ইউএনও আসার খবরে পালাল ক্লিনিকের সবাই!

  বিরামপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি ১৫ মে ২০১৯, ২২:২৯ | অনলাইন সংস্করণ

ইউএনও আসার খবরে পালাল ক্লিনিকের সবাই!
বিরামপুর পৌর শহরের এক্স আর্মি নার্সিং হোম অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান। ছবি: যুগান্তর

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানের খবর পেয়ে ক্লিনিকের সব কর্মকর্তা-কর্মচারীরা পালিয়ে যাওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

বুধবার বিকালে দিনাজপুরের বিরামপুর পৌর শহরের এক্স আর্মি নার্সিং হোম অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারে এ ঘটনা ঘটে।

সূত্র জানায়, অন্যান্য দিনের মতো বুধবার সকাল থেকেই খোলা ছিল নার্সিং হোমটি। রোগী, তাদের স্বজন ও সেবাপ্রত্যাশীদের আনাগোনাও ছিল লক্ষণীয়।

বিকাল ৩টার দিকে হঠাৎ করেই নার্সিং হোমটি তালাবদ্ধ করে দ্রুত সটকে পড়েন সেখানকার কর্মকর্তা-কর্মচারীরা।

এর কিছুক্ষণ পরেই পুলিশ, ফায়ার সার্ভিস ও স্যানিটারি ইন্সপেক্টরের সমন্বয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতের একটি দল নিয়ে নার্সিং হোমে উপস্থিত হন ইউএনও মো. তৌহিদুর রহমান।

এ সময় কর্তৃপক্ষের সঙ্গে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করে কোনো সাড়া না পাওয়ায় নার্সিং হোমটি সিলগালা করেন ইউএনও।

ইউএনও তৌহিদুর রহমান যুগান্তরকে বলেন, ভ্রাম্যমাণ আদালতের একটি দল নিয়ে সকাল থেকে বিরামপুরে বিভিন্ন ক্লিনিকে অভিযান চালানো হয়। বেলা তিনটার দিকে এক্স আর্মি নার্সিং হোম অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারে গিয়ে দেখতে পাই নার্সিং হোমের মূল গেটটি তালাবদ্ধ। কিন্তু ভেতরের সব দরজা-জানালা খোলা। ভেতরের পরিবেশ খুব নোংরা। চিকিৎসাসেবা দেয়ার মতো কোনো পরিবেশ ও প্রয়োজনীয় উপকরণ নেই। এ ছাড়া নার্সিং হোমটির কোনো রেজিস্ট্রেশন নেই। ভ্রাম্যমাণ আদালতের আসার খবর পেয়ে তালাবদ্ধ করে কর্তৃপক্ষ পালিয়েছে। তাই প্রচলিত আইনে নার্সিং হোমটি সিলগালা করা হয়েছে।

স্থানীয় লোকজন জানান, নার্সিং হোমটি খোলাই ছিল। লোকজনের আনাগোনাও ছিল। ইউএনও আসার খবর পেয়ে হঠাৎ করে নার্সিং হোম থেকে সব কর্মকর্তা-কর্মচারীকে বের করে দিয়ে মূল ফটক তালাবদ্ধ করে দ্রুত সটকে পড়েন সবাই।

ইউএনও জানান, বিভিন্ন অপরাধে বিরামপুরের মডার্ন ক্লিনিক, নিউ মডার্ন ক্লিনিক ও রাইয়ান হেলথ কেয়ার থেকে পাঁচ হাজার টাকা করে জরিমানা আদায় করা হয়েছে। এ ছাড়া বিভিন্ন ওষুধ বিক্রয়কেন্দ্রে অভিযান চালিয়ে জরিমানা করা হয়েছে।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×