সাংবাদিকদের স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপে উন্নয়ন বাধাগ্রস্ত হয়

  গৌরীপুর (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি ০১ মার্চ ২০১৯, ২২:১৭ | অনলাইন সংস্করণ

গৌরীপুরে সাংবাদিকদের মুক্তির দাবিতে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ
গৌরীপুরে সাংবাদিকদের মুক্তির দাবিতে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ

দৈনিক যুগান্তরের সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলা অবিলম্বে প্রত্যাহার, যুগান্তরের কেরানীগঞ্জ প্রতিনিধি আবু জাফর, লোহাগড়া প্রতিনিধি মো. সেলিম উদ্দিনের মুক্তির দাবিতে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শুক্রবার ময়মনসিংহের গৌরীপুরে সাংবাদিক সমাজের উদ্যোগে ঐতিহাসিক শহীদ হারুণ পার্কে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

প্রতিবাদ সমাবেশ ও মানববন্ধন শেষে বিশাল বিক্ষোভ মিছিল শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে।

বাংলাদেশ সাংবাদিক সমিতি গৌরীপুর শাখার সভাপতি ও গৌরীপুর প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি ম. নূরুল ইসলাম মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন।

তিনি বলেন, সরকারের উন্নয়ন, সংবাদপত্রের স্বাধীনতা, সাংবাদিকদের লেখনী আর গণতন্ত্র একসূত্রে গাঁথা। সাংবাদিকদের স্বাধীনতা হস্তক্ষেপ উন্নয়ন বাধাগ্রস্ত হয়। সত্য প্রকাশের কারণে গ্রেফতারকৃত সাংবাদিকদের মুক্তির দাবি জানাচ্ছি। ডিজিটাল আইনে দায়েরকৃত মামলা প্রত্যাহার দাবি জানাচ্ছি।

গৌরীপুর সাংবাদিক ঐক্য ফোরামের সভাপতি বেগ ফারুক আহাম্মেদ বলেন, দুর্নীতির বিরুদ্ধে লড়াই করে সাংবাদিকরা, যুদ্ধের ময়দানেও পিছপা হয় না সাংবাদিক। দৈনিক যুগান্তরের সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত সব মামলা প্রত্যাহার ও সাংবাদিকদের মুক্তি চাই।

এ সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক ফারুক আহাম্মেদ বলেন, সাংবাদিকরা সত্য লেখায় জেলখানায় যেতে হচ্ছে, এটা দুঃখজনক। এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি।

গৌরীপুর প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন শাহীন বলেন, সাংবাদিক আবু জাফর আর সেলিম উদ্দিনকে অবিলম্বে মুক্তি দিন। তাদের মুক্তি দিয়ে প্রমাণ করতে হবে সরকারও দুর্নীতি বিরুদ্ধে।

বিশিষ্ট ছড়াকার সাংবাদিক আ জ ম জহিরুল ইসলাম বলেন, দুই সাংবাদিককে গ্রেফতার ও সাংবাদিকদের নামে ডিজিটাল আইনে মামলা মুক্ত সাংবাদিকতার অন্তরায়। মুক্ত সাংবাদিকতা না থাকলে দুর্নীতিবাজরা দুর্নীতির মহোৎসব করবে।

গৌরীপুর রিপোর্টাস ক্লাবের সভাপতি আরিফ আহাম্মেদ বলেন, সেই ডিজিটাল আইন এখন সাংবাদিকদের গলার কাঁটা হয়ে দাঁড়িয়েছে। এ আইন বাতিল না করলে সাংবাদিকদের হাত-পা বেঁধে রাখার মতোই মনে হবে। এতে অনিয়ম-দুর্নীতি বাড়বেই।

এ সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক জহিরুল হুদা লিটন বলেন, সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে গ্রেফতার করে প্রশাসন দুঃসাহসিকতার পরিচয় দিয়েছে। বিচার বিভাগের উচিত দুর্নীতিবাজ ধরে আনা আর দুর্নীতির বিরুদ্ধে যুদ্ধে নামা কলম সৈনিকদের পুরস্কৃত করা। জেলখানা হবে দুর্নীতিবাজদের স্থান, সাংবাদিকদের নয়।

অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন গৌরীপুর প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও দৈনিক যুগান্তর গৌরীপুর প্রতিনিধি মো. রইছ উদ্দিন।

মামলা প্রত্যাহার ও সাংবাদিকদের মুক্তির দাবিতে বক্তব্য রাখেন যমুনা টেলিভিশনের জেলা প্রতিনিধি হোসাইন শাহীদ, ক্যামেরাপারসন দেলোয়ার হোসেন, গৌরীপুর প্রেসক্লাবের সাবেক সহসভাপতি হুমায়ুন কবীর, কবি নুরুল আবেদিন, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মো. সিরাজুল ইসলাম, গৌরীপুর উন্নয়ন সংগ্রাম পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক ও দৈনিক প্রতিদিনের সংবাদের প্রতিনিধি রাকিবুল ইসলাম রাকিব, দৈনিক আজকালের খবরের প্রতিনিধি মোস্তাফিজুর রহমান বোরহান, সাংবাদিক আব্দুর কাদির, আবুল কালাম আজাদ, উপজেলা স্বজন সমাবেশের সভাপতি মো. এমদাদুল হক, সহসম্পাদক মো. মিলন, সাংগঠনিক সম্পাদক সামছুজ্জামান আরিফ, গোলাম কিবরিয়া, পৌর স্বজন সমাবেশের সভাপতি শ্যামল ঘোষ, প্রমুখ।

শনিবার ‘মামলা প্রত্যাহার ও গ্রেফতারকৃতদের নিঃশর্ত মুক্তি চাই’ স্লোগানে স্বাক্ষর সংগ্রহ ও রোববার প্রধানমন্ত্রী বরাবরে স্মারকলিপি পেশ।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×