‘আমি কিছু করিনি’ আকুতি জানিয়েও রেহাই পায়নি শিশুটি (ভিডিও)

প্রকাশ : ২০ মার্চ ২০১৯, ০১:০৫ | অনলাইন সংস্করণ

  ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি

ব্যস্তবহুল বাজারের একটি সড়কে আবারও নির্যাতিত হল ৫ থেকে ৭ বছর বয়সী এক শিশু। কাঠ চুরির অপবাদ দিয়ে ওই শিশুকে নির্যাতন করা হয় বলে জানা গেছে।

এ ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার দুপুরে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগর উপজেলার আমতলি বাজারের সড়কে।

ওই শিশুকে নির্যাতনের একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ইতোমধ্যে ছড়িয়ে পড়েছে।

মঙ্গলবার ফেসবুকে আমরাই ব্রাহ্মণবাড়িয়া নামের একটি গ্রুপ পেইজে ওই শিশুকে নির্যাতনের ৩০ সেকেন্ডের একটি ভিডিও পোস্ট করে।

ভিডিওটিতে দেখা গেছে, মাঝ বয়সী এক ব্যক্তি ওই শিশুটির চড়-থাপ্পর দিতে দিতে টেনে-হিঁচড়ে নিয়ে যাচ্ছেন। এসময় শিশুটি নির্যাতনকারীর পায়ে ধরে ‘আমি কিছু করিনি’ বলে কেঁদে কেঁদে বারবার আকুতি জানাচ্ছে। কিন্তু তাতে মন গলছে না নির্যাতনকারীর।

ভিডিওটি দেখে এই ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে অনেকেই ওই নির্যাতনকারীর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন।

তবে ওই শিশু ও নির্যাতনকারীর নাম-পরিচয় জানা যায়নি।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে বিজয়নগর থানা পুলিশের পরিদর্শক (তদন্ত) আদিত্য বলেন, ভিডিওটি আমরা দেখেছি। শিশু ও নির্যাতনকারীর নাম-পরিচয় এখনও জানা যায়নি।

তবে এ বিষয়ে খোঁজ নিয়ে নির্যাতনকারীর বিরুদ্ধে দ্রুত আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান তিনি।

শিশু নির্যাতনের এ ভিডিওটি ধারণ করেন আল মাহমুদ ভূইয়া নামের এক স্থানীয়।

 

তিনি বলেন, দুপুরে তিনি ব্যক্তিগত কাজে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সদর থেকে বিজয়নগর উপজেলা সদরে যাচ্ছিলাম। এ সময় ‘চৌধুরী ট্রেডিং’ নামে একটি কাঠের দোকানের সামনে কাঠ চুরির অপবাদ দিয়ে ওই শিশুটিকে নির্যাতন করতে দেখি। নির্যাতনের সেই দৃশ্য মোবাইলফোনে ধারন করে ইন্টারনেটে ছেড়ে দেই।

এর চেয়ে বেশি কিছু করার ছিল না বলে জানান এই ব্যক্তি।