টাঙ্গাইলে প্রতিবেশীর লাথিতে বৃদ্ধের মৃত্যু

  টাঙ্গাইল প্রতিনিধি ১৫ মে ২০১৯, ২২:৩৮ | অনলাইন সংস্করণ

টাঙ্গাইলে প্রতিবেশীর লাথিতে বৃদ্ধের মৃত্যু

টাঙ্গাইলে প্রতিবেশীর লাথির আঘাতে অসুস্থ হয়ে মানিক মোল্লা (৬৫) নামে এক বৃদ্ধের মৃত্যু হয়েছে। টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে নেয়ার পথে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় তার মৃত্যু হয়।

এদিকে এ ঘটনাটি ভিন্ন খাতে নেয়ার চেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে একটি প্রভাবশালী মহল। তারা নিহত মানিক মোল্লার পরিবারকে হুমকি দিয়ে চলেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

নিহতের স্ত্রী বাছাতন বেগম জানান, গত এক সপ্তাহ আগে তার মেয়ে রোজিনা বাড়িতে আসে। এ কারণে গত সোমবার বিকালে মেয়ের স্বামী কামাল ও তার চাচাতো ভাই বাড়িতে আসে। সন্ধ্যায় স্বামীকে কিছু না বলে 'প্রেমিক' চাচাতো ভাইয়ের সঙ্গে চলে যায় রোজিনা।

তিনি জানান, এ নিয়ে ওইদিন রাতেই স্থানীয় লোকজন সমালোচনা করতে থাকে এবং প্রতিবেশী মৃত হযরত খাঁর ছেলে সাইদুর রহমান বাড়িতে এসে তার স্বামীকে মেয়ের খোঁজখবর দিতে বলে। এ সময় তার স্বামী মেয়ের খবর জানেন না বলে জানালে উত্তেজিত হয়ে সাইদুর তার স্বামী মানিক মোল্লাকে লাথি মারেন। এতে তিনি মাটিতে লুটিয়ে পড়েন।

পরে স্থানীয় চিকিৎসকের কাছে তাকে নিয়ে গেলে বাড়িতে নিয়ে বিশ্রাম নিতে বলা হয়। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় তার অবস্থার অবনতি হলে পরিবারের লোকজন তাকে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন বলে জানান নিহতের স্ত্রী বাছাতন।

এদিকে এ ঘটনাটি বিন্নাফৈর ৭নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মোতালেব হোসেন ঘটনাটি ভিন্ন খাতে নেয়ার জন্য নিহতের পরিবারকে বিভিন্নভাবে ভয়ভীতি দেখিয়ে আসছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে টাঙ্গাইল থানার এসআই মো. ওয়াজেদ জানান, এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। ঘটনার পর থেকে সাইদুর পলাতক রয়েছেন। নিহতের লাশ বুধবার দুপুরে ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×