পবা উপজেলা পরিষদ নির্বাচন স্থগিত

প্রকাশ : ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ২২:৫০ | অনলাইন সংস্করণ

  রাজশাহী ব্যুরো

সীমানাসংক্রান্ত জটিলতায় রাজশাহীর পবা উপজেলা পরিষদের নির্বাচন এক বছরের জন্য স্থগিত করে দিয়েছেন হাইকোর্ট। উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের প্রথম ধাপে আগামী ১০ মার্চ এখানে ভোটগ্রহণের কথা ছিল।

এখন রাজশাহী বিভাগের মধ্যে পবা একমাত্র উপজেলা যেখানে পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের প্রথম ধাপে নির্বাচন হচ্ছে না।

রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের (রাসিক) সঙ্গে পবা উপজেলার পারিলা ইউনিয়নের মুরশইল ও কেচুয়াতৈল গ্রামের সীমানা নিয়ে জটিলতায় হাইকোর্টে রিট করেন এই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সাইফুল বারী ভুলু।

এর প্রেক্ষিতে সোমবার শুনানি হলে নির্বাচন এক বছরের জন্য স্থগিত করা হয়।

মঙ্গলবার এ সংক্রান্ত কাগজপত্র হাতে পেয়ে বিষয়টি সাংবাদিকদের নিশ্চিত করেন পারিলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সাইফুল বারী ভুলু।

তিনি জানান, ২০১৫ সালের ডিসেম্বরেও তিনি বিষয়টি নিয়ে হাইকোর্টে রিট করেছিলেন। তখনও উপজেলা পরিষদের উপনির্বাচন স্থগিত হয়ে যায়।

পবা উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মীরদাহ মোসাম্মদ শাহনাজ পারভীন বলেন, নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর আমরা নির্বাচনের সব প্রস্তুতি নিচ্ছিলাম। এ অবস্থায় মঙ্গলবার নির্বাচন স্থগিতসংক্রান্ত কাগজপত্র হাতে পেলাম। সেগুলো জেলা নির্বাচন কর্মকর্তার কাছে পাঠিয়ে দিয়েছি।

২০১৪ সালের চতুর্থ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে পবায় দ্বিতীয়বারের মতো উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন জামায়াতের নেতা মকবুল হোসেন। ওই নির্বাচনে ভাইস চেয়ারম্যান হন ওয়ার্কার্স পার্টির নেতা আশরাফুল হক তোতা এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান হন জামায়াতের খায়রুন নেছা।

পরের বছর উপজেলা চেয়ারম্যানের মৃত্যু হলে উপনির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হয়। কিন্তু ভোটগ্রহণের তিন দিন আগে এ নির্বাচন স্থগিত করে দেন হাইকোর্ট। এবারও এক বছরের জন্য এ নির্বাচন স্থগিত করা হলো। বর্তমানে পবায় ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান খায়রুন নেছা।