ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মেয়াদোত্তীর্ণ মাংসে রক্ত মিশিয়ে বিক্রি

  আখাউড়া প্রতিনিধি ১০ মে ২০১৯, ১৫:৪৮ | অনলাইন সংস্করণ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মেয়াদোত্তীর্ণ মাংসে রক্ত মিশিয়ে বিক্রি
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মেয়াদোত্তীর্ণ মাংসে রক্ত মিশিয়ে বিক্রি। ছবি-যুগান্তর

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় গরুর মাংসের দোকানে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে বের হয়ে এসেছে ভয়ঙ্কর চিত্র।

মেয়াদোত্তীর্ণ মাংসে গরুর পুরনো রক্ত মিশিয়ে তাজা মাংস হিসেবে বিক্রি, মহিষের মাংসকে গরুর মাংস বলে বিক্রি ও মূল্যতালিকা না থাকায় ছয় মাংস ব্যবসায়ীকে জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

শুক্রবার সকালে পৌরশহরের সড়ক বাজারে মাংসের দোকানগুলোতে সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট একেএম শরিফুল হক ছদ্মবেশে ক্রেতা সেজে এ অভিযান চালান।

এ সময় ফ্রিজ থেকে গরুর পুরনো রক্তের বোতলভর্তি সাড়ে ছয় কেজি রক্ত জব্দ করা হয়।

ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্র জানায়, সকালে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শরিফুল হক ছদ্মবেশে ক্রেতা সেজে সড়ক বাজার এলাকার সব কটি গরুর মাংসের দোকান ঘুরে দাম ও মান পর্যবেক্ষণ করেন।

পরে আখাউড়া থানা পুলিশসহ উপজেলা স্যানেটারি ইন্সপেক্টর মো. রফিকুল ইসলামকে নিয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান চালানো হয় দোকানগুলোতে।

দোকানগুলোর রেফ্রিজারেটর থেকে বোতলজাত করে রাখা গরুর পুরনো রক্ত জব্দ করা হয়। গরুর নামে মহিষের মাংস বিক্রি ও মূল্যতালিকা প্রদর্শন না করায় ভোক্তা অধিকার আইনে মনির ও লোকমানসহ ছয়জনকে ৪০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। পাশাপাশি মেয়াদোত্তীর্ণ ১০ কেজি মাংস জব্দ করা হয়।

সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শরিফুল হক যুগান্তরকে বলেন, কসাই দোকান মালিকদের কঠোরভাবে সতর্ক করে দেয়া হয়েছে। ভ্রাম্যমাণ আদালতের এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

আরও পড়ুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

 
×