নড়াইলে শিক্ষার্থীদের দিয়ে ধানের চারা উত্তোলনের অভিযোগ

  নড়াইল প্রতিনিধি ১৪ জানুয়ারি ২০১৯, ২০:৩৪ | অনলাইন সংস্করণ

বীজতলায় ধানের চারা তুলছে শিক্ষার্থীরা
বীজতলায় ধানের চারা তুলছে শিক্ষার্থীরা

নড়াইলে স্কুলশিক্ষার্থীদের দিয়ে শিক্ষকের জমিতে ইরি ধানের চারা (স্থানীয় ভাষায় বীজতলার পাতো) উত্তোলনের অভিযোগ পাওয়া গেছে স্কুলশিক্ষক রতন বিশ্বাসের বিরুদ্ধে।

ওই শিক্ষক নড়াইল সদর উপজেলার মুলিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক। শিক্ষার্থীরা ওই বিদ্যালয়ের নবম ও দশম শ্রেণিতে পড়াশোনা করে।

অভিভাবকদের অভিযোগ, এলাকায় ইরি ধানের চারা তুলতে বেশ টাকা খরচ হয়। ওই টাকা বাঁচাতেই শিক্ষক রতন বিশ্বাস শিক্ষার্থীদের দিয়ে নিজের জমির পাতো তোলাচ্ছেন। কিন্তু তিনি শিক্ষক হওয়ার কারণে পরীক্ষায় ফেল করানোর ভয়ে তার বিরুদ্ধে কেউ কিছু বলতে সাহস পায় না। যে কারণে শিক্ষক রতন বিশ্বাস গত কয়েকদিন ধরে নবম ও দশম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের দিয়ে পাতো উঠানোর কাজে বাধ্য করাচ্ছেন। জানা গেছে, মুলিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নবম ও দশম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের নানা রকম প্রলোভন দেখিয়ে নিজের বীজতলায় নিয়ে যান পাতো তোলার কাজ করাতেন। ক্লাস ফাঁকি দিয়ে সারা দিন শিক্ষার্থীদের দিয়ে এ কাজ করান তিনি।

শিক্ষার্থী রনি বিশ্বাস,সুদীপ ও আশিষ বিশ্বাস জানায়, আমরা স্বেচ্ছায় স্যারের জমির পাতো তুলেছি। কেউ আমাদের পাতো তুলতে বাধ্য করেননি।

একই প্রসঙ্গে মুলিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক অশোক বিশ্বাস যুগান্তরকে বলেন,‘বিষয়টি সম্পর্কে খোঁজ নেব, এটি সত্য হলে স্কুল পরিচালনা কমিটির কাছে উপস্থাপন করা হবে।’

অভিযুক্ত শিক্ষক রতন বিশ্বাস বলেন, ‘আমার জমির ইরি ধানের চারা অন্যত্র বিক্রি করে দিয়েছি। ধানের চারা উত্তোলনের বিষয়টি ছাত্ররাই বলতে পারবে। এ বিষয় আমি কিছুই জানি না।’

নড়াইল জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো.শাহিদুর রহমান বলেন, ‘শিক্ষার্থীদের দিয়ে নিজের ক্ষেত-খামারের কাজ করানোর বিষয়টি খোঁজখবর নেয়া হবে। বিয়টি সত্য প্রমাণিত হলে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×