সুবর্ণচরে থানার ব্যারাকে নারী পুলিশ কনস্টেবলের আত্মহত্যা

  যুগান্তর রিপোর্ট, নোয়াখালী ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ২১:১১ | অনলাইন সংস্করণ

সুবর্ণচরে থানার ব্যারাকে নারী পুলিশ কনস্টেবলের আত্মহত্যা
প্রতীকী ছবি

নোয়াখালী সুবর্ণচরে এক নারী পুলিশ কনস্টেবল আত্মহত্যা করার খবর পাওয়া গেছে। শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টায় উপজেলা চর জব্বর থানার পাশের ব্যারাকে শিপ্রারাণী দাস (২৪) নামে ওই কনস্টেবল সিলিং ফেনে ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেন বলে পুলিশ জানিয়েছে।

সহকর্মী আত্মহত্যার ৩ ঘণ্টা পর ব্যারাকের অপর নারী কনস্টেবল থানা থেকে এসে দরজা খুলে ঢুকে ফেনের সঙ্গে শিপ্রারাণী দাসকে ঝুলন্ত দেখে ওসিকে জানান। ওসিসহ অপর পুলিশ কর্মকর্তা ঘটনাস্থলে এসে নারী কনস্টেবলের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেন।

অপরদিকে একটি সূত্র জানায়, পারিবারিক কলহের জের ধরে কনস্টেবল শিপ্রারাণী দাস আত্মহত্যা করেছেন। শিপ্রারাণী কুমিল্লা জেলার দেবীদ্বার উপজেলার ফুলতলা গ্রামের পুলিশ কনস্টেবল রাজিবের স্ত্রী। রাজিব চাঁদপুর থানায় কর্মরত।

শিপ্রারাণী দাসের আত্মহত্যার খবরে পুলিশ সুপার ইলিয়াছ শরীফ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হাসান মোহাম্মদ জনিসহ (সদর সার্কেল) অপর পুলিশ কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

থানা সূত্র জানায়, কনস্টেবল শিপ্রারাণী দাস গত ৩-৪ বছর আগে একাই চর জব্বর থানায় যোগদান করেন।

শিপ্রারাণী দাসসহ ৫ জন নারী পুলিশ কনস্টেবল থানার পাশের ব্যারাকে থাকতেন। শুক্রবার সকাল ১০টায় ব্যারাকের ওই কক্ষের অপর নারী কনস্টেবলদের থানায় যেতে অনুরোধ করে শিপ্রারাণী দাস ব্যারাকে একাই থেকে যান। সবাই চলে গেলে শিপ্রারাণী দাস সিলিং ফেনের সঙ্গে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেন। দুপুর দেড়টায় থানার ডিউটি অফিসার কনস্টেবল শিপ্রারাণী দাসকে থানায় আসতে একাধিকবার মোবাইল ফোনে কল করলে রিসিভ না করায় সন্দেহ হয়। এতে তিনি অপর নারী কনস্টেবলদের ব্যারাকে পাঠান। তারা এসে জানালা দিয়ে দেখতে পান শিপ্রারাণী দাস ফেনের সঙ্গে ঝুলে আছেন।

এ সময় তারা ওসিকে জানান। খবর পেয়ে ওসিসহ পুলিশ এসে দরজা ভেঙে লাশ নিচে নামান।

এ ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ সুপার, অতিরিক্ত পুলিশ সুপারসহ (সদর সার্কেল) ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে পরিদর্শন করেন। থানায় জিডি করে কনস্টেবলের লাশ নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়।

ওসি (তদন্ত) মো. ইব্রাহিম মোবাইল ফোনে যুগান্তরকে জানান, নারী কনস্টেবল শিপ্রারাণী দাস পারিবারিক কলহের জের ধরে আত্মহত্যা করতে পারেন। পুলিশ সুপারসহ অপর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত দেবেন।

এদিকে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) হাসান মোহাম্মদ জনি মোবাইল ফোনে যুগান্তরকে জানান, চর জব্বর থানার নারী কনস্টেবল শিপ্রারাণী দাসের সঙ্গে তার স্বামীর পারিবারিক কলহের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ব্যাপারে খতিয়ে দেখা হবে।

আরও পড়ুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
--
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×