মোংলায় সাবেক স্বামীর ছুরিকাঘাতে তরুণী আহত

  মোংলা প্রতিনিধি ১২ এপ্রিল ২০১৯, ২১:৩০ | অনলাইন সংস্করণ

বাগেরহাট

বাগেরহাটের মোংলায় সম্পা হাওলাদার (২৪) নামের এক তরুণীকে চাকু দিয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা চালিয়েছে তারই সাবেক স্বামী। গুরুতর জখম অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন স্বজনরা।

বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার সোনাইলতলা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

মাথা ও মুখমণ্ডলসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে ধারালো অস্ত্রের আঘাতের অসহ্য যন্ত্রনায় এখন হাসপাতালের বিছানায় কাতরাচ্ছে ওই তরুণী।

আহত সম্পার বড় ভাই জালাল হাওলাদার জানান, রাত ৯টার দিকে নিজ ঘরে শিশু সন্তানকে পড়াচ্ছিলেন সম্পা। এ ঘরে অন্য কেউ না থাকার সুযোগে ঘরে ঢুকে আট মাস আগে ডির্ভোস হওয়া তার স্বামী জাহিদ ফকির ধারালো অস্ত্র দিয়ে সম্পার মাথাসহ শরীরের বিভিন্ন অংশে এলোপাতাড়ি কোপাতে থাকে।

এ সময় সম্পার চিৎকারে প্রতিবেশীরা ছুটে এলে পালিয়ে যায় সাবেক স্বামী জাহিদ। পরে ঘটনাস্থল থেকে সম্পাকে উদ্ধার করে নেয়া হয় মোংলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে। প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে অবস্থা সংকটাপন্ন হওয়ায় রাতেই তাকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করেন চিকিৎসক।

মোংলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার ডা. রাফিউল হাসান জানান, সম্পার মাথা, পেটসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে ধারালো অস্ত্রের আঘাত রয়েছে। এ আঘাতে তার ডান হাতের দুটি আঙ্গুল পড়ে গেছে।

সম্পার ছোট ভাই সজিব দাবি করেন, জাহিদ নিয়মিত নেশা করে তার বোনকে মারধর করতো। এ জন্য আট মাস আগে জাহিদকে তার বোন সম্পা তালাক দেয়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে ঘরে কেউ না থাকায় রাতে জাহিদ তার বোনকে চাকু দিয়ে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা করে।

এ ঘটনায় শুক্রবার দুপুর পর্যন্ত থানায় কোনো অভিযোগ করা হয়নি। তবে সম্পার চিকিৎসা শেষ করেই মামলা দায়ের করবেন বলে জানিয়েছেন তার স্বজনরা।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×