নবীগঞ্জের ইউএনওর বিরুদ্ধে আদালতে মামলা

  নবীগঞ্জ (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধি ২১ মার্চ ২০১৯, ১৮:৩২ | অনলাইন সংস্করণ

নবীগঞ্জের ইউএনওর বিরুদ্ধে আদালতে মামলা
ইউএনও মো. তৌহিদ বিন হাসান। ছবি: সংগৃহীত

হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. তৌহিদ বিন হাসানসহ দুজনের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা দায়ের করেছেন মুক্তিযোদ্ধা নূর উদ্দিন আহমেদ (বীরপ্রতীক)।

ক্ষমতা অপব্যবহার করে সম্মানি ভাতা স্থগিত করার অভিযোগ এনে হবিগঞ্জ জেলা জজ আদালতে এ মামলাটি দায়ের করেন তিনি।

মামলার অপর আসামি হলেন নবীগঞ্জ উপজেলার সাতাইহাল গ্রামের মামলার অপর বিবাদী হচ্ছেন নবীগঞ্জ উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা মো. আব্দুর নূর।

মঙ্গলবার দায়ের করা মামলার বিবরণ থেকে জানা গেছে, মহান স্বাধীনতাযুদ্ধে সম্মুখযোদ্ধা হিসেবে কৃতিত্ব রাখায় নূর উদ্দিনকে বীরপ্রতীক খেতাবে ভূষিত করা হয়। একজন মুক্তিযোদ্ধা ও বীরপ্রতীক খেতাবপ্রাপ্ত হওয়ায় তিনি মুক্তিযোদ্ধা কল্যাণ ট্রাস্ট থেকে নিয়মিত সম্মানী ভাতা পেয়ে আসছেন।

অন্যবারের মতো গত বছরের ১৬ আগস্ট উপজেলার ৩০৪ জন মুক্তিযোদ্ধার সম্মানী ভাতার তালিকা উপজেলা সমাজকল্যাণ কর্মকর্তার অফিস থেকে নবীগঞ্জ সোনালী ব্যাংকে পাঠানো হয়। কিন্তু তালিকায় ৬৭ নম্বরে মুক্তিযোদ্ধা নূর উদ্দিনের নাম উল্লেখ করে ‘‘পরবতী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত ভাতা বন্ধ থাকবে’’ বলে মন্তব্য থাকায় ব্যাংক কর্মকর্তা তার ভাতা প্রদানে অপারগতা প্রকাশ করেন।

একইভাবে পরবর্তী সম্মানী ভাতার তালিকায় অনুরূপ মন্তব্য থাকায় মুক্তিযোদ্ধা নূর উদ্দিন ভাতা ও ঈদ বোনাস থেকে বঞ্চিত রয়েছেন।

এ ব্যাপারে নূর উদ্দিন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তার সঙ্গে যোগাযোগ করলে তারা একে অপরের ওপর দায়ভার চাপিয়ে নিজেদের দায়মুক্ত করার চেষ্টা করেন।

মামলায় বলা হয়, একজন মুক্তিযোদ্ধা সম্মানী ভাতার পাশাপাশি তার ‘খেতাবি’ ভাতা পাবেন না মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয় থেকে জারিকৃত এ পর্যন্ত কোনো পরিপত্রে তা উল্লেখ না থাকা সত্ত্বেও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা কোনো শত্রুপক্ষের অবৈধ প্রভাবে প্রভাবিত হয়ে ক্ষমতার অপব্যবহার করছেন।

নূর উদ্দিন বীরপ্রতীক এ পর্যন্ত ৭৫ হাজার টাকা বঞ্চিত রয়েছেন বলে মামলায় উল্লেখ করেছেন।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তৌহিদ বিন হাসানের মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি যুগান্তরকে বলেন,২০১৬ সালের মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের পরিপত্রে একজন মুক্তিযোদ্ধা একাধিক সম্মানী ভাতা গ্রহণ করতে পারবেন না বলে উল্লেখ করা হয়েছে। এর প্রেক্ষিতে জেলা প্রশাসকের সমন্বয়ে গঠিত কমিটি তার ভাতা স্থগিত করেছে।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×