ত্রিশালের বিলে গ্যাস অনুসন্ধান কূপে আগুন!
jugantor
ত্রিশালের বিলে গ্যাস অনুসন্ধান কূপে আগুন!

  ত্রিশাল (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি  

২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ২২:৩৪:৪৪  |  অনলাইন সংস্করণ

ত্রিশালের বিলে গ্যাস অনুসন্ধান কূপে আগুন

পেট্রোবাংলার তেল-গ্যাস অনুসন্ধান বিভাগের কর্মীরা গত শনিবার বোরিং করে চলে গেলেও বোরিংয়ের মুখ থেকে বুদবুদ আকারে ওঠা গ্যাসে আগুন দিয়েছে স্থানীয় উৎসুক জনতা। পরে সেই আগুনে অনেকে ভয়ে স্থানীয় ফায়ার সার্ভিসকে খবর দিলে তারা একবার নিভিয়েও গেছেন।

তবে এখানেই শেষ নয়। এখন অন্য বোরিংয়ের মুখেও জ্বলছে আগুন। ঘটনাটি ঘটেছে ময়মনসিংহের ত্রিশাল উপজেলার মঠবাড়ী ইউনিয়নের বারার বিলে।

মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে ওই বিলে গিয়ে দেখা যায়, উপজেলার মঠবাড়ী ইউনিয়নের মঠবাড়ী উত্তরপাড়া পল্লীবাজার থেকে প্রায় ৪০০ মিটার পশ্চিমে বারার বিলে তেল-গ্যাস অনুসন্ধানে পেট্রোবাংলার পক্ষ থেকে ওই বিল ও আশপাশের ধানের জমিতে ১৫টি স্থানে ৭০ফিট করে বোরিং করা হয়। বোরিং করা স্থানগুলোতে সাংকেতিক চিহ্নও দিয়ে যায় তারা।

বোরিং করা ১৫টি স্থানের অধিকাংশের গোড়া দিয়েই বুদবুদ করে উঠছে গ্যাস। তার মধ্যে ২টিতে স্থানীয় উৎসুক জনতা আগুন দিলে পাঁচ দিন ধরে একটানা জ্বলছে আগুন। আবার উৎসুক মানুষ দেখার জন্য সেখানে ভিড়ও জমাচ্ছেন।

দিনের বেলায় লোকজনের আনাগোনা তো আছেই রাতের বেলায়ও বিলের মাঝে আগুন জলছে এমন দৃশ্য দেখতে অনেকে আসেন সেখানে। স্থানীয় জাহাঙ্গীরের ধানের ক্ষেতে এ আগুনটি জ্বলছে। যদিও পেট্রোবাংলার পক্ষ থেকে ওই স্থানে কাউকে না যাওয়ার পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

স্থানীয় সোহেল মিয়া জানান, পেট্রোবাংলার লোকজন শনিবার ৭০ফিট পাইলিং করে ১৫টি স্থানে। প্রতিটি স্থানেই আলাদা আলাদা দেয়া আছে সাংকেতিক চিহ্ন। দুটি স্থান দিয়ে আগুন জ্বলছে অনবরত।

ত্রিশাল ফায়ার সার্ভিস অফিসের স্টেশন অফিসার মুনিম সারোয়ার জানান, খবর পেয়ে আমরা শনিবার আগুন নিভিয়ে দিয়ে আসি।

পেট্রোবাংলার গণসংযোগ কর্মকর্তা মো আরিফ জানান, এখানে সম্ভাব্য গ্যাসফিল্ড হতে পারে। তাই এখানে পেট্রোবাংলার পক্ষ থেকে পরীক্ষামূলক কিছু কাজ করা হয়েছে। তবে এতে হতাশা বা ভয়ের কোনো কারণ নেই।

ত্রিশালের বিলে গ্যাস অনুসন্ধান কূপে আগুন!

 ত্রিশাল (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি 
২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১০:৩৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
ত্রিশালের বিলে গ্যাস অনুসন্ধান কূপে আগুন
ত্রিশালের বিলে গ্যাস অনুসন্ধান কূপে আগুন

পেট্রোবাংলার তেল-গ্যাস অনুসন্ধান বিভাগের কর্মীরা গত শনিবার বোরিং করে চলে গেলেও বোরিংয়ের মুখ থেকে বুদবুদ আকারে ওঠা গ্যাসে আগুন দিয়েছে স্থানীয় উৎসুক জনতা। পরে সেই আগুনে অনেকে ভয়ে স্থানীয় ফায়ার সার্ভিসকে খবর দিলে তারা একবার নিভিয়েও গেছেন।

তবে এখানেই শেষ নয়। এখন অন্য বোরিংয়ের মুখেও জ্বলছে আগুন। ঘটনাটি ঘটেছে ময়মনসিংহের ত্রিশাল উপজেলার মঠবাড়ী ইউনিয়নের বারার বিলে।

মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে ওই বিলে গিয়ে দেখা যায়, উপজেলার মঠবাড়ী ইউনিয়নের মঠবাড়ী উত্তরপাড়া পল্লীবাজার থেকে প্রায় ৪০০ মিটার পশ্চিমে বারার বিলে তেল-গ্যাস অনুসন্ধানে পেট্রোবাংলার পক্ষ থেকে ওই বিল ও আশপাশের ধানের জমিতে ১৫টি স্থানে ৭০ফিট করে বোরিং করা হয়। বোরিং করা স্থানগুলোতে সাংকেতিক চিহ্নও দিয়ে যায় তারা।

বোরিং করা ১৫টি স্থানের অধিকাংশের গোড়া দিয়েই বুদবুদ করে উঠছে গ্যাস। তার মধ্যে ২টিতে স্থানীয় উৎসুক জনতা আগুন দিলে পাঁচ দিন ধরে একটানা জ্বলছে আগুন। আবার উৎসুক মানুষ দেখার জন্য সেখানে ভিড়ও জমাচ্ছেন।

দিনের বেলায় লোকজনের আনাগোনা তো আছেই রাতের বেলায়ও বিলের মাঝে আগুন জলছে এমন দৃশ্য দেখতে অনেকে আসেন সেখানে। স্থানীয় জাহাঙ্গীরের ধানের ক্ষেতে এ আগুনটি জ্বলছে। যদিও পেট্রোবাংলার পক্ষ থেকে ওই স্থানে কাউকে না যাওয়ার পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

স্থানীয় সোহেল মিয়া জানান, পেট্রোবাংলার লোকজন শনিবার ৭০ফিট পাইলিং করে ১৫টি স্থানে। প্রতিটি স্থানেই আলাদা আলাদা দেয়া আছে সাংকেতিক চিহ্ন। দুটি স্থান দিয়ে আগুন জ্বলছে অনবরত।

ত্রিশাল ফায়ার সার্ভিস অফিসের স্টেশন অফিসার মুনিম সারোয়ার জানান, খবর পেয়ে আমরা শনিবার আগুন নিভিয়ে দিয়ে আসি।

পেট্রোবাংলার গণসংযোগ কর্মকর্তা মো আরিফ জানান, এখানে সম্ভাব্য গ্যাসফিল্ড হতে পারে। তাই এখানে পেট্রোবাংলার পক্ষ থেকে পরীক্ষামূলক কিছু কাজ করা হয়েছে। তবে এতে হতাশা বা ভয়ের কোনো কারণ নেই।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন