বাউফলে মৃত ব্যক্তির নামে গ্রেফতারি পরোয়ানা!

  বাউফল (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৭:১৮ | অনলাইন সংস্করণ

মৃত ব্যক্তি
মৃত ব্যক্তি (প্রতীকী ছবি)

পটুয়াখালীর বাউফলে মো. আবুল হোসেন নামে এক ব্যক্তি মারা যাওয়ার ৫ মাস পরে তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা দিয়েছেন আদালত।

মৃত ব্যক্তির বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি হওয়ায় বিষয়টি নিয়ে এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে।

জানা গেছে, মৃত আবুল হোসেন এবং তার অপর ভাই মো. খলিলুর রহমানকে আসামি করে ২০১৭ সালে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আমলি আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন তাদের ভগ্নিপতি মো. জসিম মৃধা। আদালত অভিযোগের বিষয়টি আমলে নিয়ে বাউফল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জসিম উদ্দিন খানকে সরেজমিন তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিল করার নির্দেশ প্রদান করেন।

আবুল হোসেন মারা যাওয়ার ৪ মাস পরে ২০১৮ সালের ২৩ ডিসেম্বর আদালতে ওই তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করেন বাউফল সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. জসিম উদ্দিন খান। ওই প্রতিবেদনে তিনি উল্লেখ করেন বাদীর মানিত সাক্ষী এবং পার্শ্ববর্তী লোকজনের সঙ্গে কথা বলে বাদীর অভিযোগের সত্যতা পেয়েছেন। প্রতিবেদনের কোথাও আসামি মো. আবুল হোসেন মৃত্যুবরণ করেছেন এমন কথা উল্লেখ করা নেই। তার এমন প্রতিবেদনের ওপর ভিত্তি করে আদালত ওই দুই আসামির বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন।

বাউফল থানার ওসি খন্দকার মোস্তাফিজুর রহমান গ্রেফতারি পরোয়না জারি হওয়ার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

এ ঘটনার মৃত আবুল হোসেনের ছোট ভাই মো. খলিলুর রহমান বলেন, একটি মিথ্যা এবং সাজানো মামলায় কোনো ধরনের সরেজমিন তদন্ত ছাড়াই আমার এবং আমার ভাইয়ের বিরুদ্ধে প্রতিবেদন দিয়েছেন চেয়ারম্যান জসিম উদ্দিন খান। যার কারণেই এমন ঘটনা ঘটেছে, আমি এই ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত এবং বিচার চাই।

এ বিষয়ে বাউফল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. জসিম উদ্দিন খানের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, মামলার বাদী আমার ইউনিয়নের বাসিন্দা এবং বিবাদীরা আমার পার্শ্ববর্তী মদনপুরা ইউনিয়নের বাসিন্দা। মামলায় উল্লিখিত সাক্ষীগণের জবানবন্দির ভিত্তিতে আমি প্রতিবেদন দাখিল করেছি। কিন্তু আসামি মো. আবুল হোসেন মারা গেছেন এই বিষয়টি কেউ আমাকে জানায়নি। তাই এই ভুল বোঝাবুঝি তৈরি হয়েছে।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
--
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×