এবার মা-মাটির ভালোবাসায় সিক্ত হলেন মার্কিন সিনেটর চন্দন

  কিশোরগঞ্জ ব্যুরো ১৬ মে ২০১৯, ১৬:২৩ | অনলাইন সংস্করণ

এবার মা-মাটির ভালোবাসায় সিক্ত হলেন মার্কিন সিনেটর চন্দন
মায়ের ভালোবাসায় সিক্ত মার্কিন সিনেটর শেখ মোজাহিদুর রহমান চন্দন। ছবি: যুগান্তর

মার্কিন সিনেটর নির্বাচিত হয়ে দেশে ফিরে এবার মা-মাটির ভালোবাসায় সিক্ত হলেন বাংলাদেশি আমেরিকান শেখ মোজাহিদুর রহমান চন্দন।

মা আর গ্রামের বাড়িতে থাকা স্বজন ও বন্ধুদের দেখতেই তাই দেশে ফেরা। শেখ মোজাহিদুর রহমান চন্দনের জন্ম কিশোরগঞ্জ জেলার বাজিতপুর উপজেলার সরারচরে।

২০১৩ সালে নাড়ির টানে তিনি একবার পা রেখেছিলেন এ দেশের সোনার চেয়েও খাঁটি মাটিতে।

বুক ভরে ঘ্রাণ নিয়েছেন তার সরারচর গ্রামের মাটির। এ গ্রামের কাঁদামাটি জলে লুকিয়ে আছে তার দুরন্ত শৈশব ও কৈশোরের হাজারো স্মৃতি।

সেই স্মৃতি রোমন্থনে ফের এলেন এই ধানসিড়িটির তীরে।

শেখ মোজাহিদুর রহমান চন্দনকে একনজর দেখতে বুধবার সন্ধ্যায় সব স্বজন ও এলাকাবাসী ভিড় জমিয়েছিলেন।

তার আগমন উপলক্ষে নিজ বাড়িতে আয়োজিত ইফতার মাহফিল পরিণত হয় সংবর্ধণানুষ্ঠানে।

এ অনুষ্ঠানে মমতাময়ী মা, বড় বোন তাহেরা হক, ছোট ভাই রাজনীতিক ও ব্যবসায়ী শেখ মুজিবুর রহমান ইকবাল, ছোট বোন ডা. তাহমিনা আক্তার সামিয়া, যুক্তরাষ্ট্রে ব্যবসায়ী নাদিরা রহমান ও নাহিদা আক্তার, ভাগনি জামাই মার্কিন নাগরিক ওয়েস্টিন সাসম্যান ও ভাগনি মিশাও উপস্থিত ছিলেন এ অনুষ্ঠানে।

অনুষ্ঠানে যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক ডেমোক্রেটিক দলের নেতা মোজাহিদুর রহমান চন্দন বলেন, মা-মাটির ভালোবাসা, স্নেহ মমতার ঋণ কখনও শোধ করার নয়।

তিনি বলেন, ক্রমবর্ধমান উন্নতির শিখরে উঠছে বাংলাদেশ। মানুষের মাথাপিছু আয়, ভাগ্যের উন্নতি এবং তথ্য-প্রযুক্তির বিকাশ বিশ্বের মানচিত্রে বাংলাদেশকে ভিন্ন উচ্চতায় নিয়ে যাচ্ছে। ঘুরে দাঁড়ানো উন্নয়নের রোল মডেল বাংলাদেশ একদিন বিশ্বের বিস্ময় হয়ে আলো ছড়াবে।

আমেরিকার মধ্যবর্তী নির্বাচনে জর্জিয়া অঙ্গরাজ্যের ডিস্ট্রিক্ট-৫ থেকে ডেমোক্রেটিক দলের মনোনয়নে স্টেট সিনেটর নির্বাচিত হন বাংলাদেশি-আমেরিকান শেখ মোজাহিদুর রহমান। আমেরিকার যেকোনো পর্যায়ের আইনসভার সদস্য হওয়া প্রথম বাংলাদেশি বলা যায় তাকেই।

শেখ মোজাহিদুর রহমান চন্দনের স্টেট সিনেটর নির্বাচিত হওয়াটা একরকম নিশ্চিতই ছিল। ২০১৮ সালের ২২ মে তিনি ডেমোক্রেটিক দলের বাছাই পর্বে ৪ হাজার ২ ভোট পেয়ে বিজয়ী হওয়ার পরই বিষয়টি অনেকটা নিশ্চিত হয়ে যায়।

কারণ ডেমোক্র্যাট আধিপত্যের ওই অঞ্চল থেকে রিপাবলিকান দল সাধারণত কোনো প্রার্থী দেয় না। সেবারও তার ব্যত্যয় ঘটেনি।

ফলে ডেমোক্রেটিক দলের প্রাথমিক বাছাইয়েই মূল নির্বাচনের আবহ বিরাজ করে। আর এই নির্বাচনে শেখ মোজাহিদুর রহমান চন্দন বিপুল ব্যবধানে পরাজিত করেন দীর্ঘদিন ধরে আসনটি থেকে ডেমোক্র্যাটদের প্রতিনিধিত্ব করা কার্ট থমসনকে।

২০১৮ সালের ২২ মে অনুষ্ঠিত প্রাথমিক বাছাইয়ে কার্ট থমসন পেয়েছিলেন ১ হাজার ৮৮৫ ভোট।পুরো আমেরিকার বিচারে বাংলাদেশি বা বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত বিচারে শেখ রহমানকে যদি দ্বিতীয় অবস্থানে ঠেলে দেওয়া হয়ও, তারপরও একটি জায়গায় তিনি ঠিকই অনন্য।

কারণ জর্জিয়ার ইতিহাসে তিনিই প্রথম ও একমাত্র বাংলাদেশি হিসেবে অঙ্গরাজ্যটির স্টেট সিনেটে যাওয়ার গৌরব অর্জন করার ইতিহাস গড়লেন।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×