কলমাকান্দার আট ইউনিয়নের ৪ চেয়ারম্যানই পলাতক!

  কলমাকান্দা (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি ১৫ জানুয়ারি ২০১৯, ২১:৩৪ | অনলাইন সংস্করণ

নেত্রকোনা

নেত্রকোনার কলমাকান্দা উপজেলার চারটি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান দীর্ঘদিন ধরে পলাতক রয়েছেন। তাদের নামে নাশকতা ও বিস্ফোরক মামলাসহ বিভিন্ন মামলা চলমান রয়েছে।

এতে উপজেলার ওই চারটি ইউনিয়নের বাসিন্দা ও পরিষদের কর্মকাণ্ড বিঘ্নিত হচ্ছে।

ইউনিয়ন পরিষদ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, কলমাকান্দা উপজেলার ৮টি ইউনিয়নের মধ্যে ৪টি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানদের বিরুদ্ধে নাশকতা, বিস্ফোরকসহ বিভিন্ন মামলা দায়ের করা হয়।

এরপর থেকে গ্রেফতারের ভয়ে খারনৈ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল হক, লেংগুড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা যুবদলের সহসভাপতি সাইদুর রহমান ভূঁইয়া, কলমাকান্দা সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা বিএনপির সদস্য শেখ গোলাম মৌলা এবং কৈলাটি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা যুবদলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রুবেল ভূঁইয়া পলাতক রয়েছেন।

ফলে শিক্ষার্থীদের স্কুলে ভর্তির ক্ষেত্রে নাগরিক সনদ ও জন্ম নিবন্ধন সনদ না পেয়ে স্থানীয় অভিভাবকরা চরম বিপাকে পড়েছেন। এ ছাড়া জমি ক্রয়-বিক্রয়, খারিজ, নামজারি, ওয়ারিশান সনদ, অবসর, পেনশন, ভিজিডি, ভিজিএফ বিতরণ, প্রতিবন্ধী ভাতা ও বয়স্ক ভাতাসহ বিভিন্ন সেবাপ্রাপ্তির ক্ষেত্রে ইউপি চেয়ারম্যানের সনদ বাধ্যতামূলক হওয়ায় তা না পেয়ে চরম ক্ষোভ সৃষ্টি হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট ইউনিয়নের অন্তত ১৫ জন বাসিন্দা ক্ষোভ প্রকাশ করে যুগান্তরকে জানান, নাগরিক ও জন্ম সনদসহ বিভিন্ন প্রত্যয়নপত্র না পেয়ে তারা দুশ্চিন্তায় রয়েছেন।

মঙ্গলবার দুপুরে পলাতক চার ইউপি চেয়ারম্যানের মোবাইল ফোনে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করলে তাদের সবকটি মোবাইল ফোনই বন্ধ পাওয়া যায়।

পুলিশ সুপার জয়দেব চৌধুরী বলেন, ‘আদালত থেকে জামিন পাওয়ার সাপেক্ষে তারা স্বাভাবিকভাবে কার্যক্রম পরিচালনা করতে পারেন।’

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. জাকির হোসেন যুগান্তরকে বলেন, চারজন ইউপি চেয়ারম্যান পরিষদে না আসায় পরিষদের কর্মকাণ্ড বিঘ্নিত হচ্ছে। আমি ইতিমধ্যে বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবগত করেছি।

তিনি আরও বলেন, ‘স্থানীয় সরকার (ইউনিয়ন পরিষদ আইন) ২০০৯ এ ৩৪ ধারা অনুযায়ী সাময়িক বরখাস্ত বা অপসারণ অথবা পরপর তিনটি সভায় উপস্থিত না হওয়া, দুর্নীতি, মৃত্যুসহ সুনির্দিষ্ট কারণে চেয়ারম্যানের পদ শূন্য ঘোষিত না হলে প্যানেল চেয়ারম্যানদের দায়িত্ব দেয়ার সুযোগ নেই।’

জেলা প্রশাসক মঈনুল ইসলাম বলেন, কলমাকান্দার ইউএনও মো. জাকির হোসেন জেলা আইনশৃঙ্খলা সভায় জনদুর্ভোগের বিষয়টি উপস্থাপন করেছেন।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×