এক বছরে আমি নিজেও সন্তুষ্ট হতে পারিনি: রসিক মেয়র

প্রকাশ : ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ২২:৫৪ | অনলাইন সংস্করণ

  রংপুর ব্যুরো

সিটি কর্পোরেশনের উদ্যোগে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা

রংপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মো. মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা বলেছেন, গত এক বছরে রংপুর সিটি করপোরেশনের যে উন্নয়ন কর্মকাণ্ড পরিচালিত হয়েছে তাতে আমি নিজেও সন্তুষ্ট হতে পারিনি।

তিনি বলেন, গত মেয়র এর সময় বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজের জন্য ১২টি দরপত্রের বিপরীতে কার্যাদেশ দেয়া হয়েছিল। সে সব নির্মাণকাজ ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের অবহেলার কারণে বন্ধ হয়ে গেছে। ফলে এসব দরপত্রের কার্যাদেশ বাতিল করা হয়েছে।

মঙ্গলবার বিকালে রংপুর সিটি কর্পোরেশন চত্বরে বর্তমান পরিষদের এক বছরপূর্তি উপলক্ষে আয়োজিত নাগরিকদের মুখোমুখি অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতাকালে এসব কথাগুলো বলেন মেয়র।

তিনি বলেন, সিটি কর্পোরেশন এলাকায় চলমান উন্নয়নকাজ কিছুটা হলেও থমকে গেছে। আমরা সেই সব ঠিকাদারদের চিহ্নিত করে তাদের কাজ স্থগিত করে দিয়েছি এবং পুনরায় দরপত্রের ব্যবস্থা গ্রহণের প্রক্রিয়া চালাচ্ছি।

মেয়র মো. মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা বলেন, নির্বাচনী ইশতেহার অনুযায়ী রংপুর সিটিকে একটি নাগরিকবান্ধব স্মার্ট আধুনিক নগরী গড়ে তোলার কাজে আত্মনিয়োগ করেছি। গত এক বছরে আমার তত্ত্বাবধানে রাস্তাঘাট, ব্রিজ কালভার্ট, ড্রেন নির্মাণ, সড়কবাতি স্থাপন, পুনর্নির্মাণ, উন্নয়ন, রক্ষণাবেক্ষণে যুগান্তকারী পদক্ষেপ শুরু হয়েছে।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রচেষ্টায় ইতিমধ্যেই ৩০৬ কোটি ৪৮ লাখ টাকা ব্যয়ে বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ড চলমান রয়েছে। ৮৮ কোটি ২ লাখ টাকার দরপত্র আহ্বান প্রক্রিয়াধীন আছে, যা আগামী এক বছরে বাস্তবায়ন হয়ে গেলে নগরবাসীর নাগরিক সুবিধা অনেকাংশে বেড়ে যাবে। নগরবাসীর সেবক হিসেবে থাকতে চাই। নগরপিতা হিসেবে নয়।

রংপুর সিটি কর্পোরেশনের সচিব আবু সালেহ মোহাম্মদ মুসা জঙ্গির সভাপতিত্বে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন রসিক প্যানেল মেয়র সামসুল হক, মাহমুদুর রহমান টিটু, কাউন্সিলর মাহাবুব রহমান মঞ্জু, তৌহিদুল ইসলাম, মীর মোহাম্মদ  জামাল, রহমতুল্লাহ, মহিলা কাউন্সিলর নাছিমা আমিন, মোখলেছুর রহমান তরু, জাকারিয়া আলম শিপলু, মো. আমিনুল ইসলাম, মোছা. ফেরদৌসী বেগম, মো. শফিকুল ইসলাম মিঠু, মাহাবুবুর রহমান মঞ্জু, সেকেন্দার আলী, তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী এমদাদ হোসেন ও নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আজম আলী প্রমুখ।

এর আগে এদিনটি পালন উপলক্ষে সিটি কর্পোরেশনের উদ্যোগে একটি বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা সিটি কর্পোরেশন থেকে শুরু করে নগরীর বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে।