টাঙ্গাইলে আ’লীগ ৮, ৩টিতে বিদ্রোহী ও ১টিতে বহিষ্কৃত বিএনপির জয়

  টাঙ্গাইল প্রতিনিধি ০১ এপ্রিল ২০১৯, ১৩:১১ | অনলাইন সংস্করণ

টাঙ্গাইলে আ’লীগ ৮, ৩টিতে বিদ্রোহী ও ১টিতে বহিষ্কৃত বিএনপির জয়
ছবি: যুগান্তর

চতুর্থ ধাপে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে টাঙ্গাইলের ১২ উপজেলার মধ্যে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ আটটি, আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী তিনটি এবং একটিতে বিএনপির বহিষ্কৃত নেতা জয়লাভ করেছেন। এর মধ্যে তিনটি উপজেলায় বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় আওয়ামী লীগের প্রার্থীরা বিজয়ী হয়েছেন।

রোববার ভোটগ্রহণ শেষে রাতে এ ফল ঘোষণা করা হয়।

টাঙ্গাইল সদর উপজেলায় আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক শাহজাহান আনসারী (নৌকা) ৫৯ হাজার ৯৬৭ ভোট পেয়ে জয়লাভ করেছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী সদর উপজেলা বিএনপির সদ্য বহিষ্কৃত সাধারণ সম্পাদক আজগর আলী (ঘোড়া) ৩৭ হাজার ৭৯৫ ভোট পেয়েছেন।

ভূঞাপুর উপজেলায় আওয়ামী লীগের প্রার্থী আব্দুল হালিম (নৌকা) ২০ হাজার ৬৮০ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী আমিরুল ইসলাম তালুকদার (মোটরসাইকেল) ১৫ হাজার ৯১৪ ভোট পেয়েছেন।

নাগরপুর উপজেলায় বিএনপির বহিষ্কৃত আবদুছ সামাদ দুলাল (ঘোড়া) ৩৫ হাজার ৮৪৫ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে জয়লাভ করেছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগের প্রার্থী কুদরত আলী (নৌকা) ২৮ হাজার ৩৭২ ভোট পেয়েছেন।

ঘাটাইলে উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রার্থী শহিদুল ইসলাম লেবু (নৌকা) ৬৪ হাজার ১০৫ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী মুহাম্মদ আরিফ হোসেন (আনারস) ২৯ হাজার ৮৮৭ ভোট পেয়েছেন।

দেলদুয়ার উপজেলায় আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী জেলা আওয়ামী লীগের উপপ্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মাহমুদুল হাসান মারুফ (আনারস) ২৬ হাজার ৯৯০ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগের প্রার্থী ফজলুল হক (নৌকা) ১৫ হাজার ৮৫৭ ভোট পেয়েছেন।

মির্জাপুর উপজেলায় আওয়ামী লীগ প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান মীর এনায়েত হোসেন মন্টু (নৌকা) ৬৭ হাজার ১০২ ভোট পেয়ে জয়লাভ করেছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপি থেকে সদ্য পদত্যাগকারী সদস্য ফিরোজ হায়দার খান (মোটরসাইকেল) ৩৫ হাজার ১০০ ভোট পেয়েছেন।

সখীপুর উপজেলায় আওয়ামী লীগ প্রার্থী জুলফিকার হায়দার কামাল লেবু (নৌকা) ৫০ হাজার ৫১ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী অধ্যক্ষ আবু সাঈদ (আনারস) ৩৬ হাজার ৪৩৬ ভোট পেয়েছেন।

কালিহাতী উপজেলায় আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আনসার আলী (আনারস) ৬৮ হাজার ৯৮২ ভোট পেয়ে জয়লাভ করেছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ও উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি এবং বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান মোজহারুল ইসলাম তালুকদার ঠাণ্ডু (নৌকা) ২৬ হাজার ৬১৭ ভোট পেয়েছেন।

বাসাইল উপজেলায় আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি কাজী অলিদ ইসলাম (আনারস) ৩৫ হাজার ৩৬১ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হাজী মতিয়ার রহমান গাউস (নৌকা) ১৩ হাজার ৮৭৬ ভোট পেয়েছেন।

এ ছাড়া ধনবাড়ী উপজেলায় আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী হারুনার রশিদ হীরা (নৌকা), মধপুর উপজেলায় আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী ছরোয়ার আলম খান আবু (নৌকা), গোপালপুর উপজেলায় আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী ইউনুস ইসলাম তালুকদার ঠাণ্ডু (নৌকা) বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন।

ঘটনাপ্রবাহ : উপজেলা নির্বাচন ২০১৯

আরও
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×