নাটোরে ঝড়ে আম কুড়াতে গিয়ে শিশুর মৃত্যু

প্রকাশ : ০৩ এপ্রিল ২০১৯, ১৯:২৪ | অনলাইন সংস্করণ

  বড়াইগ্রাম (নাটোর) প্রতিনিধি

নাটোরের বড়াইগ্রামে কালবৈশাখী ঝড়ে বাড়িঘর ও ফসলের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। ভেঙে পড়েছে বৈদ্যুতিক খুঁটি, উপড়ে গেছে অসংখ্য গাছপালা।

ঝড়ের সময় আম কুড়াতে গিয়ে পার্শ্ববর্তী গুরুদাসপুর উপজেলায় গাছচাপায় সাথী খাতুন (৮) নামে এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে।

নিহত সাথী গুরুদাসপুরের নাজিরপুর ইউনিয়নের লক্ষীপুর গ্রামের মজনু মিয়ার মেয়ে। সে স্থানীয় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রী ছিল।

এদিকে উপজেলার কয়েকটি জায়গায় বৈদ্যুতিক খুঁটি ভেঙে পড়ায় বুধবার দুপুর পর্যন্ত উপজেলাজুড়ে বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ ছিল।

জানা গেছে, মঙ্গলবার শেষ বিকালে হঠাৎ কালবৈশাখী ঝড় শুরু হয়। এতে জোয়াড়ী, নদজোয়াড়ী, আহম্মেদপুর, হারোয়াসহ বিভিন্ন এলাকায় কমপক্ষে ২৫টি বাড়ি ভেঙে পড়েছে। বেশকিছু বাড়িঘরের চাল উড়িয়ে নিয়ে গেছে।

এছাড়া আহম্মেদপুরসহ কয়েকটি এলাকায় বৈদ্যুতিক খুঁটি ও গাছপালা ভেঙে পড়লে গোটা এলাকাজুড়ে বৈদ্যুৎ সরবরাহ ব্যবস্থা ভেঙে পড়ে। তবে বিদ্যুৎকর্মীদের তৎপরতায় প্রায় ২২ ঘণ্টা পর বিদ্যুতের স্বাভাবিক সরবরাহ ব্যবস্থা চালু হয়েছে।

গুরুদাসপুর থানার ওসি মোজাহারুল ইসলাম জানান, ঝড়ের সময় আম কুড়াতে গিয়ে পার্শ্ববর্তী গুরুদাসপুর উপজেলায় গাছচাপায় সাথী খাতুন এক শিশু মারা গেছে।