রাজশাহীতে চাঁদাবাজির অভিযোগে ২ পুলিশ সদস্যকে গণধোলাই

  রাজশাহী ব্যুরো ২৩ নভেম্বর ২০১৮, ১১:০৩ | অনলাইন সংস্করণ

রাজশাহী

রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলার আদিবাসী পল্লীতে চাঁদাবাজি করতে গিয়ে গণধোলাইয়ের শিকার হয়েছেন দুই পুলিশ সদস্য।

বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে নয়টার দিকে উপজেলার চকপাড়া আদিবাসী পল্লীতে এ ঘটনা ঘটে।

তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

তবে দুই পুলিশ সদস্যের দাবি, ইয়াবা উদ্ধার করতে গিয়ে তারা গণধোলাইয়ের শিকার হয়েছেন।

আহত দুই পুলিশ সদস্য হলেন- গোদাগাড়ী মডেল থানার এএসআই ফারুক হোসেন এবং কনস্টেবল শাহাদাত হোসেন। আদিবাসীরা ওই দুই পুলিশ সদস্যকে প্রায় দুই ঘণ্টা আটকে রাখেন। পরে অতিরিক্ত পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে তাদের উদ্ধার করে। এ সময় আদিবাসীরা তাদের শাস্তির দাবি জানান।

আদিবাসী পল্লী চকপাড়ার বাসিন্দাদের অভিযোগ, এএসআই ফারুক এবং কনস্টেবল শাহাদত রাত সাড়ে নয়টার দিকে ওই পল্লীতে গিয়ে চোলাই মদ তৈরির অভিযোগে চিকন মুরারি নামে এক আদিবাসীর কাছে ১০ হাজার টাকা দাবি করেন। চাঁদা দিতে অস্বীকৃতি জানালে তারা চিকন মুরারিকে আটকের ভয় দেখান।

বিষয়টি জানাজানি হলে এএসআই ফারুক ও কনস্টেবল শাহাদাতকে গণধোলাই দেন আদিবাসী নারী ও পুরষ। এরপর মোটরসাইকেলসহ তাদের আটকে রাখা হয়।

পরে রাত সাড়ে ১১টার দিকে খবর পেয়ে গোদাগাড়ী মডেল থানার ওসি (তদন্ত) হাসমত আলী অতিরিক্ত পুলিশ সদস্যদের সঙ্গে নিয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন।

তিনি দুই পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দেন এবং তাদের উদ্ধার করে আনেন।

চকপাড়া পল্লীর আদিবাসী অজিত মুরারি বলেন, আদিবাসীরা চোলাই মদ তৈরি করে নিজেরাই পান করেন। কয়েকদিন আগে আটকের ভয় দেখিয়ে আদিবাসী ভবেশ মুরারির কাছ থেকে ১৪ হাজার টাকা নিয়ে যান এএসআই ফারুক ও শাহাদাত। টাকাগুলো ভবেশের গরু বিক্রির। এক সপ্তাহ পর তারা আবার চাঁদাবাজি করতে আসলে আদিবাসীরা ক্ষুব্ধ হয়ে দুই পুলিশ সদস্যকে গণধোলাই দিয়েছেন।

তবে এএসআই ফারুক হোসেন দাবি করেন, আমাদের কাছে গোপন তথ্য ছিলো- ওই গ্রামের রাস্তা দিয়ে ইয়াবা ব্যবসায়ীরা যাচ্ছে। একারণে আমরা ওই আদিবাসী পল্লীতে যাই। তবে আদিবাসী চিকন মুরারির কাছে টাকা দাবির ঘটনা সঠিক না।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ওসি (তদন্ত) হাসমত আলী বলেন, দুই পুলিশ সদস্যকে মোটরসাইকেলসহ উদ্ধার করে আনা হয়েছে। বিষয়টি পুলিশ সুপারকেও জানানো হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার সুপারিশ করা হবে।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×