নারী মুহুরীকে পেটানো সেই এসআইকে ৩ বছরের কারাদণ্ড

  ফতুল্লা (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি ১৬ মে ২০১৯, ১৯:৫২ | অনলাইন সংস্করণ

নারী মুহুরীকে পেটানো সেই এসআইকে ৩ বছরের কারাদণ্ড
প্রতীকী ছবি

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে সেখানকার এক আইনজীবীর সহকারীকে (মুহুরী) পিটিয়ে হাত ভেঙে দেয়ার মামলার উপপরিদর্শক (এসআই) সাদেক মজিবুর রহমানকে ৩ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত।

একই সঙ্গে এসআইকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ৬ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ডের নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

নারায়ণগঞ্জ অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ দ্বিতীয় আদালতের বিচারক শেখ রাজিয়া সুলতানা এ রায় ঘোষণা করেন। রায় ঘোষণার পূর্বে দণ্ডিত আসামি জামিনে গিয়ে পলাতক রয়েছেন।

আদালতের অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর জাসমিন আহমেদ জানান, গত ৩ এপ্রিল আদালতে রায় ঘোষণা হলেও বৃহস্পতিবার পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশ করেন আদালত।

তিনি আরও জানান, দণ্ডিত সাদেক মজিবুর রহমান মুন্সিগঞ্জ জেলার সিরাজদীখান থানার ইমামগঞ্জ গ্রামের মৃত সাবেদ আলী মোল্লার ছেলে। তিনি উপপরিদর্শক থেকে পরিদর্শক পদোন্নতি পেয়ে ঢাকা সিআইডিতে দায়িত্ব পালন করছেন।

ভুক্তভোগী ওই নারী নারায়ণগঞ্জ জজ কোর্টের এক সিনিয়র আইনজীবীর সহকারী (মুহুরী)।

মামলার বরাত দিয়ে অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর জাসমিন আহমেদ জানান, এসআই সাদেক মজিবুর রহমান বন্দর থানায় কর্মরত থাকার সময় ১৯৯৩ সালে জমিজমা সংক্রান্ত একটি মামলার বিষয়ে থানায় গেলে উল্লিখিত নারীর সঙ্গে তার পরিচয় হয়।

এ পরিচয়ের সূত্র ধরে উভয়ের মধ্যে পরকীয়া সম্পর্ক হয়। একপর্যায়ে তাদের মধ্যে অনৈতিক সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এতে ওই নারী তিন মাসের অন্তঃসত্ত্বা হন। এ বিষয়ে বিয়ের জন্য চাপ দিলে এসআই সাদেক মিথ্যা আশ্বাস দিয়ে ওই নারীর গর্ভপাত করান। ওইসময় বন্দর থানা থেকে বদলি হয়ে নারায়ণগঞ্জ সদর থানায় এসে দায়িত্ব নিয়ে এসআই সাদেক একটি ভাড়া বাসায় স্ত্রী পরিচয় দিয়ে ওই নারীকে নিয়ে তিন বছর বসবাস করেন।

একপর্যায়ে এসআই সাদেকের প্রথম স্ত্রী বিষয়টি জানতে পারলে এনিয়ে তাদের মধ্যে বিরোধ দেখা দেয়। এতে ফতুল্লা মডেল থানায় বদলি হয়ে যান সাদেক। সেখানে গিয়ে বিয়ের জন্য চাপ দেন ওই ভুক্তভোগী নারী।

এক পর্যায়ে ক্ষিপ্ত হয়ে ২০০৩ সালের ১৯ জুন রাত সাড়ে ১০টায় ওই নারী ফতুল্লার মাসদাইর ঈদগাহের সামনে দিয়ে রিকশায় বাসায় যাওয়ার পথে সাদেক কয়েকজন ভাড়াটে সন্ত্রাসী নিয়ে তার ওপর হামলা চালায়। এ সময় তার হাত-পা ভেঙে ফেলে এবং শরীরের বিভিন্ন স্থানে মারাত্মক আঘাত করে।

দীর্ঘদিন চিকিৎসা শেষে ভুক্তভোগী নারী নারায়ণগঞ্জ কোর্টে একটি মামলা দায়ের করেন। এ মামলায় আদালত সাক্ষ্যপ্রমাণের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার রায় ঘোষণা করেন।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×