কলেজছাত্রের বুদ্ধিমত্তায় রক্ষা পেল শিশু মিরান

  গৌরীপুর (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি ১৩ জানুয়ারি ২০১৯, ২২:০৭ | অনলাইন সংস্করণ

শিশু অপহরণের ঘটনায় গ্রেফতার দুজন, উদ্ধারকারী কলেজছাত্রের কোলে শিশু মিরান
শিশু অপহরণের ঘটনায় গ্রেফতার দুজন, উদ্ধারকারী কলেজছাত্রের কোলে শিশু মিরান

ময়মনসিংহের আনন্দ মোহন কলেজের অনার্স দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র হিমায়েত উল আকিকের দুঃসাহসিকতা ও বুদ্ধিমত্তায় অপহরণকারীদের হাত থেকে রক্ষা পেল শিশু মেহেদী হাসান মিরান (৬)।

মিরান কুমিল্লা জেলার সদর উপজেলার টমসন ব্রিজ মানহাবিল্লা এলাকার কেফায়েত খানের পুত্র। শনিবার কুমিল্লা জেলার সদর উপজেলার টমসন ব্রিজ মানহাবিল্লা এলাকা থেকে তাকে অপহরণ করা হয়।

অপহরণের সঙ্গে জড়িত সন্দেহে মাসুদ রানা (১৭) ও রবিউল ইসলাম নাহিদকে (১৫) গ্রেফতার করেছে গৌরীপুর রেলওয়ে পুলিশ।

শিশুর পরিবার সূত্রে জানা গেছে, চাঁদপুর জেলার শাহেরাস্তি এলাকার রফিকুল ইসলামের স্ত্রী নাছিমা আক্তার সৌদি প্রবাসী কেফায়েত মিয়ার বাসা প্রায় এক বছর পূর্বে ভাড়া নেয়। প্রায়শ: মায়ের সঙ্গে দেখা করতে যেত তার পুত্র রবিউল ইসলাম নাহিদ।

বাবা সৌদিতে থাকায় মোটা অংকের টাকা নেয়ার জন্যই বাড়ির মালিকের পুত্র মিরানকে অপহরণের টার্গেট করে নাহিদ ও তার বন্ধু মাসুদ রানা। মাসুদ রানা কুমিল্লার মোহনপুরের বলু মিয়ার পুত্র।

অপহৃত মিরান স্থানীয় একটি কিন্ডারগার্টেনের ছাত্র। ওর বাবা সৌদিতে থাকায় নাহিদের সঙ্গে সখ্যতাও জমে উঠে। শনিবার সকালে স্কুলে যাওয়ার পথে দুবন্ধু নাহিদ ও মাসুদ রানা বেড়ানোর কথা বলে মিরানকে রিকশায় উঠায়। এরপর ‘ট্রেনে উঠলেই মজা’ ও খেলনা দিয়ে তাকে ট্রেনে উঠায়। ট্রেনযোগে তাকে ময়মনসিংহ এলাকায় নিয়ে যায়। রাতে ময়মনসিংহের একটি গেস্ট হাউজে রাত্রিযাপন করে। এ দিকে মিরান সন্ধ্যার মধ্যে বাড়ি না ফেরায় তার মা নুসরাত জাহান ছুটে যান কুমিল্লা কোতয়ালী থানায়। সাধারণ ডায়েরি করার পর ওসি মোহাম্মদ আবু সালাম মিয়া এ বার্তা সারাদেশে ছড়িয়ে দেন।

ওসি জানান, রাতেই মাসুদের বাবা-মা ও নাহিদের মা-বোনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নিয়ে আসা হয়। ইলেকট্রনিক্স ডিভাইজে অপহরণকারীদের লোকেশন সনাক্তকরণের কাজ চলছিল।

অপরদিকে রোববার সকালে শিশুটিকে নিয়ে ট্রেনে ময়মনসিংহ থেকে ভৈরবের উদ্দেশ্যে ঈশাখাঁ এক্সপ্রেসে রওয়ানা হয় নাহিদ ও মাসুদ। ট্রেনটি ময়মনসিংহ থেকে ছাড়ার পর শিশুদের সঙ্গে অপহরণকারীদের কথাবার্তা গড়মিল দেখে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দেয় গৌরীপুর উপজেলার পশ্চিম ভালুকার বাসিন্দা কলেজছাত্র হিমায়েত উল আকিক।

দুই অপহরণকারী এ সময় ছেলেটিকে ‘ছোট ভাই’ বলে জানায়। ট্রেনের অন্যান্য যাত্রীরাও আকিকের চ্যালেঞ্জে সায় দেয়। এ সময় শিশু মিরান চিৎকার করতে থাকে। আকিকের সঙ্গে আশপাশের লোকজনও এক হয়ে নাহিদ ও মাসুদরানাকে ট্রেনে আটকে রাখে। এরপর তাদেরকে গৌরীপুর রেলওয়ে ফাঁড়িতে নিয়ে গেলে অপহরণের ঘটনা স্বীকার করে নাহিদ ও মাসুদ।

শিশু উদ্ধারের ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন গৌরীপুর রেলওয়ে ফাঁড়ির ইনচার্জ ওবায়দুল ইসলাম। তিনি জানান, অপহরণের সঙ্গে জড়িত অভিযোগে নাহিদ ও মাসুদ রানা নামে দুজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

আনন্দ মোহন কলেজের অনার্স দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র হিমায়েত উল আকিক জানান, আমি ময়মনসিংহ থেকে গৌরীপুর আসছিলাম। শিশুটির সঙ্গে ওদের আচরণ অসংলগ্ন ও কথাবার্তা গড়মিল থাকায় সন্দেহ হয়।

এ দিকে কুমিল্লা কোতয়ালী থানার ওসি মোহাম্মদ আবু সালাম মিয়া জানান, এ ঘটনায় কোতয়ালী থানায় মামলা হয়েছে। গ্রেফতারকৃত দুজনকে আনতে পুলিশ ফোর্স ও শিশু মিরানকে আনতে তার পরিবারের লোকজন ময়মনসিংহের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হয়েছে।

আরও পড়ুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×