ফতুল্লায় রেললাইনে বেঁধে গার্মেন্টকর্মীকে হত্যাচেষ্টা, গ্রেফতার-৩

  ফতুল্লা (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি ১৬ জানুয়ারি ২০১৯, ২২:৩৬ | অনলাইন সংস্করণ

গার্মেন্টকর্মীকে হত্যার উদ্দেশ্যে রেললাইনে বেঁধে রাখায় আটককৃত ৩ জন
গার্মেন্টকর্মীকে হত্যার উদ্দেশ্যে রেললাইনে বেঁধে রাখায় আটককৃত ৩ জন

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় পূর্বশত্রুতার জের ধরে সহকর্মীরা মারধর করে টাকা ও মোবাইল ফোন লুটে নিয়ে প্রদীপ চন্দ্র রায় (২৮) নামে এক গার্মেন্টকর্মীকে হত্যার উদ্দেশ্যে রেললাইনে বেঁধে রাখেন।

ফজরের আজানের সময় পথচারীরা হাত-পা মুখ বাঁধা অবস্থায় রেললাইন থেকে ওই গার্মেন্টকর্মীকে উদ্ধার করে পুলিশে খবর দেয়।

মঙ্গলবার ভোরে ফতুল্লার ইসদাইর রেললাইন বটতলা এলাকায় এ ঘটনার পর বুধবার রাতে ৩ জনকে গ্রেফতার করে বিষয়টি নিশ্চিত করেছে পুলিশ।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন সাইফুল ইসলাম (২২), রাকিব (৩০) ও জুয়েল (২৭)। তারা প্রত্যেকে ফতুল্লার শাসনগাওস্থ ফকির এ্যাপারেলসের শ্রমিক। তাদের গ্রামের বাড়ি বিভিন্ন জেলায়।

একই গার্মেন্টের শ্রমিক প্রদীপ দিনাজপুর জেলার কাহালু থানার উতরাইল গ্রামের মৃত রাম চন্দ্র রায়ের ছেলে। সে ফতুল্লার নবীনগরবাজার সংলগ্ন জামাল হোসেনের বাড়িতে ভাড়া থেকে গার্মেন্টে কাজ করেন।

এর সত্যতা নিশ্চিত করে ফতুল্লা মডেল থানার ওসি মঞ্জুর কাদের জানান, পূর্বশত্রুতার জের ধরে গ্রেফতারকৃতরাসহ তাদের অন্যান্য সহযোগীদের নিয়ে প্রদীপকে মঙ্গলবার ভোরে শাসনগাঁও থেকে অপহরণ করে মারধরের পর পকেট থেকে ১০ হাজার টাকা ও ব্যবহৃত একটি মোবাইল ফোন লুটে নেয়।

তিনি জানান, এরপর সিএনজিতে তুলে ইসদাইর এলাকার বটতলা নামক স্থানে নিয়ে হত্যার উদ্দেশ্যে প্রদীপকে রেললাইনে বেঁধে রাখে। একই সঙ্গে চিৎকার করতে যাতে না পারে এ জন্য প্রদীপের মুখও কাপড় দিয়ে বেঁধে রেখে পালিয়ে যায় তার সহকর্মীরা।

ওসি জানান, ফজরের আজানের সময় স্থানীয়রা দেখতে পেয়ে প্রদীপকে উদ্ধার করে থানায় খবর দেয়। পরে পুলিশ গিয়ে প্রদীপকে হেফাজতে নিয়ে চিকিৎসা করিয়ে থানায় নিয়ে এসে দুর্বৃত্তদের পরিচয় শনাক্ত করে ৩ জনকে গ্রেফতার করেছে। অন্যদেরও গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×