কালিহাতীতে আগুন দেয়া ক্ষেতের ধান কেটে দিল শিক্ষার্থীরা

  টাঙ্গাইল ও কালিহাতী প্রতিনিধি ১৫ মে ২০১৯, ২২:২১ | অনলাইন সংস্করণ

আগুন দেয়া ক্ষেতের ধান কেটে দিয়েছে বিভিন্ন কলেজের শিক্ষার্থীরা
আগুন দেয়া ক্ষেতের ধান কেটে দিয়েছে বিভিন্ন কলেজের শিক্ষার্থীরা

অবশেষে টাঙ্গাইল কালিহাতী উপজেলার পাইকড়া ইউনিয়নের আবদুল মালেক সিকদারের আগুন দেয়া ক্ষেতের ধান কেটে দিয়েছে বিভিন্ন কলেজের শিক্ষার্থীরা।

বুধবার দুপুরে জেলার সরকারি সা’দত কলেজ, মাওলানা মোহাম্মদ আলী কলেজ, লায়ন নজরুল ইসলাম ডিগ্রি কলেজসহ বেশ কয়েকটি কলেজের শিক্ষার্থীরা এক সঙ্গে আবদুল মালেকের ক্ষেতের ধান কেটে দেন।

শ্রমিকের মূল্য বৃদ্ধি ও ধানের দাম কম হওয়ায় আবদুল মালেক নিজের ক্ষেতের পাকা ধানে আগুন দিয়ে প্রতিবাদ জানান।

লায়ন নজরুল ইসলাম ডিগ্রি কলেজের শিক্ষার্থী মো. রাফি বলেন, সংবাদ মাধ্যমে জানতে পারি শ্রমিকের মূল্য বেশি হওয়ায় ধানক্ষেতে আগুন ধরিয়ে প্রতিবাদ করেছেন আবদুল মালেক। মানবিক বিবেচনা করে আমরা মালেক কাকার ক্ষেতে ধান কেটে দিয়েছি।

মাওলানা মোহাম্মদ আলী কলেজের শিক্ষার্থী মো. আল আমিন বলেন, ধানের দামের তুলনায় ধান কাটা শ্রমিকের মূল্য অনেক বেশি। প্রায় দেড় মন ধানের দাম দিয়ে একজন ধান কাটা শ্রমিকের মজুরি হয়। সেই দিক বিবেচনা করে আমরা ধান কেটে দিয়েছি।

একই কলেজের শিক্ষার্থী মো. সুজন বলেন, ধান কাটা শ্রমিকের মূল্য বেশি হওয়ার পরও শ্রমিক সংকট রয়েছে। ফলে ধান কাটা নিয়ে বিপাকে পড়েছে অনেক কৃষক। সেই জন্য আমরা বিভিন্ন কলেজ থেকে এসেছি মালেক মিয়াকে সহযোগিতা করার জন্য।

কৃষক আব্দুল মালেক সিকদার বলেন, আসলে কৃষক বাঁচলে দেশ বাঁচবে। শ্রমিক না পাওয়ায় ও ধানের দাম কম হওয়ায় প্রতিবাদ স্বরূপ তিনি ক্ষেতে আগুন দেই। শিক্ষার্থীরা তার ধান কেটে দেয়ায় আমি অনেক খুশি।

উল্লেখ্য, গত ১২ মে রোববার দুপুরে কালিহাতী উপজেলার পাইকড়া ইউনিয়নের বানকিনা এলাকার আবদুল মালেক সিকদার নামের এক কৃষক ধানের ন্যায্য মূল্য না পেয়ে নিজের পাকা ধানে আগুন দিয়ে অভিনব প্রতিবাদ জানান। মালেক সিকদারের এই প্রতিবাদে বিস্ময় প্রকাশ করেছেন এলাকার অধিকাংশ কৃষক। পাকা ধানে আগুন দেখে অনেকেই ছুটে আসেন।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×