ছাতকে যুবলীগের হামলায় সুস্থ হাতটিও হারাচ্ছেন পঙ্গু নাজমুল

  ছাতক (সুনামগঞ্জ ) প্রতিনিধি ০৭ এপ্রিল ২০১৯, ২২:৩৫ | অনলাইন সংস্করণ

ছাতকে যুবলীগের হামলায় সুস্থ হাতটিও হারাচ্ছেন পঙ্গু নাজমুল
ছাতকে যুবলীগের হামলায় সুস্থ হাতটিও হারাচ্ছেন পঙ্গু নাজমুল

ছাতকে যুবলীগ নেতাকর্মীদের হামলার শিকার হয়েছেন (পঙ্গু) সাবেক প্যানেল চেয়ারম্যান দিলোয়ার হোসেন নাজমুল। তার সুস্থ হাতটি হারানোর আশঙ্কায় দেখা দিয়েছে।

ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে যুবলীগ নেতাকর্মীদের হামলায় বাম পা ও বাম হাতবিহীন নাজমুলের সুস্থ ডান হাত রাম-দা দিয়ে কুপিয়ে ক্ষতবিক্ষত করে সন্ত্রাসীরা।

সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ও আরও কয়েকটি প্রাইভেট ক্লিনিকে চিকিৎসা শেষে বর্তমানে সাবেক এ জনপ্রতিনিধি নিজ বাড়িতে অমানবিক জীবন যাপন করছে।

গ্রামবাসী জানান, গত ২২শে ফেব্রুয়ারি উপজেলার গোবিন্দগঞ্জ- সৈদেরগাঁও ইউনিয়নের গোবিন্দনগর গ্রামের মাঠে মিনিবার ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে দুপক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষের খবর পেয়ে গোবিন্দগঞ্জ পয়েন্ট থেকে নিজ গ্রাম গোবিন্দনগরে গিয়ে রাস্তার পাশে ট্রেচারে ভর করে দাঁড়িয়ে বিষয়টি নিবৃত্ত করার চেষ্টা চালায় নাজমুল।

এ সময় একই গ্রামের আবদুল জলিলের পুত্র যুবলীগ নেতা লোকমান হোসেন, মৃত উস্তার আলীর পুত্র রাকিব আলীর নেতৃত্বে সশস্ত্র লোকজন পঙ্গু দিলোয়ার হোসেন নাজমুলের ওপর অতর্কিত হামলা চালায়। হামলাকারীরা তাকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে মৃত ভেবে রাস্তায় ফেলে চলে যায়। যাওয়ার পথে ইউপি সদস্য আলকাব আলীকে ও কুপিয়ে গুরুতর আহত করেন।

এ ঘটনায় আহত দিলোয়ার হোসেন নাজমুল বাদী হয়ে লোকমান হোসেনকে প্রধান আসামী করে ১৮ জনের নামে থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে গ্রামের আব্দুল ছোবহান ও আব্দুল জব্বারকে পুলিশ গ্রেফতার করে জেল হাজতে পাঠান।

গ্রামের রফিক আলী, নুর আহমদ, মাস্টার আরশ আলী, আফিজ আলী, ইসমাইল আলীসহ ১৫-২০ জন লোকজন জানান, তাদের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজি, চুরিসহ একাধিক মামলার আসামি লোকমান ও তার সহযোগীদের অত্যাচার নির্যাতনে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে এলাকাবাসী।

গোবিন্দগঞ্জে অবৈধ তীর খেলার (শিলং খেলার) মূল এজেন্ট হিসেবেও যুবলীগ নামধারী লোকমান হোসেন বিরুদ্ধে অভিযোগ রয়েছে। সরকার দলীয় দাপট দেখিয়ে এলাকায় সরকারি ভূমিতে সাইনবোর্ড টানিয়ে ব্যাটারিচালিত রিকশার স্ট্যান্ড বসিয়েও চাঁদাবাজিতে লিপ্ত রয়েছেন তিনি।

এ ব্যাপারে ইউপি সদস্য আলকাব আলী জানান, ঘটনার দিন সংঘর্ষের খবর পেয়ে তিনি ঘটনাস্থলে পৌঁছালে তাকেও মারধর করে পালিয়ে যায় লোকমান ও তার সহযোগীরা।

ইউপি চেয়ারম্যান আখলাকুর রহমান জানান, সাবেক ইউপি সদস্য ও প্যানেল চেয়ারম্যান নাজমুলের ওপর হামলার ঘটনা অত্যন্ত দুঃখজনক। জড়িতদের আইনের আওতায় এনে শাস্তি নিশ্চিত করার দাবি জানান তিনি।

ছাতক থানার এসআই ও মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা অরূপ সাগর জানিয়েছেন, এ মামলায় ২ জনকে জেলহাজতে পাঠানো হয়। অন্য আসামিদেরও গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×