কালিয়াকৈরে কর্মচারীর হাতে ব্যবসায়ী খুন

প্রকাশ : ২১ নভেম্বর ২০১৮, ১২:০৮ | অনলাইন সংস্করণ

  কালিয়াকৈর (গাজীপুর) প্রতিনিধি

নিহত সাদেক আলীর স্ত্রী ও সন্তানদের আহাজারি। ছবি: যুগান্তর

গাজীপুরের কালিয়াকৈর পৌরসভার ৯নং ওয়ার্ডের সফিপুর এলাকায় শাহচন্দ্রপুরী ওয়ার্কসপের কর্মচারীর হাতে মালিক ব্যবসায়ী সাদেক আলী (৩৬) খুন হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

বুধবার সকালে পুলিশ নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দিন আহম্মেদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরন করেছে।

নিহত সাদেক আলী নাটোর জেলার লালপুর থানার গোধুরা ব্ড়াইগ্রাম এলাকার কদ্দুস মিয়ার ছেলে। তিনি সফিপুরের বালুর মাঠ এলাকায় হোসেনের বাড়ি ভাড়া থেকে ওয়ার্কসপের ব্যবসা করে আসছে। তিনি স্ত্রী আকলিমা ও তিন সন্তান সাকিবুল হাসান (৮), সানি হাসান (৬) ও সায়মান হাসানকে (৪) নিয়ে ভাড়া বাসায় বসবাস করতেন।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সুত্রে জানা যায়, প্রায় ১৫-২০ বছর আগে সাদেক আলী কাজের সন্ধানে গাজীপুরের কালিয়াকৈরের সফিপুরে আসেন। তিনি সফিপুর পুর্বপাড়া এলাকার আবু তালেবের মিয়েকে বিয়ে করে ঘর সংসার শুরু করেন। পরে সফিপুর এলাকায় শাহচন্দ্রপুরী নামে একটি ওয়ার্কসপ দিয়ে দীর্ঘ দিন ধরে ব্যবসা করে আসছেন। বেশ কিছু দিন আগে তার ওয়ার্কসপের কর্মচারী নাজমুল হাসানের সঙ্গে জনৈক ব্যক্তির ঝগড়া হলে সাদেক তা মিমাংসা করেন।

ওই ঝগড়ার কারণে সাদেক কর্মচারী নাজমুলকে তার প্রতিষ্ঠান থেকে বের করে দেন। ফলে মালিক সাদেক আলীর প্রতি কর্মচারী নাজমুলের ক্ষোভ থেকে যায়। মঙ্গলবার রাতে আনুমানিক ৮টার সময় সাদেক আলীকে ফোনে বাসা থেকে ডেকে আনেন তিনি। পরে সাদেক আলীকে ওয়ার্কসপের ভিতরে নিয়ে পিটিয়ে গুরুতর আহত অবস্থায় মৃত ভেবে বাহির থেকে তালা মেরে পালিয়ে যায় নাজমুল। যাওয়ার সময় দুটি মোবাইল ও একটি মোটরসাইকেল নিয়ে যায়।

রাতে ওই মাকের্টের নিরাপত্তাকর্মী মানুষের কান্নার শব্দ পেয়ে দোকানের ভিতর অর্ধমৃত সাদেক আলীকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়ার পর কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন। পরে স্বজনরা সাদেক আলীর লাশ সফিপুর নিয়ে গেলে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠায়।

মৌচাক পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ পরিদর্শক শহিদুল ইসলাম বলেন, নিহত সাদেক আলীর গায়ে আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। কে বা কারা তাকে মেরেছে তা এখনও সনাক্ত করা যায়নি। তদন্ত করে হত্যার রহস্য উদঘাটন করা হবে।