো ১৭ নভেম্বর ২০১৮, ২০:০১ | অনলাইন সংস্করণ

মিঠাপুকুরে আদিবাসী পল্লীতে জমি নিয়ে সংঘর্ষ, তীরবিদ্ধ ৬
প্রতীকী ছবি

মিঠাপুকুরের আদিবাসী পল্লীতে জমি নিয়ে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। দু'গ্রুপের সংঘর্ষের ঘটনায় তীরবিদ্ধ ছয়জনসহ আহত হয়েছেন ১০ জন। আহতদের মিঠাপুকুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও রমেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

শুক্রবার সকাল ৯ টার দিকে রাণীপুকুরের বলদীপুকুর আদিবাসী পল্লী বালাপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ঘটনাস্থলে বিপুলসংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

এদের মধ্যে তীরবিদ্ধ হয়ে আহত হন ছয়জন। আহতদের মিঠাপুকুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও রমেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। আহতরা হলেন, বোরহান, রায়হান, দুলালী, নুরনাহার, সিরাজুল, হারুন, বিমল, পুসু, নাগি ও কাত্রিনা।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, রাণীপুকুরের বলদীপুকুর বালাপাড়ার আদিবাসী সুকেন্দ্র কুজুর ও নন্দ কুজুরের মধ্যে জমির অংশিদারিত্ব নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছে। সম্পর্কে তারা চাচা-ভাতিজা। শুক্রবার সকালে সুকেন্দ্র কুজুর তার লোকজন নিয়ে ওই জমিতে ধানকাটা শুরু করেন।

এ সময় নন্দ কুজুর স্থানীয় লোকজন নিয়ে ধান কাটতে বাধা দেন। বাগ্বিতণ্ডার একপর্যায়ে তীর-ধনুক ও লাঠিসোঁটা দিয়ে দু'গ্রুপের সংঘর্ষ বেধে যায়। প্রায় আধা ঘণ্টা ধরে এ সংঘর্ষে উভয় পক্ষের ১০ জন আহত হন।

আদিবাসী নন্দ কুজুর জানান, হাফিজার রহমান নামে এক ব্যক্তির কাছ থেকে ২ বিঘা জমি বিক্রির কথা বলে কিছু টাকা নিয়েছিলাম। কিন্তু আমার চাচা সুকেন্দ্র এতে রাজি ছিল না। সকালে সুকেন্দ্র তার লোকজন নিয়ে জমিতে ধান কাটতে গেলে স্থানীয় লোকজন বাধা দেন। এতে মারামারি শুরু হয়। আদীবাসী সুকেন্দ্র কুজুর জানান, জমি আমাদের। ধান আবাদ করেছি আমরা। ওই জমি অন্যায়ভাবে দখল নিতে চেয়েছিল নন্দ কুজুরের লোকজন। তাই আমরা বাধা দিয়েছি।

মিঠাপুকুর থানার ওসি আশিকুর রহমান জানান, দুই আদিবাসী চাচা-ভাতিজার মধ্যে জমি নিয়ে বিরোধ ছিল এ সংঘর্ষের মূল কারণ। এ সুযোগে স্থানীয়দের একটি পক্ষ ঘোলাপানিতে মাছ শিকারের চেষ্টা করলে এই সংঘর্ষের সূত্রপাত হয়। বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
×