নুসরাত হত্যা

‘আল্লাহর কাছে ফরিয়াদ করে বোন হত্যার বিচার চেয়েছি’

প্রকাশ : ২২ এপ্রিল ২০১৯, ১৩:১১ | অনলাইন সংস্করণ

  ফেনী প্রতিনিধি

ফেনীতে মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফির কবর জিয়ারত। ছবি: সংগৃহীত

‘এ বছর শবেবরাতের রাতে আমাদের বোনটি আর বেঁচে নেই, খুনিরা তাকে বাঁচতে দেয়নি। পুরো পরিবারের মধ্যমণি ছিল আমাদের বোনটি। শবেবরাতের রাতে বোন সবাইকে নিয়ে ইবাদত বন্দেগির মাধ্যমে রাতটা পার করত। আল্লাহর কাছে ফরিয়াদ করেছি। এর পাশাপাশি মহান আল্লাহর কাছে এ নির্মম হত্যার বিচারও চেয়েছি।’

সোমবার সকালে ফেনীর সোনাগাজী আল হেলাল একাডেমির পাশে কবরস্থানে মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফির কবর জিয়ারতের পর এসব কথা বলেন বড় ভাই মাহমুদুল হাসান নোমান।

নুসরাতের ভাই নোমান বলেন, বোন বেঁচে থাকলে পরিবারের জন্য হালুয়া-রুটি ও সুস্বাদু খাবার রান্না করত। আমরা এ ভাগ্য রজনীতে মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামিনের কাছে বোনের রুহের মাগফিরাতের জন্য দোয়া করেছি। বোন যেন জান্নাতের বাসিন্দা হতে পারে সে জন্য আল্লাহর কাছে ফরিয়াদ করেছি। 

নোমান বলেন, আমরা বাংলাদেশ সরকারের কাছেও আমাদের বোনের হত্যার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই। যাতে আর কোনো ভাইকে বোন হারিয়ে আর্তনাদ করতে না হয়। বোনের শূন্যতায় আর জেন কাউকে কাঁদতে না হয়।

কবর জিয়ারতের সময় আরও উপস্থিত ছিলেন শেখ আবদুল হান্নান, আল হেলাল একাডেমির সিনিয়র শিক্ষক মো. সেলিম আল দিন, চাচাতো ভাই মো. ফয়েজসহ নুসরাতের পরিবার ও স্বজনরা।

গত ৬ এপ্রিল সকালে নুসরাত আলিমের আরবি প্রথমপত্র পরীক্ষা দিতে গেলে মাদ্রাসায় দুর্বৃত্তরা গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয়। এ ঘটনায় দগ্ধ নুসরাত ঢাকা মেডিকেল কলেজের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন পাঁচ দিন থাকার পর ১০ এপ্রিল রাতে মারা যায়।