নাটোরে ঘরের মেঝেতে ছিল মায়ের লাশ, পুকুরে মিলল শিশুর

  যুগান্তার রিপোর্ট ১৫ মে ২০১৯, ০৯:৫৮ | অনলাইন সংস্করণ

নাটোরে ঘরের মেঝেতে ছিল মায়ের লাশ, পুকুরে মিলল শিশুর
ছবি: যুগান্তর

নাটোরের নলডাঙ্গা উপজেলায় মা হালিমা আকতার শারমিন ও তার দুই বছরের শিশুসন্তান আবদুল্লাহর মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

বুধবার সকালে উপজেলার বাঁশিলা গ্রামের মায়ের মৃতদেহ নিজ ঘরে গলায় ওড়না পেঁচানো অবস্থায় আর শিশু আবদুল্লাহকে বাড়ির পাশের পুকুর থেকে উদ্ধার করা হয়।

নিহত হালিমা একই গ্রামের মাহমুদুর রহমান মুন্নার স্ত্রী ও তার ছেলে আবদুল্লাহ।

নিহতের স্বামী মুন্না ঢাকায় একটি পোশাক কারখানায় কাজ করেন।

নিহতের পরিবার জানায়, ভোররাতে বাড়ির লোকজন সেহরি খাওয়ার জন্য উঠলে শারমিনের ঘরের সব দরজা জানালা বন্ধ দেখতে পান। এসময় তারা শারমিনকে সেহরি খাওয়ার জন্য ডাকাডাকি করতে থাকেন। দীর্ঘক্ষণ ডাকাডাকি করলেও ঘরের ভেতর থেকে কোনো সাড়া পাওয়া যাচ্ছিলো না।

বিষয়টি সন্দেহজনক হওয়ায় তারা প্রতিবেশিদের ডাক দেন। পরে ঘরে প্রবেশ করে গলায় ওড়না পেঁচানো অবস্থায় শারমিনের মৃতদেহ পড়ে থাকতে দেখা যায়। আর বাড়ির পাশে পুকুরে পাওয়া যায় শিশুর মৃতদেহ।

নলডাঙ্গা থানার ওসি শফিকুর রহমান জানান, নলডাঙ্গা উপজেলায় মা হালিমা আকতার শারমিন ও তার শিশুসন্তান আবদুল্লাহর মৃতদেহ দেখে স্বজনরা পুলিশে খবর দেন।

নিহতদের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। তাৎক্ষণিকভাবে তাদের মৃত্যুর কারণ জানা যায়নি।

মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নাটোর সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

তবে এটি হত্যা না আত্মহত্যা ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন হাতে পেলেই সঠিক তথ্য বলা যাবে বলে জানান ওসি।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×