লালমনিরহাট সীমান্তে বিএসএফের গুলিতে ৪ বাংলাদেশি আহত

  লালমনিরহাট প্রতিনিধি ১৫ ডিসেম্বর ২০১৮, ১৭:৪৭ | অনলাইন সংস্করণ

বিএসএফের গুলিতে আহতরা
বিএসএফের গুলিতে আহতরা। ছবি: যুগান্তর

জেলার হাতীবান্ধা সীমান্তে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) ছোড়া ‘চিটা গুলির’ আঘাতে এক মহিলা ও স্কুলছাত্রসহ চার বাংলাদেশি আহত হয়েছে। আহতদের হাতীবান্ধা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

শনিবার সকালে উপজেলার সীমান্তবর্তী পূর্ব সারডুবি গ্রামের ৮৯২ নম্বর সীমান্ত পিলারসংলগ্ন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ নিয়ে দুপুরে ওই সীমান্ত বিজিবি-বিএসএফের পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে।

আহতরা হলেন, পূর্ব সারডুবি গ্রামের জোবেদা বেগম (৩৮), একই গ্রামের স্কুলছাত্র রবিউল ইসলাম (১৬), শহিদুল ইসলাম (২২) ও পার্শ্ববর্তী সিঙ্গীমারী গ্রামের আব্দুল হামিদ।

বিজিবি ও আহতদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, শনিবার সকালে ভারতীয় কাঁটাতার লাগোয়া নিজ জমিতে লাগানো ভুট্টাক্ষেতে পাখি তাড়াতে যায় একদল শিশু। এ সময় পাশের জমিতে তাদের অভিভাবকরাও কাজ করছিল। সেখানে কাঁটাতারের ওপার থেকে ভারতীয় রাজারবাড়ি তিলক ক্যাম্পের দায়িত্বরত বিএসএফ সদস্যরা শিশুদের ভয় দেখায়। এ সময় তাদের অভিভাবকসহ কয়েকজন ঘটনাস্থলে গেলে চিটা গুলি ছুড়ে বিএসএফ। এতে এক নারী ও স্কুলছাত্রসহ চারজন বাংলাদেশি আহত হয়। আহতদের স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাদের শরীরের বিভিন্নস্থানে রাবার বুলেটের মতো আঘাতের চিহ্ন রয়েছে বলে হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে।

এ নিয়ে শনিবার দুপুরের দিকে ওই সীমান্তে কোম্পানি কমান্ডার পর্যায়ে পতাকা বৈঠক করেছে বার্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) ও ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিএসএফ)।

বিষয়টি নিশ্চিত করে বডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) রংপুর ৬১ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল শরিফ সাংবাদিকদের বলেন, ওই বাংলাদেশিদের সীমান্ত থেকে সরিয়ে দিতে ও ভয় দেখাতে চিটা গুলি ছোড়া হয়েছিল বলে জানিয়েছে বিএসএফ। তবে এ ঘটনায় পতাকা বৈঠকে দুঃখ প্রকাশ করে আগামী দিনে তা পুনরাবৃত্তি না করার প্রতিশ্রুতি বিএসএফ দিয়েছে বলে উল্লেখ করেন তিনি।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: jugantor.mail[email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×